Tag Archives: ফেরেশতা

ফেরেশতাদের প্রতি ঈমান আনার হিকমত কি? এই বিশ্বাস মানবজীবনে তো বিশেষ কোন প্রভাব রাখে না। আর কেউ যদি ফেরেশতার অস্তিত্ব স্বীকার না করে, সে কি কাফের হয়ে যাবে?


ফেরেশতা নূরের তৈরী অত্যন্ত শক্তিশালী আল্লাহর এক মহা সৃষ্টির নাম। যা মানুষ স্থূল দৃষ্টিতে দেখতে পায় না। তবে মানুষ তার অস্তিত্বের সঙ্গে তাদের সার্বক্ষণিক উপস্থিতি অনুভব করে। আল্লাহর হুকুমে তারা সর্বক্ষণ সৃষ্টজীবের সেবায় নিয়োজিত। কা‘ব আল-আহবার (রাঃ) বলেন, যদি আল্লাহ … Continue reading

Posted in ফেরেশতাদের প্রতি ঈমান আনার হিকমত কি? | Tagged

মসজিদে গিয়ে ২ রাক‘আত ছালাত আদায় করে চুপচাপ বসে থাকলে ফেরেশতারা তার জন্য দো‘আ করবে মর্মে বর্ণিত হাদীছটি কি ছহীহ?


এ মর্মে বর্ণিত হাদীছটি ছহীহ। আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘তোমাদের কেউ যখন মসজিদে প্রবেশ করে এবং যতক্ষণ ছালাত তাকে আটক রাখে, ততক্ষণ সে ছালাতের মধ্যে থাকে। তোমাদের কেউ যে মজলিসে ছালাত পড়েছে, তাতে যতক্ষণ সে অবস্থান … Continue reading

Posted in মসজিদে ছালাত আদায় করে বসে থাকলে ফেরেশতারা তার জন্য দো‘আ করবে কি? | Tagged , ,

ফেরেশতাগণ কি ক্বিয়ামতের পূর্বে মৃত্যুবরণ করবেন এবং পুনরায় তাদের জীবিত করা হবে কি?


ফেরেশতাগণও মৃত্যুবরণ করবেন। আল্লাহ বলেন, ‘আর তুমি আল্লাহর সাথে অন্য কোন উপাস্যকে আহবান করো না। তিনি ব্যতীত কোন উপাস্য নেই। প্রত্যেক বস্ত্তই ধ্বংস হবে তাঁর চেহারা ব্যতীত। বিধান কেবল তাঁরই এবং তাঁর কাছেই তোমরা ফিরে যাবে’ (ক্বাছাছ ২৮/৮৮)। তিনি আরো বলেন, … Continue reading

Posted in ফেরেশতাগণ কি ক্বিয়ামতের পূর্বে মৃত্যুবরণ করবেন? | Tagged ,

ফেরেশতাগণকে জিবরীল, আযরাঈল, মিকাঈল ইত্যাদি নামে নামকরণ করার বিষয়টি কি কুরআন ও ছহীহ হাদীছ দ্বারা প্রমাণিত? যেমন মালাকুল মাউতকে আযরাঈল বলা ইত্যাদি।


ফেরেশতাগণের নামগুলি কুরআন এবং ছহীহ হাদীছ দ্বারা প্রমাণিত। জিবরীল এবং মীকাঈলের নাম কুরআনে বর্ণিত হয়েছে (বাক্বারাহ ৯৮)। কুরআনে মীকাল আসলেও হাদীছে মীকাঈল শব্দে এসেছে (বুখারী হা/৩২৩৬)। এছাড়া ইসরাফীলের নাম হাদীছে পাওয়া যায় (মুসলিম হা/৭৭০, মিশকাত হা/১২১২)।  আর যে ফেরেশতা জান কবয করেন তার … Continue reading

Posted in ফেরেশতাগণকে নামকরণ করার বিষয়টি কি ছহীহ? | Tagged

হারূত-মারূত দুই ফেরেশতার অপরাধের কাহিনী যদি মিথ্যা হবে তাহলে তাফসীর ইবনে কাছীরসহ অন্যান্য তাফসীর গ্রন্থে কেন বর্ণনা করা হয়েছে? সঠিক ঘটনাটি কী? কেন দুই ফেরেশতাকে দুনিয়াতে পাঠানো হয়েছিল?


সুলায়মান (আঃ)-এর রাজত্বকালে বেঈমান জিনেরা লোকদের ধোঁকা দিত এই বলে যে, সুলায়মান জাদুর জোরে সবকিছু করেন। তিনি কোন নবী নন। শয়তানদের ভেল্কিবাজিতে বহু লোক বিভ্রান্ত হচ্ছিল। এমনকি শেষনবী মুহাম্মাদ (ছাঃ)-এর সময়েও যখন তিনি সুলায়মান (আঃ)-এর প্রশংসা করেন, তখন ইহুদী নেতারা … Continue reading

Posted in হারূত-মারূত দুই ফেরেশতাকে কেন দুনিয়াতে পাঠানো হয়েছিল? | Tagged | Leave a comment

ফেরেশতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়ে বাধিত করবেন।


ফেরেশতামন্ডলী নূরের তৈরী আল্লাহ্র একটি বিশেষ সৃষ্টি (মুসলিম হা/২৯৯৬)। তাঁদের প্রতি ঈমান আনা ঈমানের অন্যতম রুকন (বাক্বারা ২/২৮৫; বুখারী হা/৫০)। আল্লাহ তা‘আলা তাঁর আনুগত্যের জন্য তাদেরকে সৃষ্টি করেছেন এবং পৃথিবী পরিচালনার ক্ষেত্রে তাদেরকে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাজে নিয়োজিত রেখেছেন (বুখারী হা/৩২৩৬; … Continue reading

Posted in ফেরেশতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়ে বাধিত করবেন। | Tagged | Leave a comment

অদ্ভুত আকৃতির ৪ জন ফেরেশতা কাঁধে করে আরশে আযীম বহন করছেন। ১ম জনের আকৃতি শকুনের মত, ৪র্থ জনের আকৃতি গাভীর মত। এ কাহিনী কি সত্য?


উক্ত কাহিনী সঠিক নয়। এ মর্মে ওয়াহাব বিন মুনাবেবহ থেকে যে বর্ণনা এসেছে তা যঈফ (তাফসীরে দুর্রে মানছূর, ইবনে হাজার আসক্বালানী, মাত্বালিবুল ‘আলিয়াহ হা/৩৮৬১)। পবিত্র কুরআনে বর্ণিত হয়েছে যে, আরশ বহনকারী ফেরেশতার সংখ্যা ৮ জন (হা-ক্কাহ ৬৯/১৭)।

Posted in অদ্ভুত আকৃতির ৪ জন ফেরেশতা কাঁধে করে আরশে আযীম বহন করেছেন কি? | Tagged | Leave a comment