রোগমুক্তির জন্য কোন আলেমের দেওয়া তাবীয ব্যবহার করা যাবে কি?


শুধু রোগ মুক্তির জন্য নয়, যে কোন উদ্দেশ্যে তাবীয ব্যবহার করা হারাম। তা কুরআনের আয়াত লিখে হোক আর অন্য কিছু দিয়ে তৈরি করা হোক। এর বিনিময়ে হাদিয়া গ্রহণ করাও হারাম। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি তাবীয লটকাল সে শিরক করল (আহমাদ হা/১৬৯৬৯; সিলসিলা ছহীহাহ হা/৪৯২)।

This entry was posted in তাবীয ব্যবহার করা যাবে কি?. Bookmark the permalink.