Tag Archives: খাবার.

আমাদের অফিসে হিন্দু বাবুর্চি রান্না করে। তাদের হাতের রান্না খাওয়া যাবে কি ?


অমুসলিমের রান্না করা খাবার খাওয়ায় কোন বাধা নেই (বুখারী হা/৩৪৪; মুসলিম হা/২৪৯১; আবুদাউদ হা/৪৫১০; মিশকাত হা/৫৮৮৪, ৫৮৯৫, ৫৯৩১)। তবে তাদের যবহকৃত পশুর গোশত খাওয়া যাবে না (আন‘আম ৬/১২১)। এক্ষেত্রে কোন মুসলিম বিসমিল্লাহ বলে যবেহ করে দিলে এবং তারা রান্না করলে তা খাওয়ায় বাধা … Continue reading

Posted in অমুসলিম থেকে গরুর গোশত কিনে খাওয়া কি বৈধ হবে?, অমুসলিম পিতা-মাতার রান্নাকৃত খাবার খাওয়া যাবে কি?, অমুসলিম বন্ধুদের শূকরের গোশত দাওয়াত দিয়ে খাওয়ানো যাবে কি?, অমুসলিমদের তৈরী বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য ব্যবহার করা জায়েয হবে কি?, অমুসলিমদের বানানো মিষ্টি, অমুসলিমদের যবেহকৃত পশুর গোশত খাওয়া জায়েয হবে কি?, অমুসলিমের ইফতারী খাওয়া জায়েয হবে কি?, অমুসলিমের রান্না খাওয়া যাবে কি? | Tagged ,

গরুর গোশত খাওয়াতে শারীরিক কোন ক্ষতি রয়েছে কি? এ ব্যাপারে শরী‘আতের নির্দেশনা জানাবেন।


গরুর গোশত খাওয়াতে যেমন উপকারিতা রয়েছে, তেমনি কিছু স্বাস্থ্যগত ক্ষতিও রয়েছে। ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, এ্যালার্জি, এ্যাজমা, হাই-প্রেসার ইত্যাদি দুরারোগ্য ব্যাধিতে ডাক্তাররা বিশেষত গরুর গোশত খেতে নিষেধ করেন।  রাসূল (ছাঃ) থেকে গরুর গোশতের ক্ষতি সম্পর্কে বেশ কিছু হাদীছ বর্ণিত হয়েছে। যেমন তিনি … Continue reading

Posted in গরুর গোশত খাওয়াতে শারীরিক কোন ক্ষতি রয়েছে কি? | Tagged ,

আমি নও মুসলিম। ছুটির সময় অমুসলিম পিতা-মাতার সাথে মিলিত হ’লে তাদের রান্নাকৃত খাবার খাওয়া যাবে কি?


অমুসলিম আত্মীয়ের রান্না করা খাদ্য খাওয়া জায়েয। রাসূল (ছাঃ) জনৈক ইহুদীর রান্নাকৃত গোশত খেয়েছিলেন (বুখারী হা/২৬১৭; মুসলিম হা/২১৯০)। রাসূল (ছাঃ) অমুসলিমদের দাওয়াত খেয়েছেন এবং তাদের উপহার গ্রহণ করেছেন (বুখারী হা/২৬১৫-১৮, ‘মুশরিকদের নিকট থেকে হাদিয়া গ্রহণ’ অনুচ্ছেদ, আবুদাঊদ, মিশকাত হা/৫৯৩১)। তাছাড়া জনৈক ইহুদী … Continue reading

Posted in অমুসলিম থেকে গরুর গোশত কিনে খাওয়া কি বৈধ হবে?, অমুসলিম পিতা-মাতা ভাই-বোনের সাথে সম্পর্ক রাখতে পারব কি?, অমুসলিম পিতা-মাতার রান্নাকৃত খাবার খাওয়া যাবে কি?, অমুসলিম বন্ধুদের শূকরের গোশত দাওয়াত দিয়ে খাওয়ানো যাবে কি?, অমুসলিম বন্ধুর বিবাহ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করা যাবে কি? | Tagged , ,

পুরাতন মদের বোতল পরিষ্কার করে তা পানি পানের জন্য ব্যবহার করা যাবে কি?


মদের বোতল ব্যবহার না করাই উত্তম। বাধ্যগত অবস্থায় ব্যবহার করতে হ’লে ভালোভাবে ধৌত করে নিয়ে ব্যবহার করবে। যাতে পাত্রে মদের কোন চিহ্ন বা ক্রিয়া না থাকে। আবু ছা’লাবা খুশানী (রাঃ) থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, একদা তিনি রাসূল (ছাঃ)-কে জিজ্ঞেস করেন … Continue reading

Posted in মদের বোতল পরিষ্কার করে তা পানি পানের জন্য ব্যবহার করা যাবে কি? | Tagged , ,

খাওয়ার সময় সালাম আদান-প্রদান বা প্রয়োজনীয় কথাবার্তা বলা যাবে কি ?


খাওয়ার সময় সালাম বিনিময় বা প্রয়োজনীয় আলাপ করা যায়। যেসব কথা সাধারণ অবস্থায় জায়েয, তা খাদ্য গ্রহণের সময়ও জায়েয। ‘খাদ্যগ্রহণের সময় কোন কথা বা কোন সালাম দেওয়া যাবে না’ মর্মে যেকথা সমাজে প্রচলিত রয়েছে, তার কোন ভিত্তি নেই। রাসূল (ছাঃ) … Continue reading

Posted in খাওয়ার সময় সালাম আদান-প্রদান বা প্রয়োজনীয় কথাবার্তা বলা যাবে কি ?, খাবার সময় সালাম দেওয়া যায় কি? | Tagged , ,

জনৈক বক্তা বলেন, ভাতের পাত্রের মাঝখান থেকে চামচ ঢুকিয়ে ভাত বাড়া যাবে না। বরং যেকোন পাশ থেকে চামচ ঢুকাতে হবে। নইলে বরকত কমে যাবে। একথার কোন সত্যতা আছে কি?


কথাটি ছহীহ হাদীছ দ্বারা প্রমাণিত। রাসূল (ছাঃ) বলেন, তোমাদের কেউ খাওয়ার সময় যেন পাত্রের মাঝখান থেকে না খায়, বরং তার কিনারা থেকে খাওয়া শুরু করে। কেননা পাত্রের মাঝখানে বরকত নাযিল হয় (আবুদাউদ হা/৩৭৭২; তিরমিযী হা/১৮০৫)। অন্য বর্ণনায় রয়েছে, রাসূল (ছাঃ) একদা … Continue reading

Posted in ভাতের পাত্রের মাঝখান থেকে চামচ ঢুকিয়ে ভাত বাড়া যাবে না কথাটি সত্য কি? | Tagged ,

আমি গ্রীসে পুলিশের হেফাযতে শরণার্থী ক্যাম্পে আছি। এখানে মুরগীর গোশত, কাবাব ও অন্যান্য খাবার দেয়, যা খৃষ্টানদের যবেহকৃত। এগুলি খাওয়া যাবে কি?


আহলে কিতাব তথা ইহূদী এবং খৃষ্টানদের যবেহ করা হালাল পশু খাওয়া জায়েয, যদি তারা যবহের সময় আল্লাহর নাম নেয়। আল্লাহ বলেন, ‘আর আহলে কিতাবদের যবেহকৃত পশু তোমাদের জন্য হালাল এবং তোমাদের যবেহকৃত পশু তাদের জন্য হালাল’ (মায়েদাহ ৫/৫)। যবেহের সময় ‘বিসমিল্লাহ’ … Continue reading

Posted in খৃষ্টানদের যবেহকৃত মুরগীর গোশত কাবাব খাওয়া যাবে কি? | Tagged , , ,

আমি ইরাক প্রবাসী। আশূরা উপলক্ষে শী‘আরা বিশেষ খাবার রান্না করে এবং বলে যে, এই খাবার আল্লাহর জন্য, কিন্তু এর ছওয়াব হুসাইন (রাঃ)-এর জন্য। আমি যদি তা না খাই তবে অনেক সমস্যায় পতিত হ’তে হবে। এক্ষণে সেটা খাওয়া কি জায়েয হবে?


আশূরা উপলক্ষে ফেরাঊনের কবল থেকে নাজাতে মূসার শুকরিয়ার নিয়তে দু’দিন নফল ছিয়াম রাখা ব্যতীত আর সকল কর্মই বিদ‘আত। অতএব এ উপলক্ষে শী‘আ বা সুন্নীদের যেকোন অনুষ্ঠান বা খাদ্য ভক্ষণ সবই নাজায়েয (দ্রঃ ‘আশূরায়ে মুহাররম ও আমাদের করণীয়’ পুস্তিকা)। এক্ষণে প্রশ্নমতে যদি … Continue reading

Posted in আশূরা উপলক্ষে কারো কোন খাদ্য খাওয়া যাবে কি? | Tagged , , ,

ক্যাঙ্গারুর গোশত খাওয়া হালাল হবে কি?


ক্যাঙ্গারুর গোশত খাওয়া হালাল। কারণ তা হিংস্র  বা তীক্ষ্ণ দন্ত ও নখর বিশিষ্ট নয়। ‘রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) তীক্ষ্ণ দাঁতবিশিষ্ট হিংস্র জন্তু এবং ধারালো নখ বিশিষ্ট পাখি খেতে নিষেধ করেছেন’ (মুসলিম হা/১৯৩৪; মিশকাত হা/৪১০৫)। আর শরী‘আতের বিধান হ’ল- কোন প্রাণীর গোশত ততক্ষণ হারাম … Continue reading

Posted in ক্যাঙ্গারুর গোশত খাওয়া হালাল হবে কি? | Tagged , ,

একটি ছাগল আমাদের জানা মতে কুকুরের দুধ খেয়ে বড় হয়েছে। এক্ষণে সেটি দিয়ে কুরবানী বা আক্বীক্বা করা যাবে কি?


ছাগল যদি কুকুরে রূপান্তরিত না হয়, তবে তা দিয়ে কুরবানী করায় কোন বাধা নেই। কারণ খানাপিনায় হালাল-হারামের বিধান পশু-পাখির জন্য প্রযোজ্য নয়।

Posted in ছাগল কুকুরের দুধ খেলে সেটি দিয়ে সেটি দিয়ে কুরবানী করা যাবে কি? | Tagged ,

গরুর প্লীহা, কলিজা, ভূড়ি ইত্যাদি খাওয়ায় শরী‘আতে কোন বাধা আছে কি?


এসব খাওয়ায় শরী‘আতে কোন বাধা নেই। রুচি হ’লে যে কোন অঙ্গ খাওয়া যাবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘তোমাদের জন্য দু’টি রক্ত হালাল করা হয়েছে। তা হ’ল কলিজা ও প্লীহা’ (ইবনু মাজাহ হা/৩৩১৪; মিশকাত হা/৪২৩২)। স্মর্তব্য যে, কেউ কেউ মুরগীর কোন কোন অংশকে … Continue reading

Posted in গরুর প্লীহা কলিজা ভূড়ি ইত্যাদি খাওয়ায় শরী‘আতে কোন বাধা আছে কি? | Tagged

রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) আঙ্গুল ও খাদ্যপাত্র চেটে খাওয়া এবং পাত্র হ’তে খাদ্য পড়ে গেলে উঠিয়ে খাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন, এর কারণ কি?


খাদ্যের কোন অংশের মধ্যে বরকত আছে, সেটি আল্লাহই সর্বাধিক অবগত। তবে চেটে খাওয়ার ফলে জিহবা দিয়ে যে লালা বের হয়, তা হযমের সহায়ক। এর দ্বারা দেহে ইনসুলিন বৃদ্ধি পায়, যা ডায়াবেটিস রোগীর জন্য উপকারী। এতদ্ব্যতীত হৃদরোগ, পেটের পীড়া ও মানসিক … Continue reading

Posted in খাদ্যপাত্র চেটে খাওয়া- খাদ্য পড়ে গেলে উঠিয়ে খাওয়া যায় কি? | Tagged

একটি প্লেটে কয়েকজন মিলে ভাত খাওয়ায় কোন বাধা আছে কি?


বাধা নেই। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, আল্লাহর নিকট প্রিয় খাদ্য হ’ল যাতে অনেক হাত অংশগ্রহণ করে। অর্থাৎ যে খাদ্য অনেকে এক সাথে খায় (আবু ইয়া‘লা হা/২০৪৫; ছহীহুল জামে‘ হা/১৭১; ছহীহাহ হা/৮৯৫)। তিনি বলেন, তোমরা একত্রে খাবার গ্রহণ করো। পৃথক হয়ে খাবার গ্রহণ … Continue reading

Posted in খাবার এক প্লেটে সবাই খাওয়া যাবে কি?, ভাত একটি প্লেটে কয়েকজন মিলে খাওয়ায় কোন বাধা আছে কি? | Tagged

আমার রুমমেট হিন্দু হওয়ায় তার রান্না আমাকে খেতে হয়। এটা খাওয়া যাবে কি?


অমুসলিমের রান্না করা খাবার খাওয়ায় কোন বাধা নেই (বুখারী হা/৩৪৪; মুসলিম হা/২৪৯১; আবুদাউদ হা/৪৫১০; মিশকাত হা/৫৮৮৪, ৫৮৯৫, ৫৯৩১)। তবে তাদের যবহকৃত পশুর গোশত খাওয়া যাবে না (আন‘আম ৬/১২১)। এক্ষেত্রে কোন মুসলিম বিসমিল্লাহ বলে যবেহ করে দিলে এবং তারা রান্না করলে তা খাওয়ায় কোন … Continue reading

Posted in অমুসলিম থেকে গরুর গোশত কিনে খাওয়া কি বৈধ হবে?, অমুসলিমদের বানানো মিষ্টি, অমুসলিমদের যবেহকৃত পশুর গোশত খাওয়া জায়েয হবে কি?, অমুসলিমের ইফতারী খাওয়া জায়েয হবে কি?, অমুসলিমের রান্না খাওয়া যাবে কি? | Tagged

রামাযান মাসে দিনের বেলায় কেউ যদি ভুল করে পূর্ণরূপে খাদ্যগ্রহণ করে ফেলে, তাহ’লে সে কি ঐ ছিয়াম পূর্ণ করবে, নাকি পরে তার ক্বাযা আদায় করবে?


ছায়েম ভুল বশতঃ পেট ভরে বা সামান্য পরিমাণে খেয়ে ফেললে ছিয়ামের কোন ক্ষতি হবে না। ফলে পরে তার ক্বাযা আদায় করার কোন প্রয়োজন নেই। আবু হুরায়রা (রাঃ) হ’তে বর্ণিত, রাসুল (ছাঃ) এরশাদ করেন, ‘ছিয়াম অবস্থায় কেউ যদি ভুল করে পানাহার … Continue reading

Posted in রামাযান মাসে দিনের বেলায় কেউ খাদ্যগ্রহণ করে ফেললে ছিয়াম পূর্ণ করবে কি? | Tagged ,

চাকুরীস্থল বা সফর থেকে বাড়ী ফিরার সময় গৃহবাসীর জন্য ফলমূল, খাদ্যদ্রব্য বা মিষ্টান্ন নিয়ে আসা কি সুন্নাত?


এটি সুন্নাত নয়। বরং মুস্তাহাব। কারণ হাদিয়া প্রদান করলে ভালোবাসা বৃদ্ধি পায়। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘তোমরা পরস্পরকে হাদিয়া দাও ও মহববত বৃদ্ধি কর’ (আল-আদাবুল মুফরাদ হা/৫৯৪; ছহীহুল জামে‘ হা/৩০০৪)। আর রাসূল (ছাঃ) মুসলিম ভাইয়ের জন্য আনন্দদায়ক কিছু করাকে তার নিকটে সর্বাধিক প্রিয় আমলসমূহের … Continue reading

Posted in বাড়ী ফিরার সময় গৃহবাসীর জন্য খাদ্যদ্রব্য বা মিষ্টান্ন নিয়ে আসা কি সুন্নাত? | Tagged ,

বেজি, কুকুর বা শিয়াল কর্তৃক হাঁস-মুরগী আহত হ’লে তা যবহ করে খাওয়া যাবে কি?


জীবিত থাকা অবস্থায় যবহ করলে তা খাওয়ায় কোন দোষ নেই। আল্লাহ বলেন, ‘তবে যা তোমরা যবহ দ্বারা হালাল করেছ (তা তোমাদের জন্য হালাল)’ (মায়েদাহ ৩)।

Posted in হাঁস-মুরগী বেজি কুকুর বা শিয়াল কর্তৃক আহত হ’লে খাওয়া যাবে কি? | Tagged ,

ছহীহ বুখারীতে ‘যাব’ নামক প্রাণী খাওয়া হালাল বলা হয়েছে। এর দ্বারা কোন প্রাণী বুঝায়?


‘যাব’ (الضَّبُّ) সরীসৃপ জাতীয় বুকে ভর দিয়ে চলা একটি প্রাণী। যার শরীরের চামড়া পুরু ও অমসৃণ। লেজ চওড়া, খসখসে ও অধিক গিটবিশিষ্ট। আরব মরু অঞ্চলে এটি অধিকহারে পাওয়া যায়(আল-মু‘জামুল ওয়াসীত্ব)। এটি দেখতে গুই সাপের ন্যায়, তবে গুইসাপ নয়। গুই সাপ আরবী ‘ওয়ারাল’(الوَرَلُ) নামক … Continue reading

Posted in যাব (নামক প্রাণী) খাওয়া হালাল কি? | Tagged

হোটেলের বেঁচে যাওয়া খাবার আশ-পাশে থাকা কুকুরদের খাইয়ে দেওয়ায় শরী‘আতে কোন বাধা আছে কি? এতে বেওয়ারিশ কুকুর পোষার ন্যায় গোনাহগার হ’তে হবে কি?


হোটেলের বেঁচে যাওয়া খাবার গরীব মানুষের মাঝে বিলিয়ে দেওয়াই উত্তম। তবে তা সম্ভব না হ’লে পশু-পাখিকে দেওয়ায় কোন বাধা নেই। বরং এতে প্রভূত নেকী অর্জিত হবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, প্রত্যেক তাযা প্রাণ রক্ষায় ছওয়াব রয়েছে। এক লোক এক পিপাসার্ত কুকুরকে … Continue reading

Posted in হোটেলের বেঁচে যাওয়া খাবার আশ-পাশে থাকা কুকুরদের খাওয়ানো যাবে কি? | Tagged

আমি একজন পুলিশ। দুর্গাপূজার সময় দায়িত্বরত অবস্থায় মন্দির থেকে প্রদত্ত টিফিন খাওয়া যাবে কি?


পূজা উপলক্ষে তাদের দেয়া টিফিন খাওয়া যাবে না। কারণ এতে শিরকের সমর্থন ও সহযোগিতা করা হবে। আল্লাহ তা‘আলা পাপ ও সীমালংঘনের কাজে সহযোগিতা করতে নিষেধ করেছেন (মায়েদাহ ৫/২; লাজনা দায়েমা, ফৎওয়া নং ২৮৮২)।

Posted in অমুসলিম বন্ধুর বিবাহ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করা যাবে কি?, অমুসলিমদের বানানো মিষ্টি, অমুসলিমদের যবেহকৃত পশুর গোশত খাওয়া জায়েয হবে কি?, অমুসলিমের ইফতারী খাওয়া জায়েয হবে কি?, মন্দির থেকে প্রদত্ত টিফিন খাওয়া যাবে কি? | Tagged ,