জনৈক ব্যক্তি বলেন, আব্দুল্লাহ ইবনু ‘আমর (রাঃ) ইফতারের সময় তার সন্তানদের সাথে নিয়ে মুনাজাত করতেন। এর সত্যতা আছে কি?


আব্দুল্লাহ ইবনু ‘আমর ইফতারের সময় পরিবার-পরিজন ও সন্তানদের ডেকে দো‘আ করতেন’ মর্মে বর্ণিত হাদীছটি যঈফ (বায়হাক্বী, শু‘আবুল ঈমান হা/৩৯০৭; মুসনাদে ত্বায়ালেসী হা/৬২৬২; ইরওয়া ৪/৪৪)। এছাড়া ‘ইফতারের সময় দো‘আ ফিরিয়ে দেওয়া হয় না’ মর্মে বর্ণিত হাদীছটি যঈফ (ইবনু মাজাহ হা/১৭৫৩; যঈফাহ হা/৪৩২)। তাছাড়া উক্ত হাদীছে হাত তুলে জামা‘আতবদ্ধ দো‘আর কথা বলা হয়নি। বরং ছায়েমের প্রতিটি মুহূর্তই গুরুত্বপূর্ণ। ছিয়ামের অবস্থায় তার দো‘আ যে কোন সময় কবুল হয় (নববী, আল- মাজমূ‘ ৬/৩৭৫)। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘তিন ধরনের লোকের দো‘আ কখনও ফিরিয়ে দেয়া হয় না। ছায়েম যতক্ষণ ইফতার না করে… (ইবনু মাজাহ হা/১৭৫২; ছহীহাহ হা/১৭৯৭)

সুতরাং কেবলমাত্র ইফতারের সময়ই নয়, বরং ছিয়াম অবস্থায় সর্বদাই দো‘আ কবুল হওয়ার যোর সম্ভাবনা রয়েছে। আর এটাই হাদীছ সম্মত।

This entry was posted in ইফতারের সময় সন্তানদের নিয়ে মুনাজাত করা কি? and tagged , . Bookmark the permalink.