অমুসলিম দেশে অমুসলিমদের সাথে কোন মুসলিম ব্যক্তি সূদী লেনদেন করতে পারবে কি? জনৈক আলেম বলেন, এর পক্ষে ছহীহ হাদীছ ও ইমামগণের সম্মতি রয়েছে। একথার সত্যতা আছে কি?


না। কেননা সূদ সর্বাবস্থায় হারাম (বাক্বারাহ ২/২৭৫)। ইবনু কুদামাহ বলেন, সূদ যেমন মুসলিম রাষ্ট্রে হারাম তেমনি অমুসলিম রাষ্ট্রেও হারাম। একথাই বলেছেন ইমাম মালেক, শাফেঈ, আওযাঈ, ইসহাক ও আবু ইউসুফ (রহঃ)’ (আল-মুগনী, মাসআলা নং ২৮৪২ ‘দারুল হারবে সূদ’ অনুচ্ছেদ ৪/৩২)। তবে ইমাম আবু হানীফা ও ইমাম মুহাম্মাদ (রহঃ) বলেছেন যে, অমুসলিম দেশ দারুল হারব হওয়ার কারণে তাদের সম্পদ মুসলমানদের জন্য হালাল। তাই অমুসলিমদের থেকে সূদ গ্রহণে বাধা নেই। তবে তাদেরকে সূদ দেওয়া যাবে না। যার দলীল হিসাবে তারা একটি হাদীছ পেশ করেছেন যেখানে বলা হয়েছে যে, لَا رِبًا بَيْن الْمُسلم وَالْحَرْبِيّ فِي دَار الْحَرْب ‘দারুল হারবে মুসলিম ও হারবীর মধ্যে কোন সূদ নেই’ (ইবনু হাজার, আদ-দিরায়াহ হা/৭৯৮)। বর্ণনাটি মুনকার ও যঈফ (সিলসিলা যঈফাহ হা/৬৫৩৩)। নববী বলেন, বর্ণনাটি মুরসাল ও যঈফ এবং এতে কোন দলীল নেই (আল-মাজমূ‘ ৯/৩৯২)। ইমাম শাফেঈ (রহঃ) বলেন, যা দ্বারা আবু ইউসুফ আবু হানীফার জন্য দলীল গ্রহণ করেছেন তা প্রমাণিত নয়। অতএব তাতে কোন দলীল নেই’ (কিতাবুল উম্ম ৭/৩৭৯)। অতএব সর্বাবস্থায় সূদ থেকে দূরে থাকতে হবে।

Advertisements
This entry was posted in সূদী লেনদেন মুসলিমরা অমুসলিমদের সাথে করতে পারবে কি? and tagged , . Bookmark the permalink.