কোন ছেলে যদি কোন অসহায় মেয়েকে ‘ধর্ম বোন’ বানায় এবং নিজের বোনের মত তাকে দেখাশোনা করে, তবে সেটি জায়েয হবে কি?


ইসলামে ধর্ম ভাই-বোন বা ধর্ম বাপ-মা বলে কিছু নেই। জাহেলী যুগে এরূপ রেওয়াজ ছিল। এমনকি রাসূল (ছাঃ)-এর পালক পুত্র যায়েদকে তাঁর দিকে সম্বন্ধ করে বলা হ’ত যায়েদ বিন মুহাম্মাদ। এর প্রতিবাদে আল্লাহ বলেন, ‘আর তিনি তোমাদের পোষ্যদেরকে তোমাদের পুত্র করেননি। ….তোমরা তাদেরকে তাদের পিতৃ-পরিচয়ে ডাক; আল্লাহর কাছে এটাই সর্বাধিক ইনছাফপূর্ণ’ (আহযাব ৩৩/৪-৫)। আর ‘ধর্ম বোন’ বানানোর তো প্রশ্নই আসে না। কারণ গায়ের মাহরামের সাথে একান্ত প্রয়োজন ব্যতীত কথা বলা হারাম (আহযাব ৩৩/৩২)। এরূপ অবস্থায় তাকে তার মাহরামের মাধ্যমে দেখাশুনা করা যেতে পারে।

Advertisements
This entry was posted in ধর্ম বোন বানানো যাবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.