কবরে লাশ নামানোর জন্য কি এমন ব্যক্তি হওয়া যরূরী যে পূর্বরাতে স্ত্রী মিলন করেনি? যদি তাই হয় তবে এর পিছনে হেকমত কি?


এমন ব্যক্তি হওয়া যরূরী নয়, তবে উত্তম। আনাস ইবনে মালেক (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) তাঁর কন্যার কবরের পার্শ্বে উপস্থিত হন। তিনি সেখানে বসেন। আমি দেখতে পেলাম, তাঁর চোখ হ’তে অশ্রু ঝরছে। অতঃপর রাসূল (ছাঃ) বললেন, তোমাদের মধ্যে এমন কেউ কি আছে, যে গত রাতে স্ত্রীর নিকটবর্তী হওনি? আবু তালহা (রাঃ) বললেন, আমি। রাসূল (ছাঃ) তাকে বললেন, তুমি কবরে নামো। অতঃপর রাসূল (ছাঃ)-এর নির্দেশে আবু তালহা (রাঃ) কবরে নামলেন’ (বুখারী হা/১২৮৫; মিশকাত হা/৭১৫)। এর ব্যাখ্যায় শায়খ উছায়মীন বলেন, আমার জানা নেই যে, কোন আলেম বলেছেন, পূর্বরাতে স্ত্রী সহবাসকারীদের জন্য কবরে নামা নিষিদ্ধ। বরং হাদীছে উত্তম বলা হয়েছে (লিক্বাউল বাবিল মাফতুহ ৭৭/২১)। এর হিকমত আল্লাহই ভালো জানেন। তবে কেউ কেউ বলেন, স্ত্রী সহবাসকারীর মনে শয়তান রাতের অবস্থাগুলো স্মরণ করিয়ে দিবে। ফলে এতে মানসিক পবিত্রতার ঘাটতি হ’তে পারে (ফাৎহুল বারী ৩/১৫৯; মির‘আত হা/১৭২৯-এর ব্যাখ্যা; নায়লুল আওতার ৪/১০৬; ইবনু হাজার হায়তামী, তোহফাতুল মুহতাজ ৩/১৬৯)

This entry was posted in কবরে লাশ নামানোর জন্য কেমন ব্যক্তির প্রয়োজন? and tagged , . Bookmark the permalink.