আমাদের ইমাম ছাহেব প্রতিদিন ফজর ছালাতের শেষ রাক‘আতে হাত তুলে দো‘আ করেন। এমনকি একদিন দো‘আ করতে ভুলে গেলে সহো সিজদাও দিয়েছেন। এভাবে দোআ কুনূত নিয়মিত পড়ার কোন বিধান শরী‘আতে আছে কি? প্রতিদিন এরূপ করতে যেসব মুছল্লী ইচ্ছুক নয় তাদের জন্য করণীয় কি?


এভাবে নিয়মিতভাবে কুনূতে নাযেলাহ পাঠ করা জায়েয নয় (তিরমিযী হা/৪০২; মুছান্নাফ ইবনু আবী শায়বাহ হা/৫৪৫৫-৫৭; মিশকাত হা/১২৯১-৯২)। আর এর জন্য সহো সিজদা দেওয়ারও কোন প্রয়োজন নেই। ইবনুল ক্বাইয়িম (রহঃ) বলেন, রাসূল (ছাঃ) বিপদাপদের ক্ষেত্রে সাময়িকভাবে কুনূতে নাযেলাহ পাঠ করতেন। পরে তা ছাড়তেন (যাদুল মা‘আদ ১/২৭৩)। অতএব ইমাম ছাহেবকে এ কাজ থেকে বিরত রাখার চেষ্টা করতে হবে। আর যিদ করলে তাকে পরিবর্তন করে অন্য ইমাম রাখতে হবে।

Advertisements
This entry was posted in ফজর ছালাতের শেষ রাক‘আতে প্রতিদিন দোআ কুনূত পড়া যাবে কি? and tagged , . Bookmark the permalink.