Tag Archives: ইহরাম

কোন মহিলা দেশ থেকে ওমরার জন্য ইহরাম বাঁধার পর মক্কায় পৌঁছার পূর্বে ঋতুবতী হ’লে সে কি ইহরাম ভঙ্গ করবে? এমতাবস্থায় সে কি তানঈম বা আয়েশা মসজিদ থেকে ওমরার জন্য পুনরায় ইহরাম বাঁধবে?


এমতাবস্থায় ইহরাম ভঙ্গ করার কোন প্রয়োজন নেই। বরং ইহরাম অবস্থায় থাকবে এবং ছালাত ও তাওয়াফ ব্যতীত অবশিষ্ট কাজগুলি সম্পন্ন করবে। এ সময় পোষাক পরিবর্তনেও কোন দোষ নেই। ঋতু থেকে পবিত্র হওয়ার পর তাওয়াফ করবে ও মাতাফে দু’রাক‘আত ছালাত আদায় করবে (ইবনু … Continue reading

Posted in ওমরার জন্য ইহরাম বাঁধার পর মক্কায় পৌঁছার পূর্বে ঋতুবতী হ’লে করণীয় কি? | Tagged

হজ্জে ইফরাদকারীরা ৮ই যিলহজ্জের পূর্বে ইহরাম বাঁধলে ৮ই যিলহজ্জে কি তার জন্য পুনরায় ইহরাম বাঁধা আবশ্যক হবে?


পূর্বে ইহরাম বাঁধলে পরে আর বাঁধতে হবে না। সুন্নাত হ’ল ৮ই যিলহজ্জ যোহরের পূর্বে ইহরাম বেঁধে মিনায় গিয়ে পাঁচ ওয়াক্ত ছালাত আদায় করা (শায়খ বিন বায, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ১৭/২৫১)। উল্লেখ্য যে, ইহরামের কাপড় পরিবর্তন করা যায় (লাজনা দায়েমাহ, প্রশ্নোত্তর নং ৯৭৭৩)।

Posted in ইহরাম পূর্বে বাঁধলে ৮ই যিলহজ্জে আবার বাঁধা আবশ্যক হবে? | Tagged ,

ইহরাম অবস্থায় অধিক হাটহাটির ফলে দুই উরুতে ক্ষতের সৃষ্টি হ’লে তাতে ক্রিম ব্যবহার করা যাবে কি?


চিকিৎসার জন্য উক্ত ক্রিম ব্যবহার করা যাবে, যদিও তাতে সুগন্ধি থাকে। কারণ এর দ্বারা সুগন্ধি ব্যবহার করা উদ্দেশ্য নয়। আর ইহরাম অবস্থায় অসুস্থ হ’লে যেকোন বৈধ পন্থায় চিকিৎসা গ্রহণ করতে বাধা নেই (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমা ১০/১৫৭; উছায়মীন, আশ-শারহুল মুমতে‘ ৭/১৫৮)।

Posted in ইহরাম অবস্থায় ক্ষতের সৃষ্টি হ’লে তাতে ক্রিম ব্যবহার করা যাবে কি? | Tagged , ,

আমি জেদ্দা শহরে থাকি। আমার বাসা থেকে ওমরাহর নিয়তে ইহরাম বাধা যাবে কি?


জেদ্দাবাসীরা নিজ বাসস্থান থেকেই ইহরাম বাঁধতে পারবে। কেননা জেদ্দা শহর ইয়ালামলাম মীক্বাতের অন্তর্ভুক্ত। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, মীক্বাতের অভ্যন্তরভাগের অধিবাসীরা  সেখান থেকে ইহ্রাম বাঁধবে। আর মক্কাবাসীরা মক্কা থেকেই ইহ্রাম বাঁধবে’ (বুখারী হা/১৫২৪; মিশকাত হা/২৫১৬)।

Posted in ইহরাম বাসা থেকে ওমরাহর নিয়তে বাধা যাবে কি? | Tagged ,