আমি নেকীর আশায় সৎ মানুষদের মাঝে বিনা সূদে টাকা ঋণ দিয়ে থাকি। গ্রহীতাগণ তা সাপ্তাহিক কিস্তিতে আমাকে পরিশোধ করেন। কিন্তু বর্তমানে আমি অন্য কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ায় ঋণ লেনদেনের জন্য বেতন দিয়ে একজন লোক রাখি এবং ঋণগ্রহীতাগণ মাসে বেতন বাবদ প্রত্যেক মাসে কিছু টাকা দিতে হয়।এ জন্য কিছু টাকা বেশি নিয়ে থাকি, এটা সূদ হবে কি?


সূদ হবে না ইনশাআল্লাহ। বিবরণ অনুযায়ী সার্ভিস চার্জ প্রয়োজন অনুসারে নিতে পারে। কারণ এটা ঋণের বিনিময়ে লাভ হিসাবে নয়, বরং সংশ্লিষ্ট কর্মীর বেতন হিসাবে গ্রহণ করা হচ্ছে। তবে নিয়তের সামান্য গরমিল হ’লে নেকীর কাজ গুনাহে পরিণত হবে। অতএব এক্ষেত্রে সাবধানতা ও নেক নিয়ত বজায় রাখতে হবে। কোন অবস্থায় ঋণ দিয়ে তাতে লাভ করা যাবে না।

This entry was posted in ঋণ দিয়ে কিস্তিতে কিছু টাকা বেশি নেওয়া যাবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.