Tag Archives: মৃত্যু

মানুষ মারা গেলে তার রূহকে ইল্লীন অথবা সিজ্জীনে রাখা হয়। আবার শুনেছি মৃত মানুষ তার আত্মীয়-স্বজনের কান্না, কথাবার্তা, তাকে গোসল করানো, জানাযা পড়ানো ইত্যাদি সব শুনতে পায়। সে সব বুঝতে পারে শুধু কথা বলতে পারে না। আত্মা যদি ইল্লীন অথবা সিজ্জীনে থাকে তাহ’লে এসব শুনতে পায় কিভাবে?


মৃত্যুর পর সৎ বান্দাদের রূহ ইল্লিয়ীনে এবং পাপীদের রূহ সিজ্জীনে অবস্থান করে। অতঃপর তাদের আমল অনুযায়ী তাদের রূহের উপর শান্তি অথবা শাস্তি প্রদান করা হয় (গাফের ৪০/৪৫–৪৬; আবুদাঊদ হা/৪৭৫৫; মিশকাত হা/১৩১)। এছাড়া কবরে ব্যক্তির দেহে পুনরায় রূহ ফিরিয়ে দেওয়া হয় … Continue reading

Posted in মৃত মানুষ আত্মীয়-স্বজনের কান্না; কথাবার্তা; তাকে গোসল করানো ইত্যাদি সব শুনত | Tagged ,

মৃত ব্যক্তিকে দাফনের পর তার মাথার নিকটে সূরা ফাতিহা বা সূরা বাক্বারার প্রথম ও শেষ আয়াত পাঠ করার ব্যাপারে শরী‘আতের কোন নির্দেশনা আছে কি?


এ মর্মে বর্ণিত হাদীছ ও আছারগুলি খুবই যঈফ (আলবানী, আহকামুল জানায়েয ১/১৩, ১৯১-১৯২; যঈফাহ হা/৪১৪০-এর আলোচনা দ্রষ্টব্য)। অতএব এগুলি আমলযোগ্য নয়।

Posted in মৃত ব্যক্তির নিকটে সূরা বাক্বারার প্রথম ও শেষ আয়াত পাঠ করা যাবে কি? | Tagged ,

অনেক সময় মানুষ মৃত ব্যক্তিকে স্বপ্ন দেখে। যারা সেখানে তাদের অবস্থা, জীবিতদের প্রতি নানা উপদেশ, সতর্কবাণী ইত্যাদি দিয়ে থাকে। স্বপ্নের মাধ্যমে এসব খবরাখবরের কোন ভিত্তি আছে কি? এছাড়া মৃত্যুর পর মানুষ স্বপ্নে দেখা দিতে পারে কি?


পরহেযগার ও সত্যবাদী মানুষের স্বপ্ন সত্য হ’তে পারে। কারণ রাসূল (ছাঃ) বলেন, যখন ক্বিয়ামত নিকটবর্তী হবে, তখন (খাঁটি) মুসলিমের অধিকাংশ স্বপ্ন মিথ্যা ও ভ্রান্ত হবে না। তোমাদের মধ্যকার অধিক সত্যবাদী লোক সর্বাধিক সত্য স্বপ্নদ্রষ্টা হবে। তিনি বলেন, মানুষের স্বপ্ন তিন … Continue reading

Posted in মৃত্যুর পর মানুষ স্বপ্নে দেখা দিতে পারে কি? | Tagged ,

বুখারী ৪০২৪ নং হাদীছে উল্লেখ রয়েছে ওছমান (রাঃ)-এর হত্যাকান্ডের পর আর কোন বদরী ছাহাবী জীবিত ছিলেন না। কিন্তু ইতিহাসে প্রমাণিত যে আলী (রাঃ) চতূর্থ খলীফা হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। এর সমাধান কি?


এখানে প্রশ্নকারীর বুঝতে ভুল হয়েছে। হাদীছটি বর্ণনা করেছেন প্রখ্যাত তাবেঈ সাঈদ ইবনু মুসাইয়িব (১৫-৯৪ হি.)। এখানে তিনি বলেন যে, প্রথম ফিৎনা অর্থাৎ ৩৫ হিজরীতে ওছমান হত্যাকান্ডের পর বদরী ছাহাবীদের আর কেউ বেঁচে ছিলেন না। দ্বিতীয় ফিৎনা অর্থাৎ ৬৩ হিজরীতে হার্রার … Continue reading

Posted in ওছমান (রাঃ)-এর হত্যাকান্ডের পর আর কোন বদরী ছাহাবী জীবিত ছিলেন কি? | Tagged ,

মহিলা ও পুরুষের কাফনের কাপড়ের সংখ্যায় কোন পার্থক্য আছে কি?


মহিলা ও পুরুষের কাফনের কাপড়ে কোন পার্থক্য নেই। উভয়কে তিনটি কাপড় দিয়ে কাফন দিতে হবে (মুত্তাফাক্ব আলাইহ, মিশকাত হা/১৬৩৫)। মহিলাদের জন্য প্রচলিত পাঁচ কাপড়ের হাদীছ যঈফ (আবূদাঊদ হা/৩১৫৭, সনদ যঈফ)।

Posted in প্রশ্নোত্তর | Tagged , ,

আমার মা পাঁচ বছর পূর্বে মারা গেছেন। আমি তার মুছল্লায় (জায়নামাযে) ছালাত আদায় করি এবং নিয়ত করি যে, এতে আমার যে ছাওয়াব হবে তার সমপরিমাণ আমার মায়ের জন্যও যেন হয়। এরূপ নিয়ত করা কি শরী‘আত সম্মত?


এরূপ নিয়ত শরী‘আত সম্মত নয়। কারণ দৈহিক ইবাদত অন্যের উপকারে আসে না। আল্লাহ তা‘আলা বলেন, ‘মানুষের জন্য ততটুকুই প্রাপ্য, যতটুকুর জন্য সে চেষ্টা করে’ (নাজম ৫/৩৯)। তবে নির্দিষ্ট কিছু নেকীর কাজ রয়েছে যা একজন পালন করে অন্যজনকে পৌঁছাতে পারে। যেমন- (১) … Continue reading

Posted in মৃত মায়ের জন্য ছালাত আদায় করা শরী‘আত সম্মত কি? | Tagged ,

‘আল্লাহ তা‘আলা পানিতে ৬০০ ও স্থলভাগে ৪০০ মোট এক হাযার উম্মত সৃষ্টি করেছেন। এর মধ্যে সর্বপ্রথম মৃত্যুবরণ করবে ফড়িং’ মর্মে বর্ণিত হাদীছটি সত্যতা আছে কি?


উক্ত মর্মে প্রচলিত বর্ণনাটি মওযূ‘ (ইবনু হিববান, আল-মাজরূহীন ২/২৫৭; ইবনুল জাওযী, আল-মাওযূ‘আত ৩/১৪; হায়ছামী, মাজমাউয যাওয়ায়েদ হা/১২৪৩৩)।

Posted in ফড়িং সর্বপ্রথম মৃত্যু বরন করবে মর্মে বর্ণিত হাদীছটি সত্যতা আছে কি? | Tagged

আমার ভাই একসময় পাগল হয়ে যায় এবং কিছুদিন পর পাগল থাকা অবস্থায় গলায় দড়ি দিয়ে মৃত্যুবরণ করে। সেকি আল্লাহর নিকটে ক্ষমা পাবে?


সে ক্ষমা পাবে ইনশাআল্লাহ। কারণ তিন ব্যক্তির উপর থেকে শরী‘আতের বিধান পালনের বাধ্যবাধকতা উঠিয়ে নেওয়া হয়েছে, যার মধ্যে পাগল অন্যতম (আবুদাঊদ হা/৪৪০১; মিশকাত হা/৩২৮৭)। কিয়ামতের দিন তাদের কৃতকর্ম সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে তারা বলবে, হে আল্লাহ আমাদের কাছে ইসলামের বিধান এসেছিল। … Continue reading

Posted in পাগল থাকা অবস্থায় আত্মহত্যা করলে সেকি আল্লাহর নিকটে ক্ষমা পাবে? | Tagged ,

জনৈক ব্যক্তি তার ৪ মেয়েকে বঞ্চিত করে সমস্ত সম্পদ ছেলের নামে লিখে দিয়েছেন। মৃত্যুকালে একজন মেয়ে জামাই এ ব্যাপারে তাকে ভীতি প্রদর্শন করলে তিনি ক্রুদ্ধ হন। এক্ষণে এরূপ ভীতি প্রদর্শন জায়েয হয়েছে কি?


এভাবে হক কথা বলায় শ্বশুর অসন্তুষ্ট হ’লে তাতে দোষ নেই। তবে বাড়াবাড়ি করে থাকলে সেটা ঠিক হয়নি। কন্যা সন্তানদের বঞ্চিত করায় পিতা অবশ্যই গুনাহগার হবেন। আল্লাহ বলেন, আল্লাহ তোমাদের সন্তানদের (মধ্যে মীরাছ বণ্টনের) ব্যাপারে তোমাদেরকে নির্দেশ দিচ্ছেন যে, এক পুত্রের … Continue reading

Posted in জমি সঠিক ভাবে বন্ঠন না করাই মৃত্যুকালে ভয় দেখানো ঠিক হয়েছে কি ? | Tagged ,

মাইয়েতকে গোসল দিয়ে কাফন পরানোর পর পুনরায় মানুষকে দেখানো যাবে কি?


যাবে। আয়েশা (রাঃ) বলেন, ওছমান বিন মাযঊন (রাঃ) মারা গেলে এবং তাঁকে গোসল করিয়ে কাফনের কাপড় পরানো হ’লে রাসূল (ছাঃ) তার নিকট প্রবেশ করলেন এবং মৃত ওছমানকে চুমু দিলেন যখন তার দু’চোখ দিয়ে অশ্রু ঝরছিল (বুখারী হা/১২৪৩; আবুদাঊদ হা/৩১৬৩; ইরওয়া ৩/১৫৭)। … Continue reading

Posted in মাইয়েতকে গোসল দিয়ে কাফন পরানোর পর পুনরায় মানুষকে দেখানো যাবে কি? | Tagged , , ,

আমার বৃদ্ধ পিতা-মাতা নিজস্ব অর্থ দ্বারা কাফনের কাপড় ক্রয় করে রাখতে চান। এটা শরী‘আতসম্মত হবে কি?


মৃত্যুর পূর্বে কাফনের কাপড় কিনে রাখায় শারঈ কোন বাধা নেই। আবু সাঈদ খুদরী (রাঃ) হ’তে বর্ণিত, যখন তাঁর মৃত্যু উপস্থিত হ’ল তখন তিনি নতুন কাপড় আনালেন এবং পরিধান করে বললেন, আমি রাসূলুল্লাহ (ছাঃ)-কে বলতে শুনেছি, ‘মৃত ব্যক্তিকে ক্বিয়ামতের দিন সেই … Continue reading

Posted in মৃত্যুর পূর্বে নিজস্ব অর্থ দ্বারা কাফনের কাপড় ক্রয় করে রাখা যাবে কি? | Tagged

হাদীছে বর্ণিত নিষিদ্ধ তিন সময়ে জানাযার ছালাত আদায় ও লাশ দাফন করা যাবে কি?


যাবে না। উক্ববা বিন ‘আমের (রাঃ) থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, রাসূল (ছাঃ) তিনটি সময়ে আমাদেরকে জানাযার ছালাত আদায় ও মৃত ব্যক্তিকে দাফন করতে নিষেধ করতেন (১) যখন সূর্যোদয় আরম্ভ হয়, তখন থেকে সূর্য উপরে উঠা পর্যন্ত; (২) ঠিক দ্বিপ্রহরের সময়, … Continue reading

Posted in জানাযার ছালাত আদায় ও লাশ দাফন নিষিদ্ধ তিন সময়ে করা যাবে কি? | Tagged , ,

বজ্রপাতে মৃত ব্যক্তি কি শহীদের মর্যাদা পাবেন? তাদের লাশ চুরি হওয়ার সম্ভাবনা বেশী থাকে। এক্ষণে তা সংরক্ষণে করণীয় কি?


এরূপ মুমিন ব্যক্তি শহীদের মর্যাদা পাবেন ইনশাআল্লাহ। কারণ যারা পুড়ে মারা যান, তারা শহীদ হিসাবে গণ্য হন। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, আল্লাহর রাস্তায় জিহাদকারী ছাড়াও আরও সাত শ্রেণীর মানুষ শাহাদতের মর্যাদা লাভ করবে। তারা হ’ল : (১) মহামারীতে মৃত (মুমিন) ব্যক্তি … Continue reading

Posted in বজ্রপাতে মৃত ব্যক্তি কি শহীদের মর্যাদা পাবেন? | Tagged , ,

মৃত ব্যক্তির জন্য ৩, ৫, ৯, ৪০ দিন পালন করার ব্যাপারে শরী‘আতের বিধান কি?


প্রচলিত এসব অনুষ্ঠান রাসূল (ছাঃ)-এর যুগে ছিল না। অতএব এগুলি বিদ‘আতের অন্তর্ভুক্ত এবং অবশ্য বর্জনীয়। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, ‘যে ব্যক্তি আমাদের শরী‘আতে এমন কিছুর উদ্ভব ঘটালো, যা তার মধ্যে নেই, তা প্রত্যাখ্যাত’ (মুত্তাফাক্ব ‘আলাইহ, মিশকাত হা/১৪০)। জারীর বিন আব্দুল্লাহ আল-বাজালী (রাঃ) … Continue reading

Posted in ৪০ দিন পালন করা যাবে কি? | Tagged ,

মৃত্যুর পর আত্মার কল্যাণ হবে এই বিশ্বাসে জীবিতাবস্থায় সমাজে ‘খানা’র আয়োজন করা যাবে কি?


এদেশে ‘খানা’র আয়োজন করা হয় মৃতের কল্যাণের জন্য। যা একটি বিদ‘আতী প্রথা। এক্ষণে জীবিত অবস্থায় উক্ত খানার আয়োজন করা একটি বিদ‘আতের সঙ্গে আরেকটি বিদ‘আতের সংযুক্তি মাত্র। যা আদৌ শরী‘আত সম্মত নয়। বরং আখেরাতে কল্যাণের লক্ষ্যে মুমিনদের খাওয়ানো সহ যেকোন নেকীর … Continue reading

Posted in মৃত্যুর পর আত্মার কল্যাণ হওয়ায় সমাজে ‘খানা’র আয়োজন করা যাবে কি? | Tagged

কোন মুসলিম ব্যক্তি মারা যাওয়ার খবর শুনলে ইন্নালিল্লাহি…, আর কোন অমুসলিম মারা যাওয়ার সংবাদে ‘ফী নারে জাহান্নাম’ বলতে হবে কি?


মুসলিম ব্যক্তি মারা গেলে ইন্নালিল্লাহি…বলতে হবে (বাক্বারাহ ২/১৫৬)। কিন্তু অমুসলিমদের মৃত্যুতে ‘ফী নারে জাহান্নাম’ বলতে হবে এটা নিতান্তই বানোয়াট কথা। তবে অমুসলিমরা নিশ্চিতভাবেই জাহান্নামে যাবে। আল্লাহ বলেন, আর যে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলকে অমান্য করে, তার জন্য রয়েছে জাহান্নামের আগুন। তাতে … Continue reading

Posted in অমুসলিম মারা যাওয়ার সংবাদে ‘ফী নারে জাহান্নাম’ বলতে হবে কি? | Tagged ,

মৃত ব্যক্তিকে কবরস্থ করার পর মানুষ ৪০ কদম পথ অতিক্রম করতেই মৃতের হিসাব শুরু হয়। বহুল প্রচলিত এই কথাটির কোন সত্যতা আছে কি?


এরূপ কোন বর্ণনা পাওয়া যায় না। বরং মৃত্যুর পর থেকেই হিসাবের কার্যক্রম শুরু হয়ে যায় (বুখারী হা/১৩৭৯, মুসলিম হা/২৮৬৬; মিশকাত হা/১২৭; আহমাদ, আবুদাঊদ, মিশকাত হা/১৬৩০)। সেকারণ দাফনের ব্যস্ততা শেষ হওয়ার পর রাসূল (ছাঃ) বলতেন, ‘তোমরা তোমাদের ভাইয়ের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা কর … Continue reading

Posted in কবর দেওয়ার পর ৪০ কদম অতিক্রম করার পর হিসাব শুরু হয় কি? | Tagged ,

’হায়াতুন্নবী’ সম্পর্কিত বিশুদ্ধ আক্বীদা ও শিরকী আক্বীদা কি কি?


‘হায়াতুন্নবী’ সম্পর্কিত বিশুদ্ধ আক্বীদা হ’ল, রাসূল (ছাঃ) সহ সকল নবী মৃত্যুবরণ করেছেন। তাঁদের রূহ ‘আলমে বারযাখে’ জীবিত আছে। যা দুনিয়াবী জীবন থেকে পৃথক। যে জগত সম্পর্কে আল্লাহ ব্যতীত কেউ অবগত নন (আলবানী, ছহীহাহ হা/৬২১–এর আলোচনা)। আল্লাহ বলেন, ‘আর তাদের (মৃতদের) সামনে … Continue reading

Posted in হায়াতুন্নবী’ সম্পর্কিত বিশুদ্ধ আক্বীদা ও শিরকী আক্বীদা কি কি? | Tagged ,

সুলতান সোলায়মান নামক একটি টিভি সিরিয়ালে সূরা যুমারের ৪২ আয়াতের ভিত্তিতে যিম্মী তথা অঙ্গীকারাবদ্ধ কোন ব্যক্তিকে ঘুমন্ত অবস্থায় হত্যা করা জায়েয ফৎওয়া দেওয়া হয়েছে। উক্ত আয়াতের সঠিক ব্যাখ্যা কি?


এটি আদৌ জায়েয নয়। কেননা আয়াতটির অর্থ হ’ল, ‘আল্লাহ জীবসমূহের প্রাণ হরণ করেন তাদের মৃত্যুর সময় এবং যারা মরেনি তাদের নিদ্রার সময়। তারপর যার জন্য তিনি মৃত্যুর ফায়ছালা করেন, তার প্রাণ তিনি রেখে দেন এবং অন্যগুলো ফিরিয়ে দেন একটি নির্দিষ্ট … Continue reading

Posted in অঙ্গীকারাবদ্ধ কোন ব্যক্তিকে ঘুমন্ত অবস্থায় হত্যা করা জায়েয কি? | Tagged

জনৈক আলেম বলেন, কারো মৃত্যুর খবরে প্রথমে আল-হামদুলিল্লাহ বলতে হবে তারপর ইন্নালিল্লাহ বলবে। একথার কোন ভিত্তি আছে কি?


কারো মৃত্যুতে বা কোন বিপদে ‘ইন্না লিল্লাহি… রাজেঊন’ বলাই যথেষ্ট (বাক্বারাহ ২/১৫৬)। এছাড়া এক্ষেত্রে ‘আল্লাহুম্মা আজিরনী ফী মুছীবাতী…’ দো‘আটিও পাঠ করা যাবে (বাক্বারা ২/১৫৬; মুসলিম হা/৯১৮, মিশকাত হা/১৬১৮)। তবে একটি হাদীছে এসেছে যে, জনৈক ব্যক্তি স্বীয় সন্তানের মৃত্যুতে ‘আল-হামদুলিল্লাহ’ পাঠ করে তাকদীরের … Continue reading

Posted in মৃত্যুর খবরে প্রথমে আল-হামদুলিল্লাহ বলতে হবে কি? | Tagged

মাইয়েতকে দাফন করার পর লাশ যাতে শিয়াল-কুকুরে তুলে না ফেলে এজন্য লোহার খাঁচা বা প্লাস্টিক জাতীয় কিছু কবরের উপরে দেওয়া যাবে কি?


নিরাপত্তাজনিত কারণে এরূপ করা যায়। তবে সাধারণ অবস্থায় কবরকে উঁচু ও পাকা করা যাবে না (মুসলিম হা/৯৭০)।

Posted in লাশ নিরাপত্তাজনিত কারণে লোহার খাঁচা কবরের উপরে দেওয়া যাবে কি? | Tagged ,

আবুদ্দারদা (রাঃ) বলেন, আমি এমন তিনটি জিনিস ভালোবাসি, লোকে যা ঘৃণা করে। দরিদ্রতা, অসুস্থতা এবং মৃত্যু। কারণ দরিদ্রতা মানুষকে বিনয়ী করে, অসুস্থতায় গুনাহ মোচন হয় এবং মৃত্যুর ফলে আল্লাহর সাথে সাক্ষাতের সুযোগ হয়। এ বর্ণনার সত্যতা আছে কি?


ঘটনাটি সিয়ারু আ‘লামিন নুবালা, ত্বাবাকাতুল কুবরা, তাযকিরাতুল হুফ্ফায, হিলইয়াতুল আউলিয়া, ছিফাতুছ ছাফওয়া প্রভৃতি গ্রন্থে বর্ণিত হয়েছে। তবে এর সনদ যঈফ (যাহাবী, তাহকীক সিয়ারু আ‘লামিন নুবালা ২/৩৪৯; হিলয়াতুল আওলিয়া ১/২১৭)। তাছাড়া কথাগুলো হাদীছ বিরোধী। কারণ রাসূল (ছাঃ) দরিদ্রতা থেকে আল্লাহর নিকট আশ্রয় … Continue reading

Posted in দরিদ্রতা অসুস্থতা এবং মৃত্যু রাসূল (সা:) ভালোবাসতেন কি? | Tagged

আমাদের দেশে অধিকাংশ জানাযার পূর্বে লাশ সামনে রেখে ইমাম ছাহেব বা সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিরা কিছু বক্তব্য পেশ করে থাকেন। এরূপ করা শরী‘আতসম্মত কি?


এসময় কেবল ইমাম ছাহেব উপস্থিত ব্যক্তিদেরকে লক্ষ্য করে ঈমান বর্ধক কিছু সংক্ষিপ্ত কথা বলতে পারেন (বুখারী হা/১৩৬২; মিশকাত হা/৮৫, ১৬০৩) এবং উত্তরাধিকারীদের মধ্য হ’তে মাইয়েতের ঋণ পরিশোধ বিষয়ে বলতে পারেন (বুখারী, মিশকাত হা/২৯০৯)। আর জানাযার আগে বা পরে সকলে ব্যক্তিগতভাবে মাইয়েতের গুণাবলী বর্ণনা … Continue reading

Posted in লাশ সামনে রেখে ইমাম বক্তব্য পেশ করতে পারবেন কি? | Tagged

মাসিক চলাকালীন সময়ে কোন মহিলা কোন মৃত মহিলাকে গোসল দিতে পারবে কি?


পারবে। কারণ মাইয়েতকে গোসল করোনোর জন্য পবিত্র থাকা শর্ত নয় (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমা ৮/৩৬৯; উছায়মীন, লিকাউল বাবিল মাফতূহ ১/৭৮; নববী, শারহুল মুহাযযাব ৫/১৪৫)। ইবনু কুদামাহ বলেন, হায়েযা ও অপবিত্র ব্যক্তি কর্তৃক মাইয়েতকে গোসল দেওয়া ও তার চোখ বন্ধ করা বৈধ হওয়ার … Continue reading

Posted in মাসিক চলাকালীন সময়ে কোন মহিলা কোন মৃতকে গোসল দিতে পারবে কি? | Tagged ,

মৃত গবাদিপশুকে কোথাও পুঁতে দিতে হবে, না কবর খুঁড়ে উত্তমভাবে দাফন করতে হবে?


গবাদি পশুকে উত্তমরূপে মাটিতে পুঁতে দিতে হবে (মায়েদাহ ৫/৩১)। তবে এটি আবশ্যক নয়। বাইরে পড়ে থাকাতে মানুষের কষ্ট হ’লে পুঁতে দিবে। এক্ষেত্রে মানুষের ন্যায় দাফন কার্য সম্পাদন করার প্রয়োজন নেই। কারণ শরী‘আতের বিধান কেবল মানুষের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমাহ ৮/৪৪৪-৪৪৫)।

Posted in মৃত গবাদিপশুকে কোথাও পুঁতে দেওয়া যায়? | Tagged

বড়শি দিয়ে মাছ ধরার সময় টোপের খাবার হিসাবে জীবন্ত কেঁচো যুক্ত করে দেই। এটি অপ্রয়োজনে জীব হত্যার পাপ হিসাবে গণ্য হবে কি?


পাপ হবে না। কারণ কেঁচোকে প্রয়োজনেই ব্যবহার করা হচ্ছে। আল্লাহ বলেন, ‘তিনিই সেই সত্তা, যিনি সৃষ্টি করেছেন তোমাদের জন্য পৃথিবীতে যা কিছু আছে সবকিছু’ (বাক্বারাহ ২/২৯)। অর্থাৎ সবকিছুই মানুষের উপকারের জন্য সৃষ্টি করা হয়েছে। তবে বিনা প্রয়োজনে কোন জীবকে হত্যা করা … Continue reading

Posted in জীবকে বিনা প্রয়োজনে হত্যা করা যাবে কি ? | Tagged

ক্বিয়ামতের দিন মানুষের আত্মার সাথে দেহ জুড়ে দেওয়া হবে, না কি দেহ ছাড়া কেবল আত্মা পুনর্জীবিত হবে?


মৃত্যুর পরে রূহ কিছুক্ষণের জন্য দেহ হ’তে বিচ্ছিন্ন হলেও পুনরায় আপন দেহে তা স্থাপন করা হবে এবং বান্দাকে তিনটি প্রশ্ন করা হবে (আহমাদ হা/১৮৫৫৭; ইবনু মাজাহ হা/৪২৬২; মিশকাত হা/১৬৩০)। ক্বিয়ামতের দিনও মানুষের আত্মার সাথে তার দেহ জুড়ে দেওয়া হবে (ফজর ৮৯/২৭-৩০; ইবনু … Continue reading

Posted in ক্বিয়ামতের দিন মানুষের আত্মার সাথে দেহ জুড়ে দেওয়া হবে কি? | Tagged ,

মৃত দাদীর নামে ইফতার মাহফিল করা যাবে কি এবং তাতে ধনী-গরীব সবাই শরীক হ’তে পারবে কি?


মৃত ব্যক্তির নামে ইফতার মাহফিল করা যাবে না, যেখানে সকল শ্রেণীর মানুষ অন্তর্ভুক্ত থাকবে। কারণ মৃত ব্যক্তির নামে যা করা হয় তা হ’ল ছাদাক্বাহ, যা ধনীরা খেতে পারে না (তওবাহ ৯/৬০; তিরমিযী হা/৬৫২)। তবে কেবলমাত্র দরিদ্র ছায়েমদের ইফতার করানো যাবে বা … Continue reading

Posted in মৃত দাদীর নামে ইফতার মাহফিল করা যাবে কি? | Tagged

মৃত্যুর পর তথা পরকালে আমাদের ভাষা কি হবে? আল্লাহ বা ফেরেশতাগণ আমাদের সাথে কোন ভাষায় কথা বলবেন?


তারা মানুষের সাথে এমন ভাষায় কথা বলবেন, যা তারা বুঝতে পারবে (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমা ৩/৪৫০)। শায়খুল ইসলাম ইমাম ইবনু তায়মিয়াহ (রহঃ)-কে এ বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হ’লে তিনি বলেন, সেদিন মানুষ কোন ভাষায় কথা বলবে তা জানা যায় না। কেননা আল্লাহ ও … Continue reading

Posted in মৃত্যুর পর তথা পরকালে আমাদের ভাষা কি হবে? | Tagged

মুসলিম দেশে বসবাসকারী কোন অমুসলিমকে কোন মুসলিম শরী‘আতসম্মত কারণে হত্যা করতে পারবে কি?


অমুসলিম বা মুসলিম ব্যক্তির কোন অপরাধ রাষ্ট্রীয় আদালত কর্তৃক প্রমাণিত হওয়ার পূর্বে কারো জন্য আইন হাতে তুলে নেওয়া জায়েয নয়। এরূপ করলে উক্ত ব্যক্তি কবীরা গুনাহগার হিসাবে গণ্য হবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, চুক্তিবদ্ধ অমুসলিমকে হত্যাকারী ব্যক্তি জান্নাতের সুগন্ধিও পাবে না (বুখারী … Continue reading

Posted in মুসলিম কোন অমুসলিমকে শরী‘আতসম্মত কারণে হত্যা করতে পারবে কি? | Tagged ,

জনৈক আলেম বলেন, অমুসলিম কারু মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা, ব্যথিত হওয়া মুনাফেকীর লক্ষণ। একথার সত্যতা আছে কি?


কথাটি ভিত্তিহীন। বরং মানুষ হিসাবে সবার প্রতি সমবেদনা দেখানো যাবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘তোমরা পৃথিবীবাসীর প্রতি দয়া প্রদর্শন কর, আসমানবাসী (আল্লাহ) তোমাদের প্রতি দয়া প্রদর্শন করবেন’ (আবুদাউদ হা/৪৯৪১; মিশকাত হা/৪৯৬৯; ছহীহাহ হা/৯২৫)। … জনৈক ইহূদী বালক রাসূল (ছাঃ)-এর খিদমত করত। সে … Continue reading

Posted in মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা মুনাফেকীর লক্ষণ কি? | Tagged

বর্তমানে দেখা যাচ্ছে পিতার কবরে পুত্রকে বা স্ত্রীর কবরে স্বামীকে কবরস্থ করা হচ্ছে। এরূপ করা শরী‘আতসম্মত কি?


সাধারণ অবস্থায় এভাবে কবর দেওয়ার বিধান ইসলামী শরী‘আতে নেই। অতঃপর যদি এর মাধ্যমে কোন কল্যাণ কামনা করা হয়, তবে সেটা স্রেফ কুসংস্কার বৈ কিছুই নয়। এছাড়া এর মাধ্যমে কবরকে অসম্মান করা হয়, যা নিষিদ্ধ। উপরন্তু এর দ্বারা পূর্বের কবরস্থ ব্যক্তির … Continue reading

Posted in কবরের একজনের লাশ অন্য কবরে দাফন করা যাবে কি? | Tagged , ,

জনৈক আলেম বলেন, জানাযার ছালাতে লোকসংখ্যা বেশী হওয়া মৃত ব্যক্তির জন্য অধিক মঙ্গলজনক। একথা কি সঠিক?


জানাযার ছালাতে লোকসংখ্যা বেশী হওয়া ভাল। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘কোন মৃত ব্যক্তির উপর যদি একশ’ জন মুসলমান জানাযা পড়ে, আর প্রত্যেকেই যদি তার জন্য সুফারিশ করে (ক্ষমা প্রার্থনা করে), তাহ’লে তাদের সুফারিশ কবুল করা হয়’ (মুসলিম হা/৯৪৭; মিশকাত হা/১৬৬১ ‘জানায়েয’ অধ্যায় … Continue reading

Posted in জানাযার ছালাতে লোকসংখ্যা বেশী হওয়া মৃত ব্যক্তির জন্য অধিক মঙ্গলজনক কি? | Tagged ,

মৃত ব্যক্তির খারাপ বিষয় নিয়ে আলোচনা করা যাবে কি? বিস্তারিত জানতে চাই।


মৃত ব্যক্তির খারাপ বিষয় নিয়ে আলোচনা করা যাবে না। সেটি জীবিত ব্যক্তির গীবত অপেক্ষা কঠিন গীবত হবে। কারণ জীবিত ব্যক্তির নিকট ক্ষমা চেয়ে নেওয়ার সুযোগ থাকে। কিন্তু মৃত ব্যক্তির নিকট এ সুযোগ থাকে না (মির‘আত হা/১৬৯২-এর ব্যাখ্যা দ্রঃ)। তবে যদি মৃত … Continue reading

Posted in মৃত ব্যক্তির খারাপ বিষয় নিয়ে আলোচনা করা যাবে কি? | Tagged

হাদীছে বর্ণিত ‘আমীরবিহীন মৃত্যু জাহেলিয়াতের মৃত্যু’ বলতে কি বুঝানো হয়েছে? ভারতের বর্তমান হিন্দু শাসকই কি মুসলমানদের কুরআনে বর্ণিত উলুল আমর? যদি তা না হয় তবে আমাদের এলাকায় শারঈ ইমারত সম্পন্ন কোন জামা‘আত নেই যে আমরা তার আমীরের আনুগত্য করব।


এর ব্যাখ্যায় ইবনু হাজার আসক্বালানী (রহঃ) বলেন, তাদের মৃত্যু হবে ইসলামপূর্ব জাহেলী যুগের মানুষদের ন্যায় ভ্রষ্টতার উপরে ও অনুসরণীয় আমীরবিহীন বিচ্ছিন্ন অবস্থায়। এর অর্থ এই নয় যে, তারা কাফের অবস্থায় মৃত্যুবরণ করবে। বরং তারা আল্লাহর অবাধ্য অবস্থায় মৃত্যুবরণ করবে। এখানে … Continue reading

Posted in হাদীছে বর্ণিত ‘আমীরবিহীন মৃত্যু জাহেলিয়াতের মৃত্যু’ বলতে কি বুঝানো হয়েছে? | Tagged