‘যে গোত্রের মধ্যে আত্মীয়তার সম্পর্ক ছিন্নকারী রয়েছে সেই গোত্রে রহমত নাযিল হয় না’-মর্মে বর্ণিত হাদীছটির বিশুদ্ধতা জানতে চাই।


উক্ত মর্মে বর্ণিত হাদীছটি যঈফ (আলবানী, যঈফাহ হা/১৪৫৬)। তবে আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষার গুরুত্ব সম্পর্কে বহু হাদীছ বর্ণিত হয়েছে। যেমন আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষা করলে জীবন ও জীবিকায় বরকত হয় (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/৪৯১৮)। আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষা করা ঈমানের বহিঃপ্রকাশ (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/৪২৪৩)। আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষা করা জান্নাতে যাওয়ার মাধ্যম (বুখারী হা/৪৯; মুসলিম হা/১৩)। আত্মীয়তার সম্পর্ক রক্ষায় দ্রুত ছওয়াব লাভ  হয় (ইবনু হিববান হা/৪৪০; ছহীহাহ হা/৯৭৮)। আত্মীয়তার সম্পর্ক ছিন্নকারী জান্নাতে প্রবেশ করবে না (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/৪৯২২)। আত্মীয়তার সম্পর্ক ছিন্নকারী দুনিয়া ও আখেরাতে শাস্তি প্রাপ্ত হবে (আবূদাঊদ হা/৪৯০২; ছহীহাহ হা/৯১৮) ইত্যাদি।

This entry was posted in আত্মীয়তার সম্পর্ক ছিন্নকারী গোত্রে রহমত নাযিল হয় না কি? and tagged . Bookmark the permalink.