আমার মা তার পিতার সম্পত্তি হ’তে বেশ কিছু জমি পেয়েছিলেন। কিন্তু আমার পিতা তা বিক্রয় করে ভোগ করে ফেলেছেন। কথা দিয়েছিলেন মাকে তার সম্পত্তি হ’তে কিছু লিখে দিবেন। কিন্তু পরে দেননি। বরং আমার মায়ের সম্মতিতে তার প্রাপ্য পুরো সম্পত্তি তিন মেয়ের নামে লিখে দেন। আমার চাচাতো ভাইয়েরা জীবিত আছেন। এক্ষণে আমার পিতার কর্মের বৈধতা জানতে চাই।


সম্পত্তি বণ্টন ইসলামী বিধান মোতাবেক হতে হবে। যেহেতু ইসলামে মীরাছ বণ্টনের বিধান মৃত্যুর পর, অতএব প্রশ্নোল্লেখিত ক্ষেত্রে স্বামী কর্তৃক স্ত্রীর প্রাপ্য স্থাবর সম্পত্তি তার মেয়েদের নামে লিখে দেয়া বৈধ হয়নি; যদিও তা স্ত্রীর সম্মতিতে হয়েছে। এক্ষণে স্বামীর কর্তব্য হ’ল, প্রথমে তার স্ত্রীর ঋণ পরিশোধ করা। অতঃপর স্ত্রীর মৃত্যুর পর নিয়ম মাফিক তার কন্যাগণ ও অন্য অংশীদারগণ তাদের স্ব স্ব প্রাপ্য বুঝে নিবেন (ফাতাওয়া ইবনু হাজার হায়তামী ৫/৪৪)। উল্লেখ্য যে, পিতা তার কন্যাদের সমানহারে প্রয়োজন মাফিক কিছু দান করতে পারেন। যেমন তিন বোনকে তিনটি বাড়ি করে দেওয়া ইত্যাদি। তবে অন্য শরীকদের ফাঁকি দেওয়ার উদ্দেশ্যে তা করা যাবে না (বুখারী হা/২৫৮৬; মুসলিম হা/১৬২৩; মিশকাত হা/৩০১৯)

This entry was posted in সম্পদ মেয়ের নামে লিখে দেওয়া যাবে কি? and tagged . Bookmark the permalink.