আমার পিতা মৃত্যুর পূর্বে একটি সম্পদ ব্যতীত সকল সম্পদ বণ্টন করে দেন। কিন্তু পরে বুঝতে পারেন যে, আমাকে কিছু অংশ বেশী দেওয়া হয়েছে। সেজন্য তিনি আমাকে অছিয়ত করেন যে, যে অংশটুকু বণ্টন হয়নি তা থেকে তুমি কিছুই গ্রহণ করবে না। কিন্তু আমার নিকট যা বেশী আছে তা অবণ্টিত সম্পত্তিতে পাওনা সম্পদের সমান নয়। এক্ষণে আমার পিতার অছিয়ত পূরণ করা কি আমার জন্য আবশ্যক? আমার করণীয় জানতে চাই।


সম্পদের ব্যাপারে পিতার পক্ষ থেকে সন্তানের জন্য অছিয়ত কার্যকরী নয়। কারণ সন্তান পিতার সম্পদের উত্তরাধিকারী। আর রাসূল (ছাঃ) বলেন, আল্লাহ তা‘আলা প্রত্যেক হকদারের জন্য তার হক নির্দিষ্ট করে দিয়েছেন। অতএব ওয়ারিছের জন্য কোন অছিয়ত নেই’ (আবূদাঊদ, ইবনু মাজাহ প্রভৃতি, ছহীহুল জামে‘ হা/১৭৮৯; মিশকাত হা/৩০৭৩ ‘ফারায়েয’ অধ্যায় ‘অছিয়ত’ অনুচ্ছেদ)। তবে ওয়ারিছ ব্যতীত অন্য কারো জন্য অছিয়ত করলে সম্পদের এক- তৃতীয়াংশ পর্যন্ত পূরণ করা যাবে (বুখারী হা/২৭৪২; মুসলিম হা/১৬২৮; মিশকাত হা/৩০৭১)। এক্ষণে অবণ্টিত সম্পদ থেকে শরী‘আত মোতাবেক যদি প্রশ্নকর্তার কিছু প্রাপ্য থাকে তবে তিনি অন্য শরীকদের সাথে সমঝোতার ভিত্তিতে নির্ধারিত অংশটি বুঝে নিতে পারবেন। কেননা মীরাছের বণ্টননীতি আল্লাহ কর্তৃক নির্ধারিত (নিসা ৪/১১)

This entry was posted in সম্পদের ক্ষেত্রে পিতার অছিয়ত মানা যাবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.