ছালাতের সময় নির্ধারণী বিভিন্ন স্থায়ী ক্যালেন্ডারে ঢাকার সাথে সাতক্ষীরার সুর্যাস্তের সময়ের পার্থক্য ৫ মিনিট নির্ধারিত থাকলেও ‘যুবসংঘ’ কর্তৃক প্রকাশিত রামাযান মাসের ক্যালেন্ডারে তা ৩ মিনিট করা হয়েছে। এরূপ কমবেশী হওয়ার কারণ কি?


কোন কোন সময়সূচীতে ঢাকা ব্যতীত অন্য যেলায় সাহারী-ইফতারীর সময় নিরূপণের ক্ষেত্রে ঢাকাকে কেন্দ্র ধরে যেলাসমূহের দ্রাঘিমার দূরত্ব অনুযায়ী সময় নির্ধারণ করা হয়। ফলে অন্য যেলাগুলির সাথে ঢাকার সময়ের পার্থক্য এবং সাহারী ও ইফতারের ক্ষেত্রেও সময়ের পার্থক্য সারা বছর একই হয়। কিন্তু তাতে পুরোপুরি সঠিকভাবে সময় নিরূপণ করা সম্ভব হয় না। কেননা বাস্তবতা হ’ল পৃথিবী সূর্যকে পূর্ব-পশ্চিমে প্রদক্ষিণ কালে সবসময় ২৩.৫ ডিগ্রী কোণে হেলে থাকে। ফলে পৃথিবীর উত্তর ও দক্ষিণ মেরুর দূরত্ব সারা বছর কমবেশী হয়। যার ভিত্তিতে দিন-রাত্রির প্রভেদ রেখা নির্দিষ্ট ডিগ্রীতে অবস্থান না করে মাস ভেদে বাঁকা হয়, আবার সোজা হয় এবং সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের সময় প্রতিদিনই কিছুটা কমবেশী হয়। সেকারণ ঢাকার সাথে অন্যান্য যেলাসমূহের সময়ের পার্থক্যও সব দিন একরকম থাকে না। ‘যুবসংঘে’র সূচীটি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত পদ্ধতির অনুসরণে এবং বাংলাদেশ আবহাওয়া বিভাগ ও আন্তর্জাতিক ইসলামী সংস্থার প্রদত্ত ঢাকাসহ অন্যান্য যেলাসমূহের সময়সূচী অনুযায়ী প্রস্ত্তত করা হয়েছে। আল্লাহ সর্বাধিক অবগত (বিস্তারিত দ্রঃ জ্যোতির্বিজ্ঞানের নিরিখে যেলাসমূহের মাঝে সময়ের পার্থক্যের কারণ)

Advertisements
This entry was posted in ছালাতের সময় নির্ধারণী ক্যালেন্ডারে কমবেশী হওয়ার কারণ কি?. Bookmark the permalink.