মাসজিদুল আক্বছায় যদি কোন ব্যক্তি ছালাত আদায় করেন, তাহ’লে তার বিগত জীবনের সমস্ত গুনাহ মাফ হয়ে যাবে’ মর্মে কোন ছহীহ হাদীছ আছে কি?


উক্ত মর্মে ছহীহ হাদীছ রয়েছে। আব্দুল্লাহ ইবনু ‘আমর (রাঃ) থেকে বর্ণিত নবী করীম (ছাঃ) বলেছেন, সুলায়মান (আঃ) বায়তুল মুক্বাদ্দাসের নির্মাণ কাজ শেষ করে আল্লাহর কাছে তিনটি বিষয় প্রার্থনা করেন। আল্লাহর হুকুম মত ন্যায়বিচার, এমন রাজত্ব যা তার পরে আর কাউকে দেয়া হবে না এবং যে ব্যক্তি বায়তুল মুক্বাদ্দাসে কেবলমাত্র ছালাত আদায়ের জন্য আসবে, সে তার গুনাহ থেকে এমনভাবে বের হয়ে যাবে, যেন তার মা তাকে সেদিনই প্রসব করেছে। এরপর নবী করীম (ছাঃ) বলেন, প্রথম দু’টি তাঁকে দান করা হয়েছে এবং আমি আশা করি তৃতীয়টিও তাঁকে দান করা হয়েছে’ (ইবনু মাজাহ হা/১৪০৮; ইবনু খুযায়মাহ হা/১৩৩৪; ছহীহ আত-তারগীব হা/১৭৭৮)। অর্থাৎ তার (ছগীরা) গুনাহ সমূহ মাফ হয়ে যাবে।

 

হাদীছে ‘নির্মাণ কাজ শেষ করে’ অর্থ মূল কাঠামো নির্মাণ কাজ শেষ করে। কেননা তখনও আনুসঙ্গিক কাজ সমূহ বাকী ছিল। যেজন্য মৃত্যুর পরেও আল্লাহর নির্দেশে তাঁকে স্বীয় মেহরাবে এক বছর লাঠিতে ভর করে দাঁড়িয়ে রাখা হয়। জ্বিনেরা ভয়ে তাঁর কাছে যায়নি। ফলে হাড়ভাঙ্গা খাটুনির মাধ্যমে তারা কাজ শেষ করে ফেলে। অতঃপর আল্লাহর হুকুমে কিছু উইপোকার মাধ্যমে লাঠি ভেঙ্গে দেওয়া হয় এবং সুলায়মানের লাশ মাটিতে পড়ে যায়। আর তখনই জ্বিনেরা তাঁর মৃত্যু সম্পর্কে জানতে পারে (সাবা ৩৪/১৪; নবীদের কাহিনী ২/১৫৯-৬০ পৃঃ)।

Advertisements
This entry was posted in মাসজিদুল আক্বছায় নামাজ পড়লে সমস্ত গুনাহ মাফ হয় কি? and tagged , , . Bookmark the permalink.