চুলে কালো রং করা কি হারাম? একটি গ্রন্থে লেখা হয়েছে হাসান-হোসাইন (রাঃ) সহ বেশ কয়েকজন ছাহাবী কালো খেযাব লাগাতেন। এক্ষণে বর্তমানে আমার বয়স মাত্র ২৫ বছর। কিন্তু হরমন বা শারীরিক কোন কারণে চুল প্রায় সবই সাদা হয়ে গেছে। এমতবস্থায় আমার জন্য চুলে কালো রং করা বা কলপ লাগানো জায়েয হবে কি?


বর্তমানে উষ্ণ আবহাওয়ার কারণে অপ্রাপ্ত বয়সেও চুল পেকে যাচ্ছে। এর জন্য চিকিৎসা নেওয়া যেতে পারে। কিন্তু কালো রং দ্বারা কলপ করা যাবে না। কারণ রাসূল (ছাঃ) এ বিষয়ে সতর্ক করে বলেন, ‘শেষ যামানায় একদল লোকের আবির্ভাব হবে যারা কবুতরের বক্ষের ন্যায় কাল খেযাব ব্যবহার করবে। তারা জান্নাতের সুগন্ধিও পাবে না’ (আবুদাঊদ, নাসাঈ, সনদ ছহীহ, মিশকাত হা/৪৪৫২, ‘চুল আঁচড়ানো অনুচ্ছেদ)। ইবনু মাজাহ্তে স্ত্রীকে সন্তুষ্ট করা এবং শত্রুর হৃদয়ে ভীতি সঞ্চার করার জন্য কালো খেযাব ব্যবহার করা সম্পর্কে বর্ণিত হাদীছটি ‘মুনকার’ ও ‘যঈফ’ (যঈফ ইবনু মাজাহ হা/৭২৯; সিলসিলা যঈফা হা/২৯৭২)। এছাড়া ওমর, আলী, হাসান, হুসাইন, সা‘দ বিন আবী ওয়াক্কাছ, ওছমান, মুগীরা বিন শু‘বা প্রমুখ কালো কলপ ব্যবহার করতেন মর্মে যেসকল বর্ণনা এসেছে তার সবগুলো যঈফ ও মুনকার (হাফেয ইবনুল ক্বাইয়িম, তাহযীবুস সুনান ২/২৮৪)। প্রখ্যাত তাবেঈ আত্বা বলেন,  ‘আমি রাসূল (ছাঃ)-এর কোন ছাহাবীকে কালো কলপ লাগাতে দেখিনি। বরং তারা হলুদ মেহদী দ্বারা খেযাব লাগাতেন (মুছান্নাফ ইবনু আবী শায়বাহ হা/২৫৫২৪)

Advertisements
This entry was posted in চুলে কালো রং করা কি হারাম? and tagged . Bookmark the permalink.