ইমাম ইবনু তায়মিয়াহ (রহঃ) এত বড় মুহাদ্দিছ হওয়া সত্ত্বেও তার গ্রন্থে যঈফ হাদীছ কেন?


এর কারণ কয়েকটি হ’তে পারে- ১. ইবনু তায়মিয়াহ (রহঃ) যঈফ ও জাল বর্ণনাগুলো উল্লেখ করার সময় ويُذْكَرُ (বলা হয়) শব্দ দ্বারা বর্ণনাটির দুর্বলতার প্রতি ইঙ্গিত করেছেন। যা প্রমাণ করে যে তিনি কেবল জানানোর জন্য বর্ণনাটি উপস্থাপন করেছেন। ২. কোন কোন ক্ষেত্রে তিনি কোন সিদ্ধান্তে না গিয়ে সনদসহ পেশ করছেন, যাতে পরবর্তী ওলামায়ে কেরাম তাহকীক করে ছহীহ-যঈফ পৃথক করতে পারেন। ৩. কোন মানুষ ভুলের ঊর্ধ্বে নয়। তিনিও নন। তার গবেষণায় যঈফ বা জাল প্রমাণিত না হওয়ায় তিনি তা উল্লেখ করেছেন। ৪. ইবনে তায়মিয়াহর মত শারঈ ইলমের সকল শাখা-প্রশাখায় বিচরণকারী আলেমের পক্ষে এককভাবে তাহকীকের ময়দানে পূর্ণ সময় ব্যয় করা সম্ভব হয়নি। সেকারণ অনেক ক্ষেত্রে তিনি ইমাম তিরমিযী, ইবনু হিববান প্রমুখ মুহাদ্দিছের তাহকীকের উপর নির্ভর করেছেন। ফলে তাঁদের অনিচ্ছাকৃত ভুলগুলি তাঁর রচনাতেও সংকলিত হয়েছে (বিস্তারিত দ্রঃ আল-কালিমুত তাইয়েব, তাহকীক আলবানী পৃঃ ৫০-৫২)

Advertisements
This entry was posted in ইমাম ইবনু তায়মিয়াহ (রহঃ) মুহাদ্দিছ হওয়া সত্ত্বেও তার গ্রন্থে যঈফ হাদীছ কেন? and tagged . Bookmark the permalink.