আমাদের মসজিদের নিচে তিনটি কবর (২টি ৩৫ বছর ও ১টি ১৮ বছর পূর্বের) রয়েছে। মসজিদ পাকা করার সময় এগুলির উপর ৪ ফুট বালি ভরাট দিয়ে তার উপর মসজিদ করা হয়। এক্ষণে উক্ত মসজিদে ছালাত হবে কি?


ছালাত হবে না। বরং যে স্থানে কবর আছে বলে নিশ্চিত হবে তা খুঁড়ে লাশের কোন চিহ্ন পেলে তা উঠিয়ে অন্যত্র দাফন করতে হবে (ফিক্বহুস সুন্নাহ ১/৩০১ পৃঃ; তালখীছু আহকামিল জানায়েয, পৃঃ ৯১-৯৪)। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেছেন, তোমরা কবরের দিকে ফিরে ছালাত আদায় করো না এবং কবরের উপরে ছালাত আদায় করো না’ (ত্বাবারাণী কাবীর, সিলসিলা ছহীহাহ হা/১০১৬)। তিনি বলেন, ‘তোমরা কবরে ছালাত আদায় করো না এবং এর উপর  বসো না’ (মুসলিম হা/৯৭২)

ইবনু তায়মিয়াহ (রহঃ) বলেন, আলহামদুল্লিাহ। বিদ্বানগণ এ বিষয়ে একমত যে, কবরের উপর মসজিদ করা যাবে না। কেননা রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) এ ব্যাপারে নিষেধ করে গিয়েছেন (মুসলিম হা/৫৩২)। আর মসজিদে কোন মাইয়েতকে দাফন করা যাবে না। যদি মসজিদ কবর দেওয়ার পূর্বেকার হয়, তাহ’লে কবর সরাতে হবে। বহু পুরাতন হ’লে মাটি সমান করার মাধ্যমে, আর নূতন হ’লে তা উঠিয়ে অন্যত্র কবর দেওয়ার মাধ্যমে। পক্ষান্তরে যদি মসজিদ কবর দেওয়ার পরে বানানো হয়, তাহ’লে হয় মসজিদ সরাতে হবে, নয় কবর সরাতে হবে। কেননা কবরের উপর মসজিদ থাকলে তাতে ফরয বা নফল কোন ছালাতই পড়া যাবে না। এটি নিষিদ্ধ (মাজমূফাতাওয়া ২২/১৯৪-৯৫ পৃ.; তাহযীরুস সাজিদ ৪৫ পৃ.)

Advertisements

About ইসলামী সাইট

কুরআন ও সহীহ হা‌দিস
This entry was posted in মসজিদের নিচে কবর থাকলে ছালাত হবে কি? and tagged , , . Bookmark the permalink.