আমি একজন ব্যবসায়ী। শারঈ বিধান অনুযায়ী আমি প্রতিটি পণ্যে কতভাগ লাভ করতে পারি?


ক্রেতা-বিক্রেতা কাউকে ধোঁকায় ফেলার উদ্দেশ্য না রেখে উভয়ের সন্তুষ্টিতে বাযার দর অনুযায়ী যেকোন মূল্যে ক্রয়-বিক্রয় করতে পারে। এটা শরী‘আত সম্মত। উরওয়া আল-বারেকী হ’তে বর্ণিত হয়েছে যে, নবী করীম (ছাঃ) একটি কুরবানীর পশু বা ছাগল কেনার জন্য তাকে একটা দীনার দিয়েছিলেন। উক্ত ছাহাবী তা দিয়ে দু’টি ছাগল খরিদ করেন। তারপর এক দীনারের বিনিময়ে একটি ছাগল বিক্রয় করে দিয়ে একটি ছাগল ও একটি দীনার নিয়ে রাসূলুল্লাহ (ছাঃ)-এর নিকটে উপস্থিত হন। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) তার উপর সন্তুষ্ট হয়ে তার ব্যবসায়ে বরকতের দো‘আ করেন। এরপর থেকে সে মাটি কিনলেও তাতে লাভবান হ’ত (বুখারী হা/৩৬৪২; মিশকাত হা/২৯৩২)। আল্লাহ বলেন, ‘হে ঈমানদারগণ! তোমরা একে অপরের সম্পদ অন্যায়ভাবে গ্রাস করো না। তবে তোমাদের পরস্পরের সম্মতিতে যে ব্যবসা করা হয়, তা বৈধ’ (নিসা ৪/২৯)

This entry was posted in ব্যবসায়ী শারঈ বিধান অনুযায়ী কতভাগ লাভ করতে পারে? and tagged . Bookmark the permalink.