সুৎরা কি কি এবং কোন আকৃতির বস্ত্ত দ্বারা দেওয়া যাবে?


সুৎরার উদ্দেশ্য আড়াল করা। তা যে কোন বস্ত্ত দ্বারা হ’তে পারে। রাসূল (ছাঃ) কখনো  সওয়ারীকে  সুৎরা হিসাবে গ্রহণ  করেছেন (বুখারী, মিশকাত হা/৭৭৪)। এমনকি তিনি হাওদার পিছনের কাঠের ন্যায় সামান্য উঁচু কিছু হ’লেও তা দ্বারা সুৎরা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন (মুসলিম, মিশকাত হা/৭৭৫)। এর ব্যাখ্যায় ইমাম নববী (রহঃ) বলেন, ‘সুৎরার সর্বনিম্ন পরিমাণ হ’ল হাওদার পিছনের কাঠ পরিমাণ। যা প্রায় হাতের তিনভাগের দুইভাগ পরিমাণ বস্ত্ত (তথা একফুট)। অতএব এরূপ কিছু মুছল্লীর সামনে রাখলেই সুৎরার উদ্দেশ্য পূরণ হয়ে যাবে (নববী, শরহ মুসলিম ৪/২১৬; উছায়মীন, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ১৩/৩২৬)। উল্লেখ্য যে, দাগ টেনে সুৎরা দেওয়ার হাদীছ যঈফ (আবুদাঊদ হা/৬৮৯; মিশকাত হা/৭৮১; যঈফুল জামে‘ হা/৫৬৯)

Advertisements
This entry was posted in সুৎরা কি কি এবং কোন আকৃতির বস্ত্ত দ্বারা দেওয়া যাবে? and tagged . Bookmark the permalink.