বিবাহের পর স্ত্রী পড়াশুনা চালিয়ে যেতে চায়। কিন্তু স্বামী তাতে রাযী নয়। এক্ষণে উক্ত স্ত্রীর জন্য করণীয় কি?


বিবাহের পর স্বামীই তার স্ত্রীর মূল অভিভাবক। অতএব স্বামীর ইচ্ছার বিরুদ্ধাচরণ করা জায়েয হবে না। তিনি অন্যায়ভাবে এরূপ করে থাকলে স্ত্রী নিজে বা অন্য কারু মাধ্যমে তাকে বুঝানোর চেষ্টা করবে। কিন্তু কোনক্রমেই তার অবাধ্য হবে না। রাসূল (ছাঃ) জনৈকা মহিলাকে বলেন, স্বামী তোমার জান্নাত ও জাহান্নাম (আহমাদ হা/১৯০২৫, সিলসিলা ছহীহাহ হা/২৬১২)। অন্য হাদীছে এসেছে, স্বামীর অবাধ্যতার কারণে মহিলারা বেশী বেশী জাহান্নামে যাবে (বুখারী হা/১০৫২; মিশকাত হা/১৪৮২)। তবে স্ত্রী দ্বীনী ইলম শিখতে চাইলে স্বামীর উচিত তাতে সহযোগিতা করা। এর দ্বারা স্বামী নিজেও নেকী পাবেন।

Advertisements
This entry was posted in বিবাহের পর স্ত্রী পড়াশুনা চাইলে স্বামী তাতে রাযী না হলে করণীয় কি? and tagged . Bookmark the permalink.