বর্তমান বিশ্বে স্বর্ণ এবং রৌপ্যের মুল্যে ব্যাপক ব্যবধান পরিলক্ষিত হয়। এক্ষণে কিসের উপর ভিত্তি করে নগদ অর্থের যাকাত দিতে হবে?


রাসূল (ছাঃ)-এর যুগে সাড়ে সাত ভরি স্বর্ণ এবং সাড়ে বায়ান্ন ভরি রৌপ্যের মূল্য সমান ছিল। কিন্তু বর্তমানে উভয়ের মাঝে ব্যবধান কয়েকগুণ। অর্থাৎ রৌপ্যের মূল্যে ব্যাপক অবনমন ঘটেছে। ফলে আধুনিক যুগে বিদ্বানগণ স্বর্ণের মূল্যমান রৌপ্য অপেক্ষা স্থিতিশীল এবং বিশ্বব্যাপী গ্রহণযোগ্য হওয়ায় স্বর্ণের হিসাব অনুযায়ী নগদ অর্থের যাকাত দেওয়ার পক্ষে মতপ্রকাশ করেছেন (ইউসুফ ক্বারযাভী,  ইসলামের যাকাত বিধান, ১/২৫২-৫৩ পৃ.)। তবে কেউ চাইলে গরীবের অধিকতর কল্যাণার্থে রৌপ্যের হিসাবে যাকাত প্রদান করতে পারে (মাজমু‘ ফাতাওয়া ইবনুল বায, ১৪/১২৫ পৃ.

This entry was posted in যাকাত কিসের উপর ভিত্তি করে নগদ অর্থের দিতে হবে? and tagged . Bookmark the permalink.