গরুর গোশত খাওয়াতে শারীরিক কোন ক্ষতি রয়েছে কি? এ ব্যাপারে শরী‘আতের নির্দেশনা জানাবেন।


গরুর গোশত খাওয়াতে যেমন উপকারিতা রয়েছে, তেমনি কিছু স্বাস্থ্যগত ক্ষতিও রয়েছে। ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, এ্যালার্জি, এ্যাজমা, হাই-প্রেসার ইত্যাদি দুরারোগ্য ব্যাধিতে ডাক্তাররা বিশেষত গরুর গোশত খেতে নিষেধ করেন।  রাসূল (ছাঃ) থেকে গরুর গোশতের ক্ষতি সম্পর্কে বেশ কিছু হাদীছ বর্ণিত হয়েছে। যেমন তিনি বলেন, গরুর দুধে সুস্থতা রয়েছে, ঘিতে নিরাময় রয়েছে এবং গোশতে ব্যাধি রয়েছে (সিলসিলা ছহীহাহ হা/১৫৩৩)। উল্লেখ্য যে, গরুর গোশতে অপকারিতা থাকা সত্ত্বেও হালাল খাদ্য হিসাবে তা ভক্ষণ করতে বাধা নেই। রাসূল (ছাঃ) বিদায় হজ্জের সময় গরু দ্বারা তাঁর স্ত্রীদের পক্ষ থেকে কুরবানী করেছিলেন (বুখারী হা/২৯৪; মুসলিম হা/১২১১)। আলবানী বলেন, গরুর গোশতে ব্যাধি রয়েছে এর অর্থ হল অধিকহারে খাওয়ার মধ্যে ব্যাধি রয়েছে। সীমিত খেলে ক্ষতি নেই (সিলসিলাতুল হুদা ওয়ান নূর, টেপ নং ৩৮৯)। হাদীছগুলির উদ্দেশ্য হ’ল খাদ্যবস্ত্তর মূল বৈশিষ্ট্য নির্দেশ করা। এছাড়া উপকার ও ক্ষতি নির্ভর করে খাদ্যগ্রহণকারীর অবস্থার উপরে। যেমন লো-প্রেসারে গরুর গোশত উপকারী। আমাশয়ে ঘি ও দুধ ক্ষতিকর। আর যেকোন খাদ্য অতিরিক্ত খেলে তা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হয়।

This entry was posted in গরুর গোশত খাওয়াতে শারীরিক কোন ক্ষতি রয়েছে কি? and tagged , . Bookmark the permalink.