সম্প্রতি আমার স্বামী মারা গেছেন। কিন্তু কয়েকটি সন্তানের মা ও পরিবারের সকল কাজের দায়িত্বশীল হওয়ায় এবং স্বামী মৃত্যুর পর পরিবারের সার্বিক ব্যবস্থাপনা করতে বাধ্য হওয়ায় ইদ্দত পালন করার সুযোগ হয়নি। এক্ষণে তার মৃত্যুর চারমাস পর ইদ্দত শুরু করা যাবে কি?


ইদ্দত পালন মূলতঃ স্ত্রীর পক্ষ থেকে স্বামীর জন্য শোক পালন। আর এর সময়সীমা হ’ল, স্বামীর মৃত্যুর দিন থেকে চার মাস দশ দিন পর্যন্ত। আর এটা স্বামীর গৃহে থেকেই করতে হয়। এই সময়সীমা পার হয়ে গেলে আর ইদ্দত নেই। তবে সঠিক নিয়মে ইদ্দতের বিধান পালন না করায় প্রশ্নকারীনী গোনাহগার হবে। যদিও এজন্য কাযা বা কাফ্ফারা আদায় করতে হবে না। বরং আল্লাহর কাছে এই ভুলের জন্য ক্ষমা চাইতে হবে (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমা ১/২০/৪১৮)। উল্লেখ্য যে, ইদ্দতপালনকারী পরিবারের কর্ত্রী তার প্রয়োজনীয় কাজ করার জন্য বাইরে যেতে পারবে। যেমন কর্মস্থলে যাওয়া, বৃক্ষ পরিচর্যা করা, চিকিৎসার জন্য বাইরে যাওয়া ইত্যাদি। বিকল্প পথ না থাকলে ইদ্দত পালনকারী প্রয়োজন মাফিক করতে পারবেন। এগুলি ইদ্দতের ক্ষতি করে না’ (মুসলিম হা/১৪৮৩; মিশকাত হা/৩৩২৭; ইবনু তায়মিয়াহ, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ৩৪/২৭-২৯)

This entry was posted in ইদ্দত পালন করার সময় না পেলে মৃত্যুর চারমাস পর শুরু করা যাবে কি? and tagged , . Bookmark the permalink.