জনৈক ব্যক্তি নিয়মিত সিগারেট খায় এবং পাঁচ ওয়াক্ত ছালাতও আদায় করে। তার ছালাত কবুল হয় কি? যদি না হয়, তবে সিগারেট ছাড়ার আগ পর্যন্ত ছালাত থেকে বিরত থাকাই উত্তম হবে কি?


কোন মুসলমানের জন্য কোন অবস্থাতেই ছালাত থেকে বিরত থাকার সুযোগ নেই (নিসা ১০৩)। প্রশ্নোল্লেখিত ব্যক্তির ছালাত আদায়ে তার ছালাতের ফরযিয়াত আদায় হয়ে যাবে। তবে হারাম খাদ্য খাওয়ার কারণে সে গুনাহগার হবে (শায়খ বিন বায, ফাতাওয়া নূরুন আলাদ দারব)। রাসূল (ছাঃ) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি এই দুর্গন্ধযুক্ত গাছ থেকে খাবে (অর্থাৎ কাঁচা পেঁয়াজ, রসুন ইত্যাদি) সে যেন আমাদের মসজিদের নিকটবর্তী না হয়। নিশ্চয়ই যার দ্বারা মানুষ কষ্ট পায় তার দ্বারা ফেরেশতারাও কষ্ট পায়’ (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/৭০৭, ‘মসজিদ ও ছালাতের স্থান সমূহ’ অনুচ্ছেদ)। সিগারেটে পেঁয়াজ ও রসুন অপেক্ষা মারাত্মক দুর্গন্ধ রয়েছে। এর ধোঁয়ায় রয়েছে নিকোটিন বিষ। যা মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য চূড়ান্ত ক্ষতিকর। অধিকন্তু বিড়ি-সিগারেট, তামাক-জর্দা-গুল ইত্যাদি মাদকদ্রব্যের অন্তর্ভুক্ত, যা খাওয়া বা ব্যবহার করা সর্বাবস্থায় নিষিদ্ধ। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, ‘মাদকতা আনয়নকারী প্রত্যেক বস্ত্তই মদ এবং প্রতিটি মাদকদ্রব্য হারাম’ (মুসলিম হা/২০০৩; মিশকাত হা/৩৬৩৮)। তিনি বলেন, যে বস্ত্তর বেশী পরিমাণে মাদকতা আসে, তার কম পরিমাণও হারাম’ (তিরমিযী হা/১৮৬৫; ইবনু মাজাহ, মিশকাত হা/৩৬৪৫, সনদ ছহীহ )

This entry was posted in সিগারেট খাওয়া থেকে বিরত হওয়া পর্যন্ত ছালাত থেকে বিরত থাকা যাবে কি? and tagged , . Bookmark the permalink.