Tag Archives: দান-ছাদাক্বা

এ বছর কুরবানীর চামড়ার মূল্য অল্প হওয়ায় অনেকে তা ফেলে দিয়েছে বা মাটিতে পুঁতে ফেলেছে। এ কাজ কি সঠিক হয়েছে?


কোন হালাল জিনিস অপচয় করা সিদ্ধ নয় (বনু ইসরাঈল ১৭/২৬-২৭)। অতএব কুরবানীর চামড়া এভাবে নষ্ট করা মোটেও ঠিক হবে না। বরং অল্প দামে হ’লেও বিক্রয় করা বা সরাসরি ফকীর ও মিসকীনকে দান করতে হবে। নতুবা কমপক্ষে নিজে ব্যবহার করে উপকৃত হ’তে … Continue reading

Posted in কুরবানীর চামড়ার মূল্য অল্প হওয়ায় ফেলে দেওয়া ঠিক হয়েছে কি? | Tagged , ,

কুরবানীর পশুর চামড়া ছাদাক্বা করা কি আবশ্যিক? উক্ত চামড়া খাওয়া যাবে কি?


কুরবানী চামড়া দ্বারা কুরবানী দাতা উপকৃত হ’তে পারবেন অথবা ফকীর-মিসকীনকে ছাদাক্বা করে দিতে পারবেন। কিন্তু এর মূল্য ভক্ষণ করা নিষিদ্ধ। রাসূল (ছাঃ) বলেন, যে ব্যক্তি কুরবানীর চামড়া বিক্রয় করল (অর্থাৎ বিক্রয়লব্ধ মূল্য ভোগ করল) তার কুরবানী হ’ল না (হাকেম, বায়হাক্বী; ছহীহুল … Continue reading

Posted in কুরবানীর পশুর চামড়া ছাদাক্বা করা কি আবশ্যিক? উক্ত চামড়া খাওয়া যাবে কি? | Tagged , , ,

মসজিদে জমি দানকারীর নাম লেখা যাবে কি?


জমিদাতার নাম মসজিদে না লেখাই উত্তম। কারণ এতে রিয়া বা লোক দেখানো আমল হয়ে থাকে। ফলে দাতা ছওয়াব থেকে বঞ্চিত হ’তে পারেন। তবে রিয়া অথবা আত্মপ্রচার ব্যতীত কেবল মানুষের অবগতি বা পরিচিতির উদ্দেশ্যে নাম লেখা যেতে পারে। যেমনভাবে মসজিদের পরিচয়সূচক … Continue reading

Posted in মসজিদে জমি দানকারীর নাম লেখা যাবে কি? | Tagged ,

ছাদাক্বাতুল ফিতর বণ্টনের খাত কোনগুলো? এটি কি কেবল ফকীর-মিসকীনদের জন্য খাছ?


একদল বিদ্বানের মতে, ছাদাক্বাতুল ফিতরের হকদার কেবল ফকীর ও মিসকীনরা। কারণ ইবনু আববাস (রাঃ) বলেন, রাসূল (ছাঃ) যাকাতুল ফিতর ফরয করেছেন ছায়েমকে অনর্থক কথা ও অশ্লীলতা থেকে পবিত্র করার জন্য এবং মিসকীনদের জন্য খাদ্যস্বরূপ (আবূদাঊদ হা/১৬০৯; মিশকাত হা/১৮১৮; ছহীহুত তারগীব হা/১০৮৫)। … Continue reading

Posted in ছাদাক্বাতুল ফিতর বণ্টনে কেবল ফকীর-মিসকীনদের জন্য খাছ কি? | Tagged ,

আমার মা আমাদের ভাই-বোনদের আর্থিক সহযোগিতা না করে নিজের ভাই-বোনদেরকে গোপনে আর্থিক সহযোগিতা করেন। জিজ্ঞাসা করলে তিনি অস্বীকার করেন। এক্ষেত্রে করণীয় কি?


মায়ের জন্য এরূপ করা ঠিক নয়। কারণ তিনি স্বামীর সংসার ও সন্তানদের ব্যাপারে দায়িত্বশীল (বুখারী হা/৫২০০, মিশকাত হা/৩৬৮৫)। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘সর্বোত্তম দীনার সেইগুলো যা পরিবারের জন্য খরচ করা হয় (তিরমিযী হা/১৯৬৬; ছহীহুল জামে‘ হা/১১০৩)। অতএব নিজ সন্তানদের জন্য খরচ করার পর … Continue reading

Posted in মা তার নিজের ভাই-বোনদেরকে আর্থিক সহযোগিতা করতে পারেন কি? | Tagged

সিগারেট, কাঁচা তামাক ক্রয়-বিক্রয়, রফতানী এবং সংশ্লিষ্ট অবকাঠামো, মেশিনারী প্রভৃতি বিক্রয়লব্ধ অর্থের উপর যাকাত আদায় করতে হবে কি?


উপরোক্ত পণ্য এবং সংশ্লিষ্ট জিনিসগুলি হারাম হওয়ায় সেগুলোর উপর যাকাত দিতে হবে না। কারণ তা আল্লাহর নিকট কবুল হবে না। কেননা ‘আল্লাহ পবিত্র। তিনি পবিত্র বস্ত্ত ব্যতীত কবুল করেন না’ (মুসলিম হা/১০১৫; মিশকাত হা/২৭৬০)। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘আল্লাহ পবিত্রতা ব্যতীত ছালাত … Continue reading

Posted in সিগারেট তামাকের অর্থের উপর যাকাত আদায় করতে হবে কি? | Tagged , ,

সূদের টাকা ছওয়াবের আশা ছাড়া কোথায় দান করা সবচেয়ে উত্তম? আমি চাচ্ছি না মাদ্রাসায় এই টাকা ‘তালিবে ইলম’ দের কোন কাজে ব্যবহৃত হোক।


এধরনের সম্পদ ছওয়াবের আশা ব্যতীত ফকীর-মিসকীনদের মাঝে বিতরণ করে দিতে হবে। এছাড়া মুসলমানদের কল্যাণার্থে অন্যান্য খাতে ব্যয় করা যাবে। যেমন অভাবী আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশী ইত্যাদি (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমাহ ১৩/৩৫২, ১৬/৫৩২)। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘যে ব্যক্তি হারাম মাল সঞ্চয় করে, অতঃপর তা … Continue reading

Posted in সূদের টাকা কোথায় দান করা যাবে? | Tagged ,

হাদীছে ছালাতুয যুহার দুই রাক‘আত ছালাতকে ছাদাক্বা বলা হয়েছে। তাহ’লে উক্ত দুই রাক‘আত ছালাত আদায় করে কারো নামে ছাদাক্বা করা যাবে কি?


আর্থিক ছাদাক্বা ব্যতীত কোন ইবাদত কারো নামে ছাদাক্বা করা যায় না। বর্ণিত হাদীছটির ব্যাখ্যা হ’ল- এই ইবাদতটি পালনকারী ব্যক্তির ৩৬০টি হাড়ের পক্ষ থেকে ছাদাক্বা হবে। অন্যের পক্ষ থেকে নয় (উছায়মীন, শরহ রিয়াযুছ ছালেহীন ২/১৫৫)। যেমন রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘তোমাদের কেউ যখন … Continue reading

Posted in ছাদাক্বা ছালাত আদায় করে করা যাবে কি? | Tagged

নবজাতকের মাথা না কামিয়ে অনুমান করে তার চুল পরিমাণ রূপা ছাদাকা করলে বৈধ হবে কি?


ওযরবশত জায়েয হবে (আল-মাওসূ‘আতুল ফিক্বহিয়া ২৬/১০৭)। তবে সুন্নাত হ’ল জন্মের সপ্তম দিনে নাম রেখে আকীকা করা এবং মাথা মন্ডন করে চুলের ওযনে রূপা বা তার পরিমাণ অর্থ ছাদাকা করা (তিরমিযী হা/১৫১৯; মিশকাত হা/৪১৫৪; ছহীহুল জামে‘ হা/৭৯৬০)।

Posted in নবজাতকের মাথা না কামিয়ে অনুমান করে রূপা ছাদাকা করলে বৈধ হবে কি? | Tagged ,

সূরা মুদাছছিরের ৬ আয়াতে বলা হয়েছে, ‘অধিক পাওয়ার আশায় দান করো না’। এর ব্যাখ্যা কি?


আয়াতটি রাসূল (ছাঃ)-কে উদ্দেশ্য করে অবতীর্ণ হয়েছে। মুফাস্সিরগণ এই আয়াতের বিভিন্ন তাফসীর করেছেন, যেমন ইবনু আববাস (রাঃ) এই আয়াতের তাফসীরে বলেন, দুনিয়ায় বেশী পাওয়ার আশায় তুমি  দান করো না। মুজাহিদ বলেন, নিজের আমলকে তুমি এমনভাবে বড় করে দেখ না যে, … Continue reading

Posted in দান অধিক পাওয়ার আশায় করা যাবে না কি? | Tagged

কুরআন মজীদ হাত থেকে পড়ে গেলে কুরআনের ওযনে ফকীর-মিসকীনকে চাউল দিতে হবে। একথার সত্যতা আছে কি?


এ কথার কোন ভিত্তি নেই। তবে কুরআন সর্বাধিক মর্যাদাসম্পন্ন পবিত্র গ্রন্থ (বুরূজ ২২)। অনিচ্ছাকৃতভাবে কুরআন পড়ে গেলে কিংবা পা লাগলে ভীতি ও শ্রদ্ধার সাথে তওবার মন নিয়ে ‘ইন্নালিল্লা-হি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজে‘উন’ পাঠ করবে (বাক্বারাহ ২/১৫৬; উম্মে সালামাহ (রাঃ) হ’তে বর্ণিত হাদীছ, … Continue reading

Posted in কুরআন পড়ে গেলে কুরআনের ওযনে চাউল দান করেতে হবে কি? | Tagged ,

আমার পিতা আমার দাদাকে হজ্জ করাতে চেয়েছিলেন। তবে তা করানোর পূর্বেই দাদা মৃত্যুবরণ করেন। পরবর্তীতে পিতা নিজেই দাদার বদলী হজ্জ করতে চান। কিন্তু তিনিও অসুস্থ হয়ে পড়ায় যেতে পারছেন না। এক্ষণে তিনি দাদার হজ্জের খরচ সমপরিমাণ অর্থ মাদ্রাসায় জমি ক্রয়ের জন্য দান করে দিতে চান। এ সিদ্ধান্ত সঠিক হবে কি?


এক্ষেত্রে দান নয় বরং অন্য কারু মাধ্যমে বদলী হজ্জ করাতে হবে। কারণ রাসূল (ছাঃ) এরূপ ক্ষেত্রে হজ্জের অর্থ দান করতে বলেননি। বরং তার পক্ষ থেকে হজ্জ করতে বলেছেন (তিরমিযী হা/৯৩০; আহমাদ হা/১৬২২৯; মিশকাত হা/২৫২৮)। আর নিজের হজ্জ না করে অন্যের জন্য … Continue reading

Posted in হজ্জ করতে না পারায় সেই অর্থ দান করা যাবে কি? | Tagged ,

মৃত পিতা-মাতার নামে সন্তান দান-ছাদাক্বা করলে তাদের পাশাপাশি সন্তানও কি ছওয়াবের অধিকারী হবে?


সন্তানও ছওয়াব পাবে। আল্লাহ বলেন, ’নারী হৌক পুরুষ হৌক আমি তোমাদের কোন আমলকারীর কর্মফল বিনষ্ট করব না’ (আলে ইমরান ৩/১৯৫)। আয়েশা (রাঃ) বলেন, জনৈক স্ত্রীলোক বলল, হে আল্লাহর রাসূল! আমার মা হঠাৎ মারা গেছেন। তিনি এভাবে মারা না গেলে ছাদাক্বা করে … Continue reading

Posted in দান-ছাদাক্বা পিতা-মাতার নামে সন্তান করলে সন্তানও ছওয়াবের অধিকারী হবে কি? | Tagged ,

কাউকে দান করার পর তার নিকটে দো‘আ চাওয়া যাবে কি?


কাউকে কোন কিছু দান করার পর দো‘আ চাওয়া অনুচিৎ। কেননা এটি দানের বিনিময়ে প্রতিদান চাওয়ার মত হয়ে যায়। অথচ রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, ‘ক্বিয়ামতের দিন যে সাত শ্রেণীর লোক আল্লাহর ছায়ার নিচে আশ্রয় পাবে, তাদের অন্যতম হ’ল, যে ব্যক্তি ডান হাতে … Continue reading

Posted in দান করার পর তার নিকটে দো‘আ চাওয়া যাবে কি? | Tagged ,