Tag Archives: বিদ’আত

মসজিদের ইমাম ছাহেব স্পষ্ট শিরকী কর্মে লিপ্ত থাকায় আমরা ৭-৮ জন ভাই একটি দোকানের ভিতর জুম‘আ আদায় করি। এভাবে জুম‘আ আদায় করা যাবে কি? জুম‘আর জন্য মসজিদ শর্ত কি?


ইমাম স্পষ্ট শিরকে জড়িত থাকলে কিংবা মসজিদ শিরক-বিদ‘আত যুক্ত হ’লে অন্য মসজিদে গিয়ে জুম‘আর ছালাত আদায় করবে। অধিক জ্ঞান অর্জন বা বড় জামা‘আতে অংশগ্রহণ করার জন্য অন্য মসজিদে যেতে কোন বাধা নেই (উছায়মীন, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ১৪/২৪১-২৪২)। কিন্তু আশেপাশে জামে মসজিদ থাকা … Continue reading

Posted in ইমাম শিরক-বিদ‘আত করলে অন্য জায়গায় জুম‘আর ছালাত আদায় করা যাবে কি? | Tagged , , , ,

আল্লাহ কুরআনকে ‘শিফা’ বা আরোগ্য বলেছেন। এক্ষণে দ্রুত কল্যাণ লাভের জন্য কুরআনের বিভিন্ন আয়াত যেমন ‘রবিব ইন্নী বিমা আনঝালতা ইলাইয়া মিন খাইরিন ফাক্বীর’ ৪০ বার, পাগলামী থেকে আরোগ্যের জন্য ‘ইন্নাকা লামিনাল মুরসালীন’ ১৩১ বার ইত্যাদি পাঠ করা যাবে কি?


ছহীহ হাদীছের প্রমাণ ব্যতীত কুরআনের নির্দিষ্ট কোন আয়াত নির্দিষ্ট উদ্দেশ্যে ও নির্দিষ্টবার পাঠ করা যাবে না। এটা বিদ‘আত। তবে কুরআন মানসিক ও শারীরিক ব্যাধির মহৌষধ (ইবনুল ক্বাইয়িম, যাদুল মা‘আদ ৪/৩২২-৩২৩)। তাই কাঙ্ক্ষিত উদ্দেশ্যের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ অর্থবোধক আয়াত অনির্দিষ্টবার পাঠ করায় কোন … Continue reading

Posted in কল্যাণ লাভের জন্য কুরআনের বিভিন্ন আয়াত পাঠ করা যাবে কি? | Tagged

শিরক-বিদ‘আত সম্পর্কে জানা সত্ত্বেও যেসব সমাজ প্রধানগণ উক্ত কাজে বাধা না দিয়ে বরং প্ররোচিত করে, ক্বিয়ামতের দিন তাদের শাস্তি কি হবে?


রাসূল (ছাঃ) এরশাদ করেন, অবশ্যই তোমরা সৎকাজের আদেশ দিবে ও অসৎকাজে নিষেধ করবে। নইলে সত্বর আল্লাহ তার পক্ষ হ’তে তোমাদের উপর শাস্তি প্রেরণ করবেন। অতঃপর তোমরা দো‘আ করবে, কিন্তু তা আর কবুল করা হবে না’ (তিরমিযী হা/২১৬৯; মিশকাত হা/৫১৪০)। অন্য বর্ণনায় … Continue reading

Posted in শিরক-বিদ‘আত সম্পর্কে প্ররোচিত করা ব্যাক্তির শাস্তি কি হবে? | Tagged ,

মায়ের গোসলের পানি দ্বারা বরকত হাছিল করা যাবে কি?


এটি বিদ‘আতী কাজ। রাসূল (ছাঃ) ব্যতীত অন্য কারো পানি বা অন্য কিছু দ্বারা বরকত হাছিলের কামনা করা বিদ‘আত (উছায়মীন, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ১৭/৬৭; বিন বায, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ৭/৬৫)। ইমাম শাত্বেবী বলেন, রাসূল (ছাঃ)-এর মৃত্যুর পর তাঁর ছাহাবীগণ এমনকি চার খলীফা থেকে এমন … Continue reading

Posted in মায়ের গোসলের পানি দ্বারা বরকত হাছিল করা যাবে কি? | Tagged

আমি ইরাক প্রবাসী। আশূরা উপলক্ষে শী‘আরা বিশেষ খাবার রান্না করে এবং বলে যে, এই খাবার আল্লাহর জন্য, কিন্তু এর ছওয়াব হুসাইন (রাঃ)-এর জন্য। আমি যদি তা না খাই তবে অনেক সমস্যায় পতিত হ’তে হবে। এক্ষণে সেটা খাওয়া কি জায়েয হবে?


আশূরা উপলক্ষে ফেরাঊনের কবল থেকে নাজাতে মূসার শুকরিয়ার নিয়তে দু’দিন নফল ছিয়াম রাখা ব্যতীত আর সকল কর্মই বিদ‘আত। অতএব এ উপলক্ষে শী‘আ বা সুন্নীদের যেকোন অনুষ্ঠান বা খাদ্য ভক্ষণ সবই নাজায়েয (দ্রঃ ‘আশূরায়ে মুহাররম ও আমাদের করণীয়’ পুস্তিকা)। এক্ষণে প্রশ্নমতে যদি … Continue reading

Posted in আশূরা উপলক্ষে কারো কোন খাদ্য খাওয়া যাবে কি? | Tagged , , ,

কিছু কিছু মাসআলার ক্ষেত্রে দেখা যায় একজন সালাফী আলেম সেটাকে বিদ‘আত বলছেন, অপরজন সেটাকে সুন্নাত বলছেন। যেমন রুকুর পরে উঠে পুনরায় বুকে হাত বাঁধার বিষয়টি। এজন্য কোন আলেমকে বিদ‘আতী বলে আখ্যায়িত করা যাবে কি?


 বলা যাবে না। কারণ বিদ‘আত বলা এবং বিদ‘আতী বলা এক জিনিস নয়। ইজতিহাদী বা ব্যাখ্যাগত ভুলের কারণে কাউকে বিদ‘আতী বলা যায় না। শায়েখ আলবানী (রহঃ) বলেন, একজন আলেম কোন বিদ‘আত করার অর্থ এই নয় যে তিনি বিদ‘আতী। কোন আলেম যদি … Continue reading

Posted in আলেমকে বিদ‘আতী বলে আখ্যায়িত করা যাবে কি?, বিদ‘আতী বলে আখ্যায়িত করা যাবে কি কোন আলেমকে? | Tagged ,

জুম‘আর খুৎবায় ইমাম ছাহেব বিদ‘আতপূর্ণ কথা বলেন। একারণে ইচ্ছাকৃতভাবে দেরী করা যাবে কি?


যথাসময়ে মসজিদে উপস্থিত হতে হবে। নতুবা মুছল্লী বহু নেকী থেকে বঞ্চিত হবে (মুত্তাফাক্ব ‘আলাইহ, মিশকাত হা/১৩৮১-৮৪, ১৩৮৮)। প্রয়োজনে যে মসজিদে কুরআন ও ছহীহ সুন্নাহ মোতাবেক খুৎবা হয় সেখানে যেতে হবে। ইবনু তায়মিয়াহ (রহঃ) বলেন, মুছল্লী যদি জানতে পারে যে তার ইমাম … Continue reading

Posted in খুৎবায় বিদ‘আতপূর্ণ কথা বলেন। একারণে ইচ্ছাকৃতভাবে দেরী করা যাবে কি? | Tagged , , ,

ঘরের বিভিন্ন স্থানে কুরআনের আয়াত, দো‘আ, আয়াতুল কুরসী ইত্যাদির ক্যালিগ্রাফী টানিয়ে রাখা যাবে কি?


যাবে না। কারণ (১) অধিকাংশ ক্ষেত্রে সৌন্দর্যবর্ধনের উদ্দেশ্যে কুরআনের আয়াত, দো‘আ ইত্যাদি দ্বারা বিভিন্ন রঙের ডিজাইনে নকশা করা হয়। অথচ কুরআন নাযিল হয়েছে মানুষকে হেদায়াতের জন্য, সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য নয়। অতএব এরূপ কাজ কুরআনকে তাচ্ছিল্য করার শামিল। (২) কেউ ঝুলিয়ে রাখে … Continue reading

Posted in ঘরের বিভিন্ন স্থানে কুরআনের আয়াত আয়াতুল কুরসী দো’আর ক্যালিগ্রাফী টানিয়ে র | Tagged , , , ,

এক্সিডেন্টে দাঁত পড়ে গেলে কৃত্রিম দাঁত সংযোজনে বাধা আছে কি?


চিকিৎসার্থে বা কোন দোষ-ক্রটি দূরীকরণার্থে এরূপ করায় শরী‘আতে কোন বাধা নেই (তিরমিযী, মিশকাত হা/৪৪০০, সনদ হাসান; নববী, আল-মাজমূ‘ ১/২৫৬; ফাতাওয়া লাজনা দায়েমা ২৪/৫৬)।

Posted in দাঁত কৃত্রিম সংযোজনে বাধা আছে কি? | Tagged

শবেবরাত সহ বিভিন্ন বিদ‘আতী অনুষ্ঠান উপলক্ষে প্রতিবেশীর প্রদত্ত খাবার খাওয়া যাবে কি? খাওয়া না গেলে কি করতে হবে?


এধরনের বিদ‘আতী অনুষ্ঠানের জন্য তৈরীকৃত খাবার খাওয়া ও সেখানে উপস্থিত হওয়া সহ যেকোন প্রকার সহযোগিতা করা শরী‘আত সম্মত নয়। কারণ এটি উক্ত বিদ‘আতী কর্মে সহযোগিতার শামিল, যা নিষিদ্ধ (মায়েদাহ ৫/২)। কোন কারণবশতঃ গ্রহণ করা হ’লে তা পশু-পাখিকে খাইয়ে দিবে।

Posted in বিদ'আতীর কোন আমল কাজে আসবে কি?, বিদ‘আত ও তার ভয়াবহতা, বিদ‘আতী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করা যাবে কি?, বিদ‘আতী অনুষ্ঠানে বাধ্যতামূলক অংশগ্রহণ কর‌লে করণীয় কি?, শবেবরাত বা বিদ‘আতী অনুষ্ঠানের খাবার খাওয়া যাবে কি? | Tagged , , ,

দেশের বিভিন্ন এলাকায় দোকানে বা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সকাল-সন্ধ্যায় আগরবাতি জ্বালানোর প্রচলন রয়েছে। শারঈ দৃষ্টিকোন থেকে বিষয়টি বৈধ কি?


সাধারণভাবে এতে কোন দোষ নেই। কিন্তু ব্যবসা-বাণিজ্যে অধিক লাভ বা কল্যাণের উদ্দেশ্যে এরূপ আগরবাতি জ্বালালে তা অবশ্যই শিরক হবে। দোকান, বাড়ী বা নিজেকে সুগন্ধিময় রাখা উত্তম অভ্যাসের অন্তর্ভুক্ত। মা আয়েশা (রাঃ) বলেন, দুনিয়ার তিনটি বস্ত্ত রাসূল (ছাঃ)-এর পসন্দ ছিল। যার … Continue reading

Posted in ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সকাল-সন্ধ্যায় আগরবাতি জ্বালানো বৈধ কি? | Tagged , ,

দাঁত পরিষ্কারের ক্ষেত্রে প্রচলিত পেস্ট-ব্রাশ ব্যবহার করে মিসওয়াক করার নেকী পাওয়া যাবে কি?


যাবে। কারণ মিসওয়াক করার উদ্দেশ্য হ’ল মুখ পরিষ্কার রাখা। আয়েশা (রাঃ) বলেন, রাসূল (ছাঃ) বলেছেন, ‘মিসওয়াক হচ্ছে মুখ পরিষ্কারকারী এবং আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের উপায়’ (আহমাদ, নাসাঈ, মিশকাত হা/৩৮১, হাদীছ ছহীহ)। এছাড়া রাসূল (ছাঃ) মিসওয়াকের জন্য কোন কিছু নির্দিষ্ট না করে একাধিক … Continue reading

Posted in পেস্ট-ব্রাশ ব্যবহার করে মিসওয়াক করার নেকী পাওয়া যাবে কি? | Tagged

জাতীয় পতাকার সম্মানে দাঁড়ানো, জাতীয় সংগীত গাওয়ার সময় স্থিরভাবে দাঁড়িয়ে থাকা ইত্যাদি কার্যক্রমের ব্যাপারে শরী‘আতের বিধান কি?


সঊদী ফাতাওয়া বোর্ডকে এ মর্মে প্রশ্ন করা হ’লে তারা উত্তরে বলেন- জাতীয় পতাকাকে সালাম দেয়া কিংবা জাতীয় পতাকার সম্মানে দেখিয়ে দাঁড়ানো নিকৃষ্ট বিদ‘আত। এরূপ কাজ রাসূল (ছাঃ) এবং খোলাফায়ে রাশেদীনের যুগে ছিল না। এছাড়া এসব কর্মকান্ডের দ্বারা কাফেরদের রীতিনীতির সাথে … Continue reading

Posted in জাতীয় পতাকার সম্মানে দাঁড়ানো শরী‘আতের বিধান কি? | Tagged

শবেকদর উপলক্ষে ২৭শে রামাযান দিবাগত রাতে উন্নতমানের খাওয়া-দাওয়ার আয়োজন করায় শরী‘আতে কোন বাধা আছে কি?


নির্দিষ্টভাবে কেবল ২৭ তারিখ নয়, বরং রামাযানের শেষ দশকের প্রত্যেক বেজোড় রাতেই কদর তালাশ করার জন্য শারঈ নির্দেশনা এসেছে (বুখারী হা/২০১৭; মিশকাত হা/২০৮৩)। আর ক্বদরের রাত্রিগুলিকে ইবাদতের জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে। খাওয়া-দাওয়ার মাহফিলের জন্য নয়। অতএব এ রাতে মাহফিলের আয়োজন করা … Continue reading

Posted in শবেকদর উপলক্ষে ২৭শে রাতে খাওয়া-দাওয়ার আয়োজন করা যাবে কি? | Tagged

বিদ‘আত ও তার ভয়াবহতা (দ্বিতীয় পর্ব)


আপনি এমন সম্প্রদায়ের ব্যাপারে আশ্চার্যান্বিত হবেন, যারা রাসূল (ছাঃ)-এর নিম্নোক্ত বাণী সম্পর্কে সম্যক জ্ঞাত। إِيَّاكُمْ وَمُحْدَثَاتِ الْأُمُوْرِ فَإِنَّ كُلَّ مُحْدَثَةٍ بِدْعَةٌ وَكُلَّ بِدْعَةٍ ضَلاَلَةٌ وَكٌلَّ ضَلاَلَةٍ فِي النَّارِ ‘ধর্মের নামে নতুন সৃষ্টি হ’তে সাবধান। কেননা প্রত্যেক নতুন সৃষ্টিই বিদ‘আত এবং প্রত্যেক বিদ‘আতই … Continue reading

Posted in বিদ'আতীর কোন আমল কাজে আসবে কি?, বিদ‘আত ও তার ভয়াবহতা, বিদ‘আতী আমল করলে তাদের পরিণতি কি হবে? | Tagged | 1 Comment

বিদ‘আত ও তার ভয়াবহতা (প্রথম পর্ব)


সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য। আমরা তাঁর প্রশংসা করি, তাঁর নিকট সাহায্য প্রার্থনা করি, তাঁর নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করি এবং তাঁর দিকেই ফিরে যাই। আমরা নিজেদের আত্মার কুমন্ত্রণা এবং অশুভ কর্ম হ’তে আল্লাহর নিকট আশ্রয় চাই। তিনি যাকে হেদায়াত দান করেন, … Continue reading

Posted in বিদ‘আত ও তার ভয়াবহতা | Tagged | 1 Comment

খতমে ইউনুস নামে কোন আমল একাকী বা যৌথভাবে করা যাবে কি?


এরূপ কোন আমলের অস্তিত্ব শরী‘আতে নেই। সুতরাং এই দো‘আ ‘এতবার পাঠ করলে এই ফযীলত’-এরূপ আমলের কোন সুযোগ নেই। বরং বিপদের সময় এক বা একাধিকবার দো‘আ ইউনুস পাঠ করতে হয়। রাসূল (ছাঃ) বলেন, যে কোন মুসলিম ব্যক্তি যে কোন সমস্যায় দো‘আটি … Continue reading

Posted in খতমে ইউনুস নামে কোন আমল একাকী বা যৌথভাবে করা যাবে কি? | Tagged ,

১৯৭১ সালে নিহত মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে মসজিদের ভিতরে পৃথক রংয়ের খুঁটি তৈরী করা এবং তাদের জন্য নিয়মিতভাবে সূরা ইয়াসীন পাঠ করা যাবে কি?


মসজিদে হৌক বা বাইরে হৌক এরূপ করা সম্পূর্ণরূপে শরী‘আত বিরোধী কাজ। আর মৃতের স্মরণে কুরআন পাঠ করার কোন বিধান শরী‘আতে নেই। সুতরাং এরূপ আমল সম্পূর্ণরূপে বিদ‘আতী প্রথা। যা অবশ্যই পরিত্যাজ্য (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/১৪০)। শায়খ বিন বায (রহঃ) বলেন, মৃত ব্যক্তির … Continue reading

Posted in মসজিদে পৃথক রংয়ের খুঁটি তৈরী করে মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে সূরা ইয়াসীন পাঠ কর | Tagged , ,

রুকনে ইয়ামানী ও হাজারে আসওয়াদ ব্যতীত কা‘বাগৃহের অন্য কোন স্থান বরকত লাভের উদ্দেশ্যে স্পর্শ করায় শরী‘আতে কোন বাধা আছে কি?


কা‘বাগৃহের রুকনে ইয়ামানী স্পর্শ এবং হাজারে আসওয়াদ চুমা দেওয়া বা ইশারা করার বিষয়টি ছহীহ হাদীছ দ্বারা প্রমাণিত (বুখারী, মিশকাত হা/২৫৬৮, ২৫৮৯)। অন্যান্য স্থানে স্পর্শ করার ব্যাপারে কোন স্পষ্ট নির্দেশনা নেই। একবার হযরত মু‘আবিয়া ও ইবনু আববাস (রাঃ) একত্রে ত্বাওয়াফরত অবস্থায় মু‘আবিয়া … Continue reading

Posted in কা‘বাগৃহের অন্য কোন স্থান বরকত লাভের উদ্দেশ্যে স্পর্শ করা যাবে কি? | Tagged

ওযূতে ঘাড় মাসাহ করা সুন্নাত নাকি বিদ‘আত?


১ম অংশ ইসলামের অন্যতম রুকন ছালাত শুদ্ধ হওয়ার জন্য ওযূ যরূরী। ওযূ ঠিকভাবে করা না হ’লে ছালাত হয় না। তাছাড়া ওযূ একটি ইবাদত, যার মাধ্যমে ওযূকারীর শরীর থেকে ছগীরা গোনাহগুলি ঝরে যায়। ছালাত সিদ্ধ হওয়া এবং ওযূর উক্ত ফযীলত লাভের … Continue reading

Posted in ওযূ, ওযূতে ঘাড় মাসাহ করা যাবে কি?, ওযূতে ঘাড় মাসাহ করা সুন্নাত নাকি বিদ‘আত? | Tagged ,

জনৈক ব্যক্তি বলেন, একজন আহলেহাদীছ ফাসেক একজন শিরক-বিদ‘আতে লিপ্ত আবেদের চেয়ে বহুগুণ উত্তম। এ বক্তব্যের সত্যতা জানতে চাই।


উক্ত বক্তব্যটি যথার্থ। কারণ একজন আহলেহাদীছ ফাসেক যত বড় গুনাহেই লিপ্ত হৌক না কেন সাধারণতঃ সে শিরক-বিদ‘আতে লিপ্ত হয় না। আর শিরক একটি অমার্জনীয় পাপ। যা থাকলে তার জন্য আল্লাহ জান্নাতকে হারাম করে দেন (মায়েদাহ ৫/৭২)। আল্লাহ তা‘আলা যাকে ইচ্ছা … Continue reading

Posted in আহলেহাদীছ ফাসেক শিরক-বিদ‘আতে লিপ্ত আবেদের চেয়ে বহুগুণ উত্তম কি? | Tagged ,

বিদ‘আতী ইমামের পিছনে ঈদায়নের ছালাত আদায়ের সময় ‘আমীন বলা’ ও ‘রাফউল ইয়াদায়নে’র ন্যায় অতিরিক্ত তাকবীর সমূহ একাকী আদায় করলে তাতে শরী‘আতে কোন বাধা আছে কি?


একাকী পৃথকভাবে তাকবীর দেওয়া যাবে না। কেননা হাদীছে বর্ণিত ইমামের অনুসরণ দ্বারা তার ছালাতের তাকবীরসমূহ অনুসরণের প্রতি ইঙ্গিত করা হয়েছে। একদা রাসূল (ছাঃ) ছালাতরত অবস্থায় ময়লা থাকার কারণে জুতা খুলে ফেললে ছাহাবায়ে কেরামও জুতা খুলে ফেলেন। পরবর্তীতে রাসূল (ছাঃ) তাদেরকে … Continue reading

Posted in বিদ‘আতী ইমামের পিছনে ছালাত আদায়ের সময় করণীয়।, বিদাতী ইমা‌মের পিছ‌নে নামাজ পড়া যা‌বে কী? | Tagged , , ,

আমি আক্বীদাগত ভাবে কুরআন এবং ছহীহ হাদীস অনুসারী। কিন্তু বিদাতী এলাকায় আমার বসবাস হওয়ায় বাধ্য হয়ে বিদাতী ইমামের পিছনে জামা‘আতে ছালাত আদায় করতে হয়। ঐ ইমাম রাফ‘উল ইয়াদায়েন, জোরে আমীন বলা সহ অনেক সুন্নাতই আমল করেন না। অথচ আমি সেগুলো পালন করি। এমতাবস্থায় ইমামের অনুসরণ করা হবে কি?


বিশুদ্ধ সুন্নাতের উপর আমল করেই ইমামের অনুসরণ করতে হবে। এতে ছালাতের কোন ক্ষতি হবে না। ছহীহ হাদীছে থাকা সত্ত্বেও যে সমস্ত আমল ইমাম ছেড়ে দিবেন মুক্তাদী হিসাবে সেগুলো আমল করা সম্ভব হ’লে তা পালন করতে হবে (বুখারী হা/৩৭৮, ৬৮৯; মুসলিম … Continue reading

Posted in বাতিল ফের্কার লোকদের পিছনে ছালাত আদায় করা যাবে কি?, বিদাতী ইমা‌মের পিছ‌নে নামাজ পড়া যা‌বে কী? | Tagged , ,

স্থির চিত্র ও ভিডিও চিত্রের ব্যাপারে শরী‘আতের হুকুম কি? বিভিন্ন ইসলামী অনুষ্ঠানেও ভিডিও প্রদর্শন করা হচ্ছে। রাসূল (ছাঃ) কোন ধরনের ছবি নিষেধ করেছিলেন এবং তার উদ্দেশ্য কী ছিলো? বিভিন্ন প্রয়োজনে কোন ছবি ধারণ করলে পাপ হবে কি?


সম্মান ও মর্যাদা দেওয়ার উদ্দেশ্যে কোন প্রাণীর ছবি তোলা এবং তা টাঙানো বা স্থাপন করা হারাম।কারণ এগুলি মূর্তিপূজার শামিল। রাসূল (ছাঃ) বলেছেন, প্রত্যেক ছবি নির্মাতা জাহান্নামী (মুত্তাফাক্ব আলাইহ, মিশকাত হা/৪৪৯৮, ‘ছবিসমূহ’ অনুচ্ছেদ)। তবে বাধ্যগত কারণে, জনগুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্যে ও রেকর্ড রাখার … Continue reading

Posted in ইসলামী অনুষ্ঠান ভিডিও করা যাবে কি?, স্থির চিত্র ও ভিডিও চিত্রের ব্যাপারে শরী‘আতের হুকুম কি? | Tagged , | Leave a comment

কোন ব্যক্তি মারা গেলে জানাযায় আগত লোকদের জন্য গরু-খাসি যবহ করা হয়। অতঃপর দাফন কার্য সম্পন্ন করে খানাপিনা করা হয়। উক্ত আমল শরী‘আত সম্মত কি?


মৃত ব্যক্তিকে কেন্দ্র করে এ দেশে যত বিদ‘আত চালু আছে, উক্ত প্রথা তার অন্যতম। এর পরিণাম অত্যন্ত ভয়াবহ (নাসাঈ হা/১৫৭৮)। রাসূল (ছাঃ), ছাহাবায়ে কেরাম ও তাবেঈদের স্বর্ণযুগে এসব প্রথার অস্তিত্ব ছিল না। মৃত্যুর পরে প্রচলিত বিদ‘আত সমূহ (البدع المروجة بعد الموت) … Continue reading

Posted in মৃত ব্যক্তির উদ্দেশ্যে কুরআন খতম বা অনুষ্ঠান করা যাবে কি?, মৃত ব্যাক্তির বাড়ীতে খানা পিনার ব্যবস্থা করা যাবে কি? | Tagged , , | Leave a comment

কোন প্রয়োজন পূরণার্থে জালালী খতম কোন কোন এলাকায় ব্যাপকভাবে প্রচলিত। ইমামগণকে এজন্য যথেষ্ট পরিমাণ অর্থও প্রদান করা হয়। শরী‘আতে এর কোন ভিত্তি আছে কি?


ইসলামে জালালী খতম বলে কিছু নেই। এর জন্য আলেমদেরকে ডাকা ও অনুষ্ঠান করা বিদ‘আত। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘যে দ্বীনের মধ্যে এমন কিছু আবিষ্কার করল যা তার মধ্যে নেই তা প্রত্যাখ্যাত’ (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/১৪০, ‘কুরআন-সুন্নাহকে অাঁকড়ে ধরা’ অনুচ্ছেদ)। এরূপ খতম … Continue reading

Posted in জালালী খতমের কোন অর্খ আছে কি? | Tagged , | Leave a comment