রামাযান মাসে দিনের বেলা স্ত্রী সহবাস করলে স্বামী-স্ত্রী উভয়কে কাফফারা দিতে হবে, না কেবল স্বামী দিলেই যথেষ্ট হবে?


স্বামী স্ত্রী উভয়ে এতে সম্মত থাকলে উভয়কে কাফফারা ও কাযা আদায় করতে হবে (বুখারী হা/১৯৩৬; মুসলিম হা/১১১১; মিশকাত হা/২০০৪; আব্দুল্লাহ বিন বায, মাজমূ ফাতাওয়া ১৫/৩০৭)। উক্ত ছিয়াম কাযা আদায় করতে হবে এবং কাফফারা দিতে হবে। এর কাফফারা হ’ল- ১- একজন দাস মুক্ত করবে। এতে তার সামর্থ্য না থাকলে ২- দু’মাস একটানা ছিয়াম পালন করবে। তাতেও সক্ষম না হলে ৩- ষাটজন মিসকীনকে মধ্যম মানের খাদ্য দান করবে (বুখারী হা/১৯৩৬; মুসলিম হা/১১১১; মিশকাত হা/২০০৪ ছওম অধ্যায়)  আর স্বামী যদি জোরপূর্বক এরূপ করে, তাহ’লে কেবল স্বামীকে কাফফারা ও কাযা আদায় করতে হবে, স্ত্রীকে নয়। এমতাবস্থায় স্ত্রী তার ছিয়াম পূর্ণ করবে (ইবনু মাজাহ হা/২০৪৫; মিশকাত হা/৬২৮৪; উছায়মীন, শারহুল মুমতে ৬/৪০৪)

উল্লেখ্য যে, একটানা দু’মাস ছিয়াম রাখার মধ্যে কোন বাধ্যগত শারঈ ওযর দেখা দিলে ছিয়াম ভঙ্গ করতে পারবে। তাতে ধারাবাহিকতা বিনষ্ট হবে না (ইবনু কুদামা, মুগনী ৮/২৯)

Advertisements

About ইসলামী সাইট

কুরআন ও সহীহ হা‌দিস
This entry was posted in রামাযান মাসে দিনের বেলা সহবাস করলে উভয়কে কাফফারা দিতে হবে কি? and tagged , . Bookmark the permalink.