জনৈক নারী ২০ বছর যাবৎ ফরয ছিয়াম নিয়মিতভাবে আদায় করে আসলেও হায়েয অবস্থায় কোন ছিয়াম পালন করেনি। বর্তমানে এজন্য সে অনুতপ্ত। এক্ষণে তার করণীয় কি?


ঐ নারী আল্লাহর নিকটে অনুতপ্ত হৃদয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করবে এবং উক্ত ছিয়ামগুলির ক্বাযা আদায় করবে। কেননা আয়েশা (রাঃ) বলেন, আমাদেরকে ঋতুকালীন সময়ে ছিয়ামের ক্বাযা আদায়ের নির্দেশ দেওয়া হ’ত। কিন্তু ছালাতের ক্বাযা আদায়ের আদেশ দেওয়া হ’ত না (মুসলিম হা/৩৩৫; মিশকাত হা/২০৩২; ফাতাওয়া লাজনা দায়েমা ১০/১৫১)। গণনায় ভুল হ’লে সর্বোচ্চ ধারণার ভিত্তিতে ক্বাযা আদায় করবে। কেননা আল্লাহ বলেন, ‘তোমরা সাধ্যমত আল্লাহকে ভয় কর’ (তাগাবুন ৬৪/১৬)।  বাধ্যগত  কারণে  অপারগ  হ’লে প্রতিদিনের ফিদইয়া হিসাবে একজন করে মিসকীন খাওয়াবে (বাক্বারাহ ২/১৮৪)। ঐ অবস্থায় মৃত্যুবরণ করলে উত্তরাধিকারীগণ উক্ত ফিদইয়া আদায় করবে। যার পরিমাণ দৈনিক এক মুদ গম (বা চাউল) (বায়হাক্বী হা/৮০০৫, ৪/২৫৪ পৃ., সনদ ছহীহ, যঈফাহ হা/৪৫৫৭-এর আলোচনা, ১০/৬২ পৃ.)। যদি পরিত্যক্ত সম্পদের এক তৃতীয়াংশে উক্ত ফিদইয়ার সংকুলান হয়। নইলে মাফ (মির‘আত হা/২০৫৪-এর ব্যাখ্যা, ৭/৩২ পৃ.)

Advertisements
This entry was posted in হায়েযের ক্বাযা ছিয়াম পালন করতে হবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.