৭ লক্ষ টাকা দিয়ে গ্রামের মসজিদ পুনর্নির্মাণ করার ব্যাপারে আমি ইচ্ছা পোষণ করেছিলাম। কিন্তু অন্য একজন কাজটি সম্পন্ন করেছে। এক্ষণে উক্ত টাকা কবরস্থানের প্রাচীর দেওয়া, মাদ্রাসায় দান করা ইত্যাদি করলে ওয়াদা পালন হবে কি?


শারঈ বিবেচনায় দাতা তার নিয়ত পরিবর্তন করতে পারেন, অন্য কোন বিবেচনায় নয়। যেমন মসজিদে শিরক-বিদ‘আতের প্রচলন হওয়ার সম্ভাবনা থাকলে বা মসজিদের জমিতে ওয়াকফের ব্যাপারে কোন ত্রুটি থাকলে অথবা অন্য মসজিদে দানের অধিক প্রয়োজন মনে করলে ইত্যাদি কারণে নিয়ত পরিবর্তন করা যাবে (বিস্তারিত দ্রষ্টব্যঃ ফিক্বহুস সুন্নাহ ‘ওয়াক্ফ’ অধ্যায় ৩/৫৩২)। উক্ত টাকা নেকীর নিয়তে অন্য কোন মসজিদ বা মাদরাসায় দান করা যেতে পারে। স্মর্তব্য যে, শিরক-বিদ‘আত হয় নিশ্চিতভাবে জানলে এমন স্থানে দান করা যাবে না। বরং ছহীহ পদ্ধতিতে ছালাত হয়, এরূপ মসজিদে দান করতে হবে।

Advertisements

About ইসলামী সাইট

কুরআন ও সহীহ হা‌দিস
This entry was posted in নিয়ত আছে মসজিদে দান করবো এখন অন্য জায়গায় দান করা ঠিক হবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.