Tag Archives: জামা‘আত

রাক‘আত বা জামা‘আত শেষ হয়ে যাওয়ার আশংকায় দৌড়ে গিয়ে জামা‘আতে শরীক হওয়া যাবে কি?


তাড়াহুড়া করে দৌড়িয়ে ছালাতে আসতে নিষেধ করা হয়েছে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘যখন ছালাতের এক্বামত দেওয়া হয়, তখন তোমরা দৌড়ে যেয়ো না; বরং স্বাভাবিকভাবে হেঁটে যাও। স্থিরতা অবলম্বন কর। অতঃপর তোমরা জামা‘আতে যতটুকু পাও ততটুকু আদায় কর এবং ছুটে যাওয়া ছালাত … Continue reading

Posted in জামা‘আত শেষ হয়ে যাওয়ার আশংকায় দৌড়ে গিয়ে শরীক হওয়া যাবে কি? | Tagged

প্রবাসে আমরা অনেক বাংলাদেশী ভাই একত্রে থাকি। এখানে বিদেশীদের সালাফী সংগঠন আছে। এক্ষণে আমরা বাংলা ভাষাভাষীরা পৃথক জামা‘আত গঠন করতে পারি কি?


বৃহত্তর ঐক্যের স্বার্থে সে দেশেরই কোন হকপন্থী সালাফী সংগঠনের সাথে জড়িত হওয়া যায়। সেটি সম্ভব না হ’লে স্বদেশে অবস্থিত অনুরূপ কোন সংগঠনের শাখা গঠন করে কাজ করা যেতে পারে। সেটিও সম্ভব না হ’লে বাংলা ভাষাভাষীদের নিয়ে পৃথক সালাফী জামা‘আত গঠন … Continue reading

Posted in বাংলা ভাষাভাষীরা পৃথক জামা‘আত গঠন করতে পারি কি? | Tagged

অনেক সময় মসজিদে ভীড়ের কারণে এমন কাতারে দাঁড়াতে হয়, যার মাঝখানে পিলার রয়েছে। বাধ্যগত অবস্থায় এভাবে দাঁড়ালে ছালাত সিদ্ধ হবে কি?


সাধারণভাবে জামা‘আতে ছালাত আদায় করার সময় দুই পিলারের মাঝে কাতার করা যাবে না। কারণ এতে কাতারে বিছিন্নতা আসে (ইবনু মাজাহ হা/১০০২;  ছহীহাহ হা/৩৩৫)। তবে ভীড়ের কারণে বাধ্যগত অবস্থায় এভাবে দাঁড়ালে ছালাত সিদ্ধ হবে ইনশাআল্লাহ। আব্দুল হামীদ বিন মাহমূদ (রহঃ) হ’তে বর্ণিত … Continue reading

Posted in মসজিদে দুই পিলারের মাঝখানের কাতারে ছালাত হবে কি? | Tagged , ,

বাড়ীতে কাজের ঝামেলায় যোহরের ছালাত ও বাজারে বেচা-কেনার ভীড়ে আছরের ছালাত জামা‘আতে আদায় করা সম্ভব হয় না। এভাবে দুনিয়াবী কারণে নিয়মিত জামা‘আত ত্যাগ করলে গুনাহগার হ’তে হবে কি?


এরূপ নিয়মিত করা যাবে না। উপরোক্ত কারণসমূহ গ্রহণযোগ্য কোন শারঈ ওযর নয়। বরং ছালাতের সময় দোকান বন্ধ রাখতে হবে। আল্লাহ বলেন, ‘যখন জুম‘আর দিন ছালাতের আযান হয়, তখন তোমরা আল্লাহর স্মরণের দিকে দৌড়ে যাও এবং ব্যবসা ছাড়’ (জুম‘আ ৬২/৯)। এটি কেবল … Continue reading

Posted in ছালাতে নিয়মিত জামা‘আত ত্যাগ করলে গুনাহগার হ’তে হবে কি? | Tagged

ঈদের জামা‘আতে একবার শরীক হয়ে পরে কারণবশতঃ অন্য স্থানে এসে জামা‘আত হ’তে দেখলে তাতে অংশগ্রহণ করা যাবে কি?


বিশেষ অবস্থায় এটি পড়া যাবে। প্রথমটি সুন্নাতে মুওয়াক্কাদাহ হিসাবে এবং পরেরটি নফল হিসাবে। মু‘আয বিন জাবাল (রাঃ) রাসূলুল্লাহ (ছাঃ)-এর পিছনে জামা‘আতের সাথে এশার ছালাত পড়তেন এবং নিজ সম্প্রদায়ে গিয়ে আবার তাদের ইমামতি করতেন (বুখারী হা/৭১১, মুসলিম হা/৪৬৫)। পরেরটি তাঁর জন্য নফল … Continue reading

Posted in ঈদের জামা‘আতে দ্বিতীয় বার অংশগ্রহণ করা যাবে কি? | Tagged