ইসলাম গ্রহণ করায় জনৈকা মহিলা স্বীয় খৃষ্টান পিতা-মাতাসহ গোটা পরিবার কর্তৃক পরিত্যক্ত। খৃষ্টান রাষ্ট্র হওয়ায় সরকারী অলীও নেই। এক্ষণে অভিভাবকবিহীন উক্ত মহিলাকে বিবাহ করতে চাইলে করণীয় কি?


অমুসলিম পিতা-মাতা, কিংবা ভাই ও চাচারা অভিভাবক হওয়ার যোগ্য নয়। এমতাবস্থায় স্থানীয় মুসলিম নেতা বা মসজিদের ইমাম তার অভিভাবক হবেন। শরী‘আতে মুসলিম অভিভাবকের অবর্তমানে মুসলিম শাসকের কথা এসেছে (ইবনু মাজাহ হা/১৮৮০, মিশকাত হা/৩১৩১)। এর মধ্যে সকল পর্যায়ের মুসলিম নেতৃবৃন্দ অন্তর্ভুক্ত। ইবনে কুদামা (রহঃ) বলেন, কোন কাফের কোন মুসলিম নারীর অলী হতে পারবে না। এক্ষণে যদি কোন মুসলিম শাসক বা নেতা পাওয়া না যায়, তবে কোন ন্যায়পরায়ণ মুমিন ব্যক্তি উক্ত মহিলার সম্মতিক্রমে তাকে বিবাহ দিবে (মুগনী ৭/২৭, ১৮)।

This entry was posted in অ‌ভিভাবক বা ওলী না থাক‌লে করণীয়!. Bookmark the permalink.