পিতৃ-পরিচয়হীন ও অভিভাবকহীন কোন মেয়েকে বিবাহ করা যাবে কি?


এ ব্যাপারে শরী‘আতে কোন বাধা নেই। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘যার দ্বীনদারী এবং উত্তম আচরণে তোমরা সন্তুষ্ট, তার সাথে বিবাহ দাও’ (তিরমিযী, মিশকাত হা/৩০৯০)।  কারণ সে এজন্য দোষী নয়; বরং দোষী তার পিতা-মাতা। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) জনৈকা গামেদী মহিলার অবৈধ সন্তানের ভরণ-পোষণের সার্বিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিলেন (মুসলিম, মিশকাত হা/৩৫৬২ ‘হুদুদ’ অধ্যায়)। আয়েশা (রাঃ) বলেন রাসূল (ছাঃ) বলেছেন, ‘পিতা-মাতার গোনাহের কারণে জারজ সন্তান গোনাহগার হবে না’। যেমন আল্লাহ বলেন, ‘কেউ অপরের বোঝা বহন করবে না’ (হাকেম, সিলসিলা ছহীহাহ হা/২১৮৬, আন‘আম ১৬৪)। এমন মহিলার অলী হবেন দেশের নেতা বা সমাজের নেতা। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘যার কোন অভিভাবক নেই, শাসক তার অভিভাবক হবেন’ (আবুদাঊদ, তিরমিযী, মিশকাত হা/৩১৩১)।

Advertisements
This entry was posted in অ‌ভিভাব‌কের বিনা অনুম‌তি‌তে বিবাহ কর‌লে বিবাহ হবে কী এবং সম্পদ পা‌বে কী?, ওলী ছাড়া বিবাহ সিদ্ধ হয়না।, পিতৃ-পরিচয়হীন ও অভিভাবকহীন কোন মেয়েকে বিবাহ করা যাবে কি?. Bookmark the permalink.