আমাদের এলাকায় কুরবানীর গোশত এক-তৃতীয়াংশ পঞ্চায়েতে জমা করার পর সেখান থেকে গরীবদের মাঝে বিতরণ করা হয়। কিন্তু সবসময় দেখা যায় সবাইকে দেওয়ার পর অনেক গোশত বেঁচে যায় এবং পঞ্চায়েত কমিটির সদস্যরা নিজেদের পরিবারের সদস্য সংখ্যা অনুযায়ী নিজেরা ভাগ করে নেন। এভাবে নিজেরা গোশত বণ্টন করে নেওয়া শরী‘আত সম্মত হবে কি?


গরীবদের মাঝে বিতরণের জন্য জমাকৃত গোশত বন্টনের পর অতিরিক্ত গোশত নিজেদের মধ্যে বণ্টন করে নেওয়া জায়েয নয়। কেননা দান করে ফেরত নেওয়াকে রাসূল (ছাঃ) বমি করে পুনরায় তা ভক্ষণ করার সাথে তুলনা করেছেন (বুখারী হা/১৪৯০, মিশকাত হা/১৯৫৪)। এক্ষেত্রে প্রয়োজনে পরিমাণ বৃদ্ধি করে হকদারদের মধ্যে বণ্টন করে দিতে হবে। অথবা অতিরিক্ত অংশ পার্শ্ববর্তী গ্রামের হকদারদের নিকটে পৌঁছে দিতে হবে। তবে পঞ্চায়েতের কোন সদস্য দরিদ্র হ’লে এবং কুরবানী না দিয়ে থাকলে তাকেও এর অংশ দেওয়ায় কোন বাধা নেই (দ্রঃ (৯) গোশত বন্টন)

Advertisements
This entry was posted in কুরবানীর জমাকৃত গোশত নিজেদের মধ্যে বণ্টন করে নেওয়া যাবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.