কুরআন-হাদীছ বা অন্যান্য ধর্মীয় গ্রন্থাবলীর উপরে কিছু রাখা বা একটি অপরটির উপর রাখায় শরী‘আতে কোন বাধা আছে কি?


কুরআনের উপর কুরআন ব্যতীত অন্য কোন বই রাখা যাবে না। কারণ পবিত্র কুরআন মহান আল্লাহর বাণী, যা পৃথিবীর সমস্ত গ্রন্থের চেয়ে মর্যাদামন্ডিত। আল্লাহ বলেন, ‘নিশ্চয়ই এটা সম্মানিত কুরআন, যা আছে এক গোপন কিতাবে, যারা পবিত্র তারা ব্যতীত অন্য কেউ একে স্পর্শ করবে না’ (ওয়াক্বিয়া ৭৭, ৭৮, ৭৯)। তিনি বলেন, ‘কুরআন হচ্ছে মর্যাদাপূর্ণ গ্রন্থ’ (বুরূজ ৮৫/২১)। কুরআন মজীদের সম্মান রক্ষা করার জন্য তা নিয়ে শত্রুদের এলাকায় যেতে নিষেধ করা হয়েছে (বুখারী হা/২৯৯০; মুসলিম হা/১৮৬৯; মিশকাত হা/২১৯৭)

অনুরূপভাবে হাদীছ ও ধর্মীয় বই-পুস্তকের উপর সাধারণ বই-পত্র রাখা অনুচিত (ইবনুল মুফলিহ, আদাবুশ শারঈয়া ২/৩৯৩; শারহু উমদাতুল আহকাম ১৩/৩৫)। অতএব কুরআন ও হাদীছের মর্যাদা সাধ্যমত টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করতে হবে। তবে মর্যাদা প্রদানের অর্থ এই নয় যে, চুমা দিতে হবে বা সালাম দিতে হবে।

Advertisements
This entry was posted in কুরআন-হাদীছ বা অন্যান্য ধর্মীয় গ্রন্থাবলীর উপরে কিছু রাখা যাবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.