সন্তানের নাম ইয়াস, আয়াস বা আইয়াশ হাসান রাখা যাবে কি?


কেবল ইয়াস (إياس) বা আয়াস নাম রাখায় কোন দোষ নেই। ‘হাসান’ যোগ করা ঠিক নয়। একাধিক ছাহাবীর নাম ‘ইয়াস’ ছিল। যদিও এর অর্থ ‘হতাশা বা নৈরাশ্য’ (বুখারী হা/৩৯৯১; আবুদাউদ হা/২১৪৬; হাকেম হা/৫৯০১)। অনুরূপভাবে আইয়াশ নাম রাখাতেও কোন বাধা নেই। কারণ আইয়াশ নামেও ছাহাবী ও তাবেঈগণের নাম ছিল। যেমন আইয়াশ বিন আবী রাবী‘আ ও আইয়াশ বিন ওক্ববাহ প্রভৃতি (বুখারী হা/১০০৬; মুসলিম হা/৬৭৫,১৫৩৬)। আইয়াশ ((عَيَّاشَ অর্থ- অধিক আরাম প্রিয়, অতি সুখী জীবন যাপনকারী, রুটি প্রস্ত্ততকারী, রুটি বিক্রেতা ইত্যাদি।

This entry was posted in সন্তানের নাম ইয়াস আয়াস বা আইয়াশ হাসান রাখা যাবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.