Tag Archives: বিবাহ

জনৈক বিধবা মহিলা সন্তানদের মত না থাকায় গোপনে একজনকে অলী বানিয়ে মোবাইলের মাধ্যমে একজনের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে। যার স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। বর্তমান স্বামীর সাথে তার সাক্ষাৎ ও মোবাইলে কথা হয়, তবে দৈহিক সম্পর্ক হয়নি। সন্তানদের অমতে এরূপ বিবাহ সঠিক হয়েছে কি?


বর্ণনা অনুযায়ী উক্ত বিবাহ সঠিক হয়নি। কারণ নারী নিজের বিবাহ নিজে বা অন্য নারীকে বিবাহ দিতে পারে না (ইবনু মাজাহ হা/১৮৮২; ইবনু মাজাহ হা/৩১৩৭; ইরওয়া হা/১৮৪১)। নারীর বিবাহের জন্য নিকটতম অভিভাবকের অনুমতি আবশ্যক। এমনকি পিতা, দাদা, ভাই প্রমুখদের অবর্তমানে প্রাপ্তবয়স্ক … Continue reading

Posted in সন্তানদের মত না থাকায় বিধবা মা নিজে নিজে বিবাহ করতে পারে কি? | Tagged ,

একটি দুঃখজনক ঘটনার প্রেক্ষিতে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যে আর কখনো বিবাহ করব না। এরূপ সিদ্ধান্ত শরী‘আতসম্মত হয়েছে কি?


দৈহিকভাবে সক্ষম ব্যক্তির এরূপ সিদ্ধান্ত নেওয়া শরী‘আত সম্মত নয়। এ সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে হবে। কারণ রাসূল (ছাঃ) বলেছেন, তোমাদের মধ্যে যার বিয়ে করার সামর্থ্য আছে, সে যেন অবশ্যই বিয়ে করে (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/৩০৮০)। তিনি বলেন, বিবাহ করা আমার সুন্নাত। … Continue reading

Posted in বিবাহ কখনো করব না। এরূপ সিদ্ধান্ত নেওয়া শরী‘আতসম্মত হয়েছে কি? | Tagged

বিবাহের পর স্বামী কর্মহীন থাকায় পরিবারের চাপে বাধ্য হয়ে স্ত্রী ডিভোর্স লেটারে স্বাক্ষর করে। তবে স্বামী তা গ্রহণ করেনি। পরবর্তীতে স্ত্রী স্বামী থেকে আলাদা বসাবস করলেও তাদের মাঝে সম্পর্ক ছিন্ন হয়নি। এক্ষণে স্বামীর নিকটে ফিরে যেতে বিবাহের প্রয়োজন হবে কি?


প্রশ্নে বর্ণিত অবস্থায় ‘খোলা’ হয়েছে। এক্ষণে উক্ত নারীর সাথে সংসার করতে চাইলে নতুন বিবাহের মাধ্যমে সংসার করবে (বাক্বারাহ ২/২৩২; তালাক ৬৫/১; বুখারী হা/৫১৩০)।

Posted in স্ত্রী ডিভোর্স লেটারে স্বাক্ষর করলে তালাক হবে কি? | Tagged , ,

আমার বয়স ২৫ বছর। নিজের আর্থিক সক্ষমতা ও পূর্ণ সচ্ছলতা থাকা সত্ত্বেও বিবাহ করার ব্যাপারে পিতা-মাতার অনুমতি পাচ্ছি না। যদিও তা আমার জন্য খুবই যরূরী। এক্ষণে আমার করণীয় কি?


পিতা-মাতার কর্তব্য প্রাপ্ত বয়স্ক সন্তানের বিবাহের ব্যবস্থা করা। সামর্থ্য থাকা সত্ত্বেও পিতা ইচ্ছাকৃতভাবে সন্তানের বিবাহের ব্যবস্থা না করলে গোনাহগার হবেন। এক্ষণে শরী‘আতসম্মত কারণে পিতা-মাতা কোন বিবাহের অনুমতি না দিলে, তাদের নির্দেশনা মেনে চলা আবশ্যক। অন্যথা নয়। তবে সম্ভবপর তাদেরকে বুঝিয়ে … Continue reading

Posted in বিবাহ প্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ার পরেও অভিভাবক না দিলে করনীয় কি? | Tagged

তিন ছেলে-মেয়ে থাকা অবস্থায় জনৈক ব্যক্তি স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই ২য় বিবাহ করেছে। এটা শরী‘আতসম্মত হয়েছে কি? এক্ষণে প্রথমা স্ত্রী ও তার সন্তানরা দ্বিতীয় স্ত্রীকে তালাক দিতে পিতাকে বাধ্য করতে পারবে কি?


শারঈ দৃষ্টিতে স্বামীর দ্বিতীয় বিবাহের জন্য পূর্ব স্ত্রীর অনুমতি গ্রহণ আবশ্যক নয়। আল্লাহ তা‘আলা মুসলিম পুরুষকে চারজন পর্যন্ত স্ত্রী রাখার অনুমতি দিয়েছেন (নিসা ৪/৩)। তবে বিবাহ করার চেয়ে স্ত্রীদের মাঝে ইনছাফ করার বিষয়টি বেশী যরূরী ও কঠিন। এজন্য একাধিক বিবাহের অনুমতি … Continue reading

Posted in ছেলে-মেয়ে থাকা অবস্থায় স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই ২য় বিবাহ করা শরী‘আতসম্মত কি? | Tagged ,

বিবাহের কিছুদিন পর স্বামী জানতে পারে যে স্ত্রী আগে থেকে কোর্ট ম্যারেজের মাধ্যমে অন্য পুরুষের সাথে বিবাহিতা। এক্ষণে একটি বিবাহ থাকা অবস্থায় অন্য স্বামীর সাথে বিবাহিত জীবন অতিবাহিত করার কারণে উক্ত স্বামী ও স্ত্রী গুনাহগার হবে কি? এছাড়া উক্ত স্বামী বা স্ত্রীর জন্য এখন করণীয় কি?


বৈধ অভিভাবকের অনুমতি ব্যতীত প্রচলিত কোর্ট ম্যারেজ শরী‘আতসম্মত নয়। এরূপ সম্পর্ক যেনার শামিল (তিরমিযী হা/১১০২; মিশকাত হা/৩১৩১; ছহীহুল জামে‘ হা/২৭০৯)। এক্ষণে পূর্বের বিবাহটি যেহেতু সঠিক ছিল না; সেহেতু পরবর্তী বিবাহ ও সংসারের কারণে কোন গুনাহ হবে না। কিন্তু স্ত্রীর পূর্বের কর্মকান্ডের … Continue reading

Posted in বিবাহ গোপন রেখে অন্যা বিবাহ করা করলে গোনাহগার হবে কি? | Tagged ,

বিদেশে গিয়ে তালাক প্রদানের নিয়তে সাময়িক বিবাহ বৈধ হবে কি? শী‘আ সম্প্রদায় এরূপ বিবাহ করে বলে জানি। এটা সঠিক কি?


বিবাহ করা হয় স্থায়ীভাবে বসবাসের নিয়তে। তালাকের নিয়তে বিবাহ করা হারাম। ইসলামের প্রাথমিক যুগে সাময়িক বিবাহ জায়েয ছিল। কিন্তু মক্কা বিজয়ের দ্বিতীয় দিন তা ক্বিয়ামত পর্যন্ত চিরতরে হারাম করা হয় (মুসলিম হা/১৪০৬ (২১)। কিন্তু শী‘আ রাফেযীরা এখনও এই বিবাহকে জায়েয মনে … Continue reading

Posted in বিবাহ তালাক প্রদানের নিয়তে বিদেশে গিয়ে সাময়িক বৈধ হবে কি? | Tagged ,

আমার সৎমা আমার সহোদর ভাইয়ের ছেলেকে দুধ পান করিয়েছেন। তিনি কত ঢোক পান করিয়েছেন এ নিয়ে তার সন্দেহ আছে। একারণে কি তিনি মাহরাম সাব্যস্ত হবেন? কারণ আমার এই ভাইপো আমার মেয়েকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছে। এ বিষয়ে সঠিক সমাধান জানতে চাই।


ঢোক নয় বরং অধিকতর গ্রহণযোগ্য মতে, পৃথক পৃথক সময়ে পাঁচবার দুধ পান করালেই একজন নারী দুধ মা হিসাবে সাব্যস্ত হবেন (মুসলিম হা/১৪৫১; মিশকাত হা/৩১৬৭; আশ–শারহুল মুমতে‘ ১২/১১২–১১৩, ১৩/৪২৭)। অন্য বর্ণনায় আছে, ‘একবার বা দু’বার দুধপান অথবা এক চুমুক বা দু’চুমুক হারাম … Continue reading

Posted in সৎমা আমার ভাইয়ের ছেলেকে দুধ পান করিয়েছেন। এখন তিনি মাহরাম সাব্যস্ত হবেন? | Tagged , ,

আমি নানীর দুধ পান করে বড় হয়েছি। বড় হয়ে বড় মামার মেয়েকে বিয়ে করেছি এবং একটি ছেলে সন্তান হয়েছে। এক্ষণে আমাদের বিবাহ কি শুদ্ধ ছিল? শুদ্ধ না হ’লে আমাদের সন্তানের কি হবে? জানিয়ে বাধিত করবেন।


উক্ত বিবাহ শরী‘আতসম্মত হয়নি। কারণ আপনার মামা আপনার দুধভাই। যেমন হামযা (রাঃ) চাচা হওয়া সত্ত্বেও তিনি ছিলেন রাসূল (ছাঃ)-এর দুধভাই। আর দুধ ভাইয়ের মেয়েকে বিবাহ করা হারাম। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘বংশীয় সূত্রে যে সকল মহিলাকে বিবাহ করা হারাম, দুগ্ধপান সূত্রেও … Continue reading

Posted in নানীর দুধ পান করে বড় হয়েছি। মামার মেয়েকে বিয়ে করেছি এখন করণীয় কি? | Tagged , , ,

আমাদের এলাকায় একজন পুরুষ তার বৈমাত্রেয় বোনের মেয়েকে বিবাহ করেছে এবং তাদের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। উক্ত বিবাহ শরী‘আতসম্মত হয়েছে কি? না হ’লে এখন করণীয় কি?


বৈমাত্রেয় বোন স্বীয় পিতার ঔরসজাত হ’লে উক্ত বিবাহ বাতিল হিসাবে গণ্য হবে। কারণ সৎ বোনের মেয়েকে বিবাহ করা হারাম। এক্ষণে তাকে বিবাহ বিচ্ছেদ করে আলাদা হয়ে যেতে হবে। এক্ষেত্রে সন্তান কোলের শিশু হ’লে অন্যত্র বিবাহ হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত মায়ের প্রতিপালনাধীনে … Continue reading

Posted in বিবাহ সৎ বোনের মেয়েকে করা যাবে কি?, সৎ বোনের মেয়েকে বিবাহ করা যাবে কি? | Tagged

ওলী ছাড়া বিবাহের পর ১টি সন্তান হয়েছে। সন্তান জন্মের পর মেয়ের পিতা-মাতা উক্ত বিবাহ মেনে নিয়েছেন। এক্ষণে ঐ সন্তানটি কি জারজ হিসাবে গণ্য হবে? সে কি পিতা-মাতার সম্পদের অংশীদার হবে?


যদি কেউ সাক্ষী ও ওলী ব্যতীত গোপনে কাউকে বিবাহ করে, উক্ত বিবাহ বাতিল হওয়ার ব্যাপারে ওলামায়ে কেরাম একমত। তবে যদি তারা একান্তই বিবাহ জায়েয হয়েছে মনে করে সহবাস করে, সেক্ষেত্রে তাদের একত্রবাস ‘সন্দেহপূর্ণ’ বিবেচিত হবে। এমতাবস্থায় সন্তান পিতার সাথে সম্পৃক্ত … Continue reading

Posted in অ‌ভিভাবক বা ওলী না থাক‌লে করণীয়!, বিবাহ উকীল বাবা’র মাধ্যমে পড়ানো যায় কি?, বিবাহ ওলী ছাড়া করলে তাদের সন্তান কি জারজ হিসেবে গন্য হবে?, বিবাহ শুদ্ধ হওয়ার জন্য কি কি শর্ত প্রযোজ্য?, বিবাহ শুদ্ধ হয়নি জানতে পারলাম. এখন বৃদ্ধ বয়সে করণীয় কি?, বিবাহে সম্মতি না থাকলে বিবাহ বলে গন্য হবে কি? | Tagged ,

আমি সতের বছর যাবত জেলে ছিলাম। আমার স্ত্রী আমার নিকট তালাক না নিয়েই অন্যত্র বিবাহ করেছে। কিছুদিন পর উক্ত স্বামীও মারা যায়। এক্ষণে আমি জেল থেকে বের হ’লে আমি ও সে কিভাবে সংসার করতে পারব। ছহীহ হাদীছের আলোকে জানিয়ে বাধিত করবেন।


স্বামী জেলে থাকলে বিবাহ বিচ্ছিন্ন হয় না। এক্ষণে মহিলা যা করেছে তা ভুল করেছে। যা যেনার শামিল। অতএব স্ত্রী তওবা করবে। অতঃপর বিবাহ ছাড়াই সংসার শুরু করবে। স্মর্তব্য যে, দীর্ঘদিনের জন্য স্বামী কারান্তরীণ থাকলে প্রয়োজনে স্ত্রী স্বামীর নিকটে তালাক চাইতে … Continue reading

Posted in দ্বিতীয় স্বামী মারা গেলে প্রথম স্বামীর সাথে কিভাবে সংসার শুরু করবে? | Tagged , ,

আমার বড় বোনের স্বামী পূর্বের স্ত্রীর এক কন্যা রেখে তাকে (পূর্বের স্ত্রীকে) তালাক দেয়। এক্ষণে আমি ঐ মেয়েকে বিবাহ করতে পারব কি?


পারবে। কারণ কুরআনে যে সকল নারীকে হারাম করা হয়েছে দুলাভাইয়ের অন্য স্ত্রীর মেয়ে তার মধ্যে গণ্য নয় (নিসা ৪/২৩)।

Posted in বিবাহ বড় বোনের স্বামীর পূর্বের স্ত্রীর কন্যা কে করা যাবে কি? | Tagged

জনৈক নারীকে তার মা ও ভাই-বোন জোরপূর্বক বিবাহ দিয়েছিল। তিনি বিবাহের সময় সম্মতি দেননি এবং কাবিননামাতেও স্বাক্ষর করেননি। ৮ বছরের সংসারে তার ১টি সন্তান রয়েছে। বর্তমানেও তিনি উক্ত বিবাহের ব্যাপারে নারায। এক্ষণে উক্ত বিবাহ কি সঠিক হয়েছে? না হ’লে করণীয় কি?


সে আট বছর সংসার করেছে এবং তার সন্তান হয়েছে। এটাই তার সম্মতির প্রমাণ। অতএব বিবাহ সঠিক বলে গণ্য হবে (নববী, শরহ মুসলিম ৯/২০৪, হা/১৪১৯-এর আলোচনা দ্রষ্টব্য)। এক্ষণে দু’জনে চাইলে সংসার করতে পারে। নইলে ‘খোলা’ বা ‘তালাকে’র মাধ্যমে উভয়ে পৃথক হ’তে পারে।

Posted in বিবাহে সম্মতি না থাকলে বিবাহ বলে গন্য হবে কি? | Tagged

জনৈক আলেম বলেন, হজ্জের পূর্বে বিবাহ করা গুনাহের কাজ। একথার কোন সত্যতা আছে কি?


এমর্মে বর্ণিত হাদীছটি জাল। যেখানে বলা হয়েছে ‘যে ব্যক্তি হজ্জের পূর্বে বিবাহ করল সে গুনাহ দ্বারা সূচনা করল’ (সিলসিলা যঈফাহ হা/২২১–২২২)। অতএব এর উপর বিশ্বাস বা আমল করা যাবে না।

Posted in বিবাহ হজ্জের পূর্বে করা গুনাহের কাজ কি?, হজ্জের পূর্বে বিবাহ করা গুনাহের কাজ কি? | Tagged ,

বিবাহে সাহায্যের জন্য অনেক হিন্দু মহিলা আসে। তাদেরকে একাজে সহযোগিতা করা যাবে কি? কেননা তাদের বিবাহ অনুষ্ঠানে অনেক শিরকী কার্যকলাপ হয়ে থাকে।


সাধারণভাবে এরূপ সহযোগিতা করা যায়। তবে তাদেরকে যাকাতের মাল দেওয়া যাবে না। একবার রাসূল (ছাঃ)-এর নিকটে একটি রেশমী পোষাক হাদিয়া হিসাবে আসলে তিনি তা ওমর (রাঃ)-এর নিকটে পাঠিয়ে দেন। অতঃপর তিনি তা মক্কায় অবস্থানরত তার মুশরিক ভাইকে পরিধানের জন্য হাদিয়া … Continue reading

Posted in বিবাহে হিন্দুদের অনুষ্ঠানে সাহায্য করা যাবে কি? | Tagged , ,

বিবাহের বৈঠকে হাত তুলে সম্মিলিতভাবে দো‘আ করা যাবে কি?


বিবাহ শেষে বা ছালাত শেষে হাত তুলে সম্মিলিতভাবে দো‘আ করার রীতি রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) ও ছাহাবায়ে কেরাম থেকে প্রমাণিত নয়। কেবলমাত্র  ‘ইস্তিসক্বা’ অর্থাৎ বৃষ্টি প্রার্থনার ছালাতে এবং ‘কুনূতে নাযেলাহ’ ও ‘কুনূতে বিতরে’ ইমাম ও মুক্তাদী সম্মিলিতভাবে দু’হাত তুলে দো‘আ করতে পারেন। … Continue reading

Posted in বিবাহের বৈঠকে হাত তুলে সম্মিলিতভাবে দো‘আ করা যাবে কি? | Tagged , ,

হজ্জব্রত পালনকালে মুহরিম অবস্থায় কাউকে বিবাহ করা বা প্রস্তাব দেওয়া যাবে কি? এ ব্যাপারে ছহীহ বুখারী ও মুসলিমে বর্ণিত বিপরীতমূখী হাদীছের ক্ষেত্রে সমাধান কি?


ইহ্রাম অবস্থায় বিবাহ করা বা বিবাহের প্রস্তাব দেওয়া উভয়টি নিষিদ্ধ। এ অবস্থায় কেউ বিবাহ করলে বিবাহ শুদ্ধ হবে না। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘ইহরাম অবস্থায় কোন ব্যক্তি নিজে বিবাহ করবে না, অন্যকেও বিবাহ করাবে না এবং বিবাহের প্রস্তাবও দিবে না’ (মুসলিম হা/১৪০৯; … Continue reading

Posted in হজ্জব্রত পালনকালে মুহরিম অবস্থায় কাউকে বিবাহ করা যাবে কি? | Tagged ,

শরী‘আতে আপন দু’বোনকে একত্রে বিবাহ করা নিষিদ্ধ। কিন্তু তারা পরস্পর দুধবোন হ’লে বিবাহে কোন বাধা আছে কি?


দুই দুধবোনকে একত্রে বিবাহ করা হারাম। আল্লাহ তা‘আলা বলেন, ‘তোমাদের জন্য হারাম করা হ’ল- তোমাদের দুধ মাতা ও দুধ বোন’ (নিসা ৪/২৩)। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘বংশগত কারণে যা হারাম হয়, দুধ পানের সম্পর্কের কারণেও তা হারাম হয়’ (বুখারী হা/২৬৪৫; মুসলিম হা/১৪৪৫)।

Posted in দুধবোন কে বিবাহ করা যাবে কি?, বিবাহ দুই দুধ বোনকে একত্রে করা যাবে কি? | Tagged

আমার বিবাহে পিতা-মাতা রাযী থাকলেও সাক্ষী ছিলেন আপন দুই মামা। আর পিতৃহীন কনের মা ও ভাইয়েরা প্রথমে রাযী হয়ে বিবাহের দিনক্ষণ ঠিক করলেও পরবর্তীতে আমার আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে পিছিয়ে যায়। অতঃপর তাদের অমতেই আমাদের বিবাহ হয় এবং সেসময় কেবল মেয়ের আপন মামা উপস্থিত ছিলেন। বিয়ের দেড় বছর পার হ’লেও মেয়ে পক্ষ এই দাবীতে অনড় যে, আমার ভালো চাকুরী না হ’লে তারা মেনে নেবে না। এক্ষণে আমাদের বিবাহ কি সঠিক হয়েছে?


কনে পক্ষের অভিভাবক প্রথমে রাযী থাকলেও পরে স্রেফ ‘আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে’ রাযী না হওয়াটা গ্রহণযোগ্য নয়। তাছাড়া ছেলে ও মেয়ে উভয়ে সন্তুষ্টচিত্তে সংসার করছে বিধায় বিবাহ বাতিলের প্রশ্নই ওঠে না। রাসূল (ছাঃ) বলেন, যার দ্বীনদারী এবং সচ্চরিত্রতার ব্যাপারে তোমরা সন্তুষ্ট, … Continue reading

Posted in বিবাহে অসচ্ছলতার কারনে বাবা মা অমত থাকলে বিবাহ সুদ্ধ হবে কি? | Tagged

কনে দ্বীনদার, কিন্তু তার পরিবার মাযহাবী এবং দ্বীনের প্রতি গাফেল। এরূপ নারী বিবাহ করা যাবে কি?


এরূপ মেয়েকে বিবাহ করা যাবে। কারণ রাসূল (ছাঃ) বিয়েতে কনের দ্বীনকে অগ্রাধিকার দিতে বলেছেন (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/৩০৮২, ৩০৯০)। তবে বংশীয়ভাবে ধার্মিক পরিবার হ’লে সেটাই সর্বোত্তম। এছাড়া শিরক-বিদ‘আতে অভ্যস্ত পরিবার হ’তে দূরে থাকা যরূরী।

Posted in বিবাহ মাযহাবী পরিবারের দ্বীনদার কন্যাকে করা যাবে কি?, মাযহাবী পরিবারের দ্বীনদার কন্যাকে বিবাহ করা যাবে কি? | Tagged ,

কোন বিধবা বা তালাকপ্রাপ্তা নারীকে বিবাহ করার ক্ষেত্রে তার পূর্বস্বামীর সন্তানের খরচ বহন করা যরূরী কি? উক্ত নারী কি নতুন বিবাহের পর উক্ত সন্তানদের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করতে পারবে?


উক্ত সন্তানদের খরচ বহন করা অপরিহার্য নয়। বরং মায়ের অধীনে থাকলে অভিভাবক হিসাবে মা তাদের খরচ বহন করার ব্যাপারে দায়িত্বশীল হবে। তবে মা যেহেতু  ব্যক্তির স্ত্রী হিসাবে তার নিয়ন্ত্রণে রয়েছে, সেহেতু অশেষ ছওয়াবের আশায় উক্ত সন্তানদের খরচ বহন করা উচিৎ। … Continue reading

Posted in বিধবাকে বিবাহ করার ক্ষেত্রে তার পূর্বস্বামীর সন্তানের খরচ বহন করা যরূরী কি | Tagged , , ,

স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া কেবল ইহসানের নিয়তে কোন ইয়াতীম, তালাকপ্রাপ্তা বা অসহায় নারীকে গোপনে বিবাহ করা জায়েয হবে কি? এছাড়া প্রথম স্ত্রীকে খুশী রাখতে ২য় স্ত্রী যদি বিভিন্ন ক্ষেত্রে স্বেচ্ছায় ছাড় দেয়, তা গ্রহণ করলে গুনাহগার হতে হবে কি?


প্রথমা স্ত্রীর অনুমতি নেওয়া শর্ত নয়। সামর্থ্য থাকলে একজন পুরুষ চারটি পর্যন্ত বিয়ে করার অধিকার রাখে (নিসা৪/৩; বুখারী হা/৪৮৭৮)। তবে সকল স্ত্রীর প্রতি ইনছাফ রাখতে হবে এবং কারো অধিকার আদায়ে কোনরূপ ত্রুটি করা যাবে না। কারণ আখেরাতে এর পরিণাম হবে … Continue reading

Posted in বিবাহ প্রথমা স্ত্রীর অনুম‌তি ছাড়া করা যা‌বে কি? | Tagged

বিবাহের পূর্বে দেনমোহর নিয়ে অভিভাবকের সাথে পাত্রের বনিবনা না হওয়ায় বিবাহ ভেঙ্গে যায়। পরে তারা পালিয়ে গিয়ে কাযী অফিসের মাধ্যমে বিবাহ করে। কিছুদিন পর যুবকটি তাকে তিন মাসে তিন তালাক দেয়। এক্ষণে তারা পুনরায় সংসার করতে ইচ্ছুক। তাদের জন্য করণীয় কি?


বর্ণনা অনুযায়ী উক্ত বিবাহ সঠিক হয়নি। সেকারণ তালাক প্রযোজ্য হবে না। কেননা কন্যার অভিভাবকের অনুমতি ব্যতীত বিবাহ বৈধ নয় (ইবনু মাজাহ হা/১৮৭৯; মিশকাত হা/৩১৩১, ৩১৩৭)। অতএব যতদিন তারা বসবাস করেছে, ততদিন তারা ব্যভিচারে লিপ্ত ছিল। এক্ষণে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হ’তে … Continue reading

Posted in অ‌ভিভাব‌কের বিনা অনুম‌তি‌তে বিবাহ কর‌লে বিবাহ হবে কী এবং সম্পদ পা‌বে কী?, অ‌ভিভাবক বা ওলী না থাক‌লে করণীয়!, তালাক দেওয়ার পরে পূনরায় সংসার করতে চাইলে করণীয় কি? | Tagged , ,

নিজ মায়ের সৎ খালাকে বিবাহ করা যাবে কি?


না। কারণ মায়ের সৎ খালা তার আপন খালার ন্যায়। কারণ হাদীছে এসেছে, الْخَالَةُ بِمَنْزِلَةِ الأُمِّ ‘খালা মায়ের মর্যাদা সম্পন্ন’ (বুখারী হা/২৬৯৯; মিশকাত হা/৩৩৭৭)। অতএব নানী হিসাবে তিনি মাহরাম পর্যায়ভুক্ত (নিসা ৪/২৩; ফিক্বহুস সুন্নাহ ২/৭৫)।

Posted in মায়ের সৎ খালাকে বিবাহ করা যাবে কি? | Tagged

সমাজে কিছু যুবক রয়েছে, যারা শিক্ষিত হ’লেও বেকার হওয়ায় বিবাহ করতে পারে না। অভিভাবকরাও এ ব্যাপারে একেবারেই উদাসীন। চরম ফেতনার যুগে এই শ্রেণীর পাপে জড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা বেশী থাকে। এদের জন্য করণীয় কি?


দারিদ্র্য বিবাহের জন্য বাধা নয়। আল্লাহ বলেন, ‘তোমাদের মধ্যে যারা বিবাহহীন আছে, তাদের বিবাহ সম্পাদন করে দাও … তারা যদি নিঃস্ব হয়, তবে আল্লাহ নিজ অনুগ্রহে তাদেরকে স্বচ্ছল করে দিবেন’ (নূর ২৪/৩২)। রাসূল (ছাঃ) বলেন, তিন ব্যক্তিকে সাহায্য করা আল্লাহ স্বীয় … Continue reading

Posted in বিবাহ দারিদ্র্যতা থাকলে করা যাবে কি? | Tagged

একটি মেয়ে একটি ছেলের সাথে পালিয়ে বিবাহ করে সংসার করছে। পিতা মেয়েকে ত্যাজ্য করেছে। উক্ত বিবাহ ও ত্যাজ্যকরণ সঠিক হয়েছে কি? এক্ষণে পিতার করণীয় সম্পর্কে শরী‘আতের নির্দেশনা কি?


বৈধ অভিভাবকের অনুমতি ও দু’জন ন্যায়বান সাক্ষী ছাড়া সম্পন্ন হওয়ায় উক্ত বিবাহ বাতিল (ছহীহ ইবনু হিববান হা/৪০৭৫; আবুদাঊদ হা/২০৮৩ প্রভৃতি; মিশকাত হা/৩১৩১)। তবে এজন্য সন্তানকে ত্যাজ্য করার কোন বিধান শরী‘আতে নেই। কোন পিতা এরূপ করে থাকলে তা গ্রহণযোগ্য হবে না। এরূপ … Continue reading

Posted in বিবাহ পালিয়ে করার কারনে সন্তানকে তাজ্য করা যাবে কি? | Tagged

জনৈক তালাক প্রাপ্তা মহিলার আরেকজন পুরুষের সাথে বিবাহ হয়েছে। মহিলাটির আগে থেকে একটি মেয়ে এবং পুরুষটির একটি ছেলে রয়েছে। উভয়ের মাঝে বিবাহ জায়েয হবে কি?


যেহেতু তারা উভয়ে এক মায়ের ও এক পিতার সন্তান নয়, সেহেতু তাদের বিবাহ বৈধ। আল্লাহ বলেন, ‘এদের ব্যতীত তোমাদের জন্য সকল নারী হালাল করা হয়েছে এই শর্তে যে, তোমরা তাদেরকে মালের বিনিময়ে কামনা করবে বিবাহের উদ্দেশ্যে, ব্যভিচারের উদ্দেশ্যে নয়’ (নিসা ৪/২৪)।

Posted in সত ভাই বোনে বিবাহ জায়েয হবে কি? | Tagged

বিবাহের খুৎবা বর নিজেই পড়তে পারবে কি? এছাড়া উকীল পিতার কোন স্থান শরী‘আতে আছে কি?


বিবাহের খুৎবা বর নিজেই পড়তে পারে। ইবনু হাবীব বলেন, তারা উত্তম মনে করতেন যে, বর প্রথমে আল্লাহর প্রশংসা ও রাসূল (ছাঃ)-এর প্রতি দরূদ পাঠ করবে (খুৎবা পাঠ করবে) অতঃপর কনেকে বিবাহের প্রস্তাব দিবে (ইবনু বাত্ত্বাল, শারহুল বুখারী ১৩/২৬০)। ইবনু কুদামা … Continue reading

Posted in বিবাহের খুৎবা বর নিজেই পড়তে পারবে কি? | Tagged

বিভিন্ন কারণে গত ৯ বছরে ৬ বার আমার স্ত্রীর অপারেশন করতে হয়েছে। খুবই সাবধানে চলাফেরা করতে হয়। সে আমার চাহিদা পূরণে অক্ষম। আমিও তার সেবায় নিয়োজিত। এমতাবস্থায় স্ত্রী কষ্ট পাওয়া সত্ত্বেও দ্বিতীয় বিবাহ করা যাবে কি?


যাবে। বরং এরূপ পরিস্থিতিতে ক্ষমতা থাকলে দ্বিতীয় বিবাহ করাই উত্তম (নিসা ৪/৩)। এক্ষেত্রে স্ত্রীরও উচিত স্বামীকে দ্বিতীয় বিবাহের জন্য উৎসাহিত করা। যেমন উম্মুল মুমিনীন সাওদা (রাঃ) বার্ধক্যকালে রাসূল (ছাঃ) কর্তৃক তাঁর জন্য নির্ধারিত দিনটি আয়েশা (রাঃ)-এর জন্য ছেড়ে দেন (আবুদাঊদ হা/২১৩৫, মিশকাত … Continue reading

Posted in স্ত্রী কষ্ট পাওয়া সত্ত্বেও দ্বিতীয় বিবাহ করা যাবে কি? | Tagged

জনৈক যুবকের যে পরিমাণ সম্পদ আছে, তাতে হজ্জ করা সম্ভব। কিন্তু তার বিবাহেরও বয়স হয়েছে। এক্ষণে কোনটিকে অগ্রাধিকার দেওয়া তার জন্য কর্তব্য হবে?


বিবাহ না করার কারণে গুনাহে লিপ্ত হওয়ার আশংকা করলে প্রথমে বিবাহ করবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘হে যুব সমাজ! তোমাদের মধ্যে যে বিবাহ করতে সক্ষম, সে যেন বিবাহ করে। কেননা বিবাহ চক্ষুকে অবনমিত ও লজ্জাস্থানকে সংযত রাখে’ (মুত্তাফাক্ব আলাইহ, মিশকাত হা/৩০৮০ ‘বিবাহ’ … Continue reading

Posted in হজ্জ নাকী বিবাহ আগে করতে হবে? | Tagged ,

রাসূল (ছাঃ) খাদীজা (রাঃ)-কে বিবাহের সময় মোহর হিসাবে কি দিয়েছিলেন? তার পরিমাণ কত ছিল? উক্ত বিবাহ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাই।


মুহাম্মাদ (ছাঃ) মোহরানা স্বরূপ খাদীজা (রাঃ)-কে বিবাহের মোহর স্বরূপ ২০টি উট প্রদান করেন। এ সময় খাদীজা ছিলেন মক্কার শ্রেষ্ঠ ধনী ও সম্ভ্রান্ত মহিলা এবং সর্বোত্তম চরিত্রের অধিকারিণী হিসাবে ‘তাহেরা’ (পবিত্রা) নামে খ্যাত। তখন তাঁর বয়স ছিল ৪০ এবং মুহাম্মাদের বয়স … Continue reading

Posted in রাসূল (ছাঃ) খাদীজা (রাঃ)-কে বিবাহের সময় মোহর হিসাবে কি দিয়েছিলেন? | Tagged

আমি একটি মেয়ের সাথে তাকে বিবাহ করব বলে ওয়াদাবদ্ধ হই। কিন্তু আমার পিতা-মাতা এতে রাযী হচ্ছেন না। এক্ষণে আমি উক্ত ওয়াদা রক্ষা করব, নাকি পিতা-মাতার নির্দেশ শুনব?


বিবাহের পূর্বে এরূপ ওয়াদাবদ্ধ হওয়ার কোন সুযোগ ইসলামে নেই। তাই পিতা-মাতার নির্দেশ মেনে নিতে হবে। কেননা শরী‘আত বিরোধী নির্দেশ ছাড়া অন্য সকল ব্যাপারে পিতা-মাতার আনুগত্য করা অপরিহার্য (নিসা ৪/৩৬; আনকাবূত ২৯/৮; ইসরা ১৭/২৩, ২৪, লোকমান ৩১/১৪)। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘পিতা-মাতার সন্তুষ্টিতে আল্লাহর সন্তুষ্টি … Continue reading

Posted in পিতা-মাতার কথা শুনবো নাকী ওয়াদা রক্ষা করব? | Tagged

বিবাহের ক্ষেত্রে বর্তমানে বৃহৎ আকারে ওয়ালীমা করার যে সামাজিক রীতি প্রচলিত রয়েছে, এরূপ ব্যয়বহুল অনুষ্ঠান কি অপচয়ের অন্তর্ভুক্ত হবে?


শরী‘আতে ওয়ালীমা করার জন্য জোর তাকীদ এসেছে। তাই সামর্থ থাকলে এরূপ করায় বাধা নেই। আল্লাহ তা‘আলা বান্দার উপর তাঁর প্রদত্ত নে‘মতের নিদর্শন দেখতে ভালোবাসেন (আবুদাউদ হা/;৪০৬৩; মিশকাত হা/৪৩৫২; ছহীহুল জামে‘ হা/২৫৪)। রাসূল (ছাঃ) একটি বকরী দিয়ে হ’লেও ওয়ালীমা করার নির্দেশ দিয়েছেন (বুখারী … Continue reading

Posted in অনুষ্ঠান বিবাহের ক্ষেত্রে অপচয়ের অন্তর্ভুক্ত হবে কি?, বিবাহে ব্যয়বহুল অনুষ্ঠান কি অপচয়ের অন্তর্ভুক্ত হবে? | Tagged ,

পাত্র বিদেশে থাকা অবস্থায় তাকে শরী‘আতসম্মত পন্থায় বিবাহ করার পদ্ধতি কি?


বিবাহ সামনা সামনি হওয়াই বিধেয়। একান্ত বাধ্যগত কারণে  দেশী ও প্রবাসীর মধ্যে বিবাহের ক্ষেত্রে ক্বাযী ছাহেব সাধারণ বিবাহের ন্যায় প্রথমে বিবাহের খুৎবা পাঠ করবেন, যা দুই পক্ষ শুনবে (দারেমী হা/২২০২; মিশকাত হা/৩১৪৯)। অতঃপর অভিভাবক কর্তৃক মেয়ের সম্মতি নিয়ে টেলিফোন, মোবাইল বা … Continue reading

Posted in বি‌য়ে বৈধ হ‌বে কী?, বি‌য়ে‌তে সম্মতির জন্য পিতা ও সাক্ষীদেরকে মেয়ের কাছে যাওয়া কি শরী‘আতসম্মত?, মোবাইলের মাধ্যমে বিবাহ বৈধ হবে কি? | Tagged