বিবাহের সময় পরিস্থিতির কারণে দুই লাখ টাকা মোহরানায় রাযী হই। কিন্তু তা পরিশোধ করা আমার জন্য অতি কষ্টকর। স্ত্রী সর্বদা বলে, পঞ্চাশ হাযার টাকা পেলেই আমি খুশী। এক্ষণে আমার করণীয় কি? পুরো পাওনা না দিয়ে মারা গেলে কি আমি গোনাহগার হব?


স্ত্রী স্বেচ্ছায় সম্মতি দিলে মোহরানার পরিমাণ কমানো যায়। এমনকি সে চাইলে তার মোহরানার অর্থ স্বামীকে ভোগ করতে দিতে পারে। আল্লাহ বলেন, ‘তোমরা স্ত্রীদেরকে তাদের মোহরানা ফরয হিসাবে প্রদান কর। তবে তারা যদি তা থেকে খুশী মনে তোমাদের কিছু দেয়, তাহ’লে তা তোমরা সন্তুষ্টচিত্তে স্বাচ্ছন্দ্যে ভোগ কর’ (নিসা ৫/৪)। তবে এ সুযোগে তাকে বঞ্চিত করার কুমতলব থাকলে গোনাহগার হ’তে হবে। কারণ আল্লাহ মানুষের মনের খবর রাখেন (আলে ইমরান ৩/১১৯)

This entry was posted in মোহরানা স্ত্রী মাপ করে দিলে মাফ হবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.