আমাদের মসজিদের ইমাম এক মেয়েকে তার পিতার অনুমতি ছাড়াই তার বোনের বাড়ীতে কিছু দিন রেখে বিয়ে করে। তার বিয়ে কি সিদ্ধ হয়েছে? না হ’লে করণীয় কি? তার সন্তানরা কি হালাল সন্তান হবে নাকি জারজ হবে?


উক্ত বিবাহ সঠিক হয়নি।  কারণ পিতার অসম্মতিতে মেয়ের বিবাহ বৈধ নয়। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘কোন মহিলা যদি অলীর বিনা অনুমতিতে বিবাহ করে তাহ’লে তার ঐ বিবাহ বাতিল, বাতিল, বাতিল’ (আহমাদ, তিরমিযী, আবুদাউদ, ইবনে মাজাহ, সনদ ছহীহ, মিশকাত হা/৩১৩১ ও ৩১৩০ ‘বিবাহে অলীর কাছে মহিলাদের অনুমতি প্রার্থনা’ অনুচ্ছেদ)। নবী করীম (ছাঃ) আরো বলেন, ‘কোন মহিলা কোন মহিলার বিয়ে দিতে পারবে না এবং কোন মহিলা নিজেকে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ করতে পারবে না’ (ইবনু মাজাহ, হাদীছ ছহীহ, মিশকাত হা/৩১৩৬; ইরওয়া হা/৮৪১)। এক্ষণে তওবা করে নতুনভাবে শারঈ পদ্ধতি মোতাবেক পিতার সম্মতিতে বিবাহ পড়িয়ে নিতে হবে। তবে তার সন্তান জারজ হবে না এবং সেই সন্তান পিতার সম্পত্তির অংশীদার হবে। কেননা এই বিবাহ সঠিক পদ্ধতিতে না হ’লেও ‘শিবহে নিকাহ’ বা বিবাহের অনুরূপ ছিল (ইবনু তায়মিয়াহ, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ৩২/১০৩; ইবনু কুদামাহ, আল-মুগনী ১১/১৯৬)

This entry was posted in অভিভাবক ছাড়া বিবাহ করলে বিবাহ সম্পন্ন হবে কি? and tagged , , . Bookmark the permalink.