Tag Archives: সম্পদ

আমি আমার আত্মীয়ের নিকট থেকে বাজার মূল্যে জমি ক্রয় করব এবং রেজিস্ট্রেশনের সময় হেবা (দানপত্র) হিসাবে দেখাব। এটা জায়েয হবে কি?


সরকার কর্তৃক বর্তমানে অত্যধিক হারে গৃহীত জমি রেজিস্ট্রি ফী নিঃসন্দেহে জনগণের উপর যুলুম। তবুও তা ফাঁকি দেয়ার জন্য প্রশ্নে উল্লেখিত কৌশল কিংবা কোন অনৈতিক পন্থা অবলম্বন করা উচিৎ হবে না। কেননা যালেম শাসকদের অধীনে বসবাসরত নাগরিকদের করণীয় সম্পর্কে রাসূল (ছাঃ) … Continue reading

Posted in জমি রেজিস্ট্রেশনের সময় হেবা (দানপত্র) হিসাবে রেজিস্ট্রি করলে জায়েয হবে কি? | Tagged ,

আমার মা ক্যানসারের রোগী। যেকোন সময় মারা যেতে পারে। আমার নানা তার সমুদয় সম্পত্তি তার দ্বিতীয়া স্ত্রী ও সন্তানদেরকে লিখে দিয়েছে। এক্ষণে আমার মায়ের সম্পত্তিগুলো আমরা লিখে নিতে পারব কি?


এরূপ কাজ করা যাবে না। কারণ উত্তরাধিকার সম্পদের বণ্টননীতি আল্লাহ কর্তৃক নির্ধারিত (নিসা ৪/১১)। অতএব যার যতটুকু প্রাপ্য তা বুঝিয়ে দিতে হবে। আর নানা তার প্রথমা স্ত্রীকে সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করে কবীরা গোনাহ করেছেন। এক্ষণে নানা জীবিত থাকলে হক্বদারদেরকে অবশ্যই তাদের … Continue reading

Posted in মায়ের সম্পত্তিগুলো আমরা লিখে নিতে পারব কি? | Tagged

জমি বা বাড়ী বিক্রয়ের ক্ষেত্রে প্রতিবেশী বা আত্মীয়-স্বজনকে অগ্রাধিকার দেওয়ার ব্যাপারে শরী‘আতের কোন নির্দেশনা আছে কি?


এ ব্যাপারে শরী‘আতের স্পষ্ট নির্দেশনা আছে। যৌথ মালিকানা বা প্রতিবেশী হওয়ার কারণে জমি বিক্রয়ের ক্ষেত্রে তা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে অংশীদারের কাছে কিংবা প্রতিবেশীর কাছে বিক্রয় করতে হবে। একে শরী‘আতের পরিভাষায় শুফ‘আ বলে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, জমি অথবা (খেজুর) বাগানে যদি কারু … Continue reading

Posted in জমি বিক্রয়ের ক্ষেত্রে প্রতিবেশীকে অগ্রাধিকার দিতে হবে কি? | Tagged , , ,

যৌথ পরিবার থেকে প্রবাসে যাওয়ার পর আমাকে পাঠানোর পুরো খরচ পিতা-মাতাকে ফেরত দিয়েছি। কিন্তু পিতা-মাতা ও ভাইয়েরা তা অস্বীকার করছে। তারা বলছে, টাকা না দিলে আমাকে বাড়িতে যেতে দেওয়া হবে না। এক্ষণে আমার করণীয় কি?


বর্ণনামতে পিতা-মাতা ও ভাইয়েরা মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে যদি ভাইয়ের অবদান অস্বীকার করে এবং যুলুম করে, তাহ’লে তারা কবীরা গুনাহগার হবে। এক্ষেত্রে উক্ত প্রবাসী ভাই সমাজ নেতাদের সহায়তা নিয়ে বিষয়টি মীমাংসার উদ্যোগ নিবেন। অথবা প্রচলিত আইনের আশ্রয় নিতে পারেন। অথবা তাদের … Continue reading

Posted in পিতা-মাতা ও ভাইয়েরা টাকা দেওয়া অস্বীকার করলে আমার করণীয় কি? | Tagged ,

জমি সহ বিভিন্ন ক্রয়-বিক্রয়ে সহযোগিতার মাধ্যমে উপার্জন করা জায়েয হবে কি?


প্রতারণা না থাকলে বা অন্যের হক বিনষ্ট করার উদ্দেশ্য না থাকলে জায়েয হবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, মুসলিমগণ তাদের পরস্পরের শর্তানুযায়ী কাজ করবে যদি তা হালাল হয় (হাকেম হা/২৩১০; ছহীহুল জামে‘ হা/৬৭১৫)। ইমাম বুখারী (রহঃ) ‘দালালের মজুরী’ শিরোনামে অধ্যায় রচনা করে বলেন,  … Continue reading

Posted in জমি সহ বিভিন্ন ক্রয়-বিক্রয়ে সহযোগিতার মাধ্যমে উপার্জন করা জায়েয হবে কি? | Tagged , , ,

আমার ফুফা মৃত্যুর পূর্বে তার সঞ্চিত অর্থ আমার ফুফুর নিকটে রেখে যান। ফুফাতো ভাই-বোনদের মধ্যে বড় ছেলের আর্থিক অবস্থা ভালো নয়। তাই আমার ফুফু উক্ত অর্থ ফিক্সড ডিপোজিট করে তিন মাস পরপর যা সূদ আসে তা বড় ছেলেকে দেন। এজন্য আমার ফুফু বা তা বড় ছেলে গুনাহগার হবেন কি?


এভাবে টাকা রেখে সূদের অর্থ সন্তানকে দান করা জায়েয নয়। কারণ সূদ সর্বাবস্থায় হারাম। এরূপ করার কারণে মূলত উক্ত মা গুনাহগার হবেন। এক্ষণে উক্ত টাকা উঠিয়ে মূল টাকা থেকে সন্তানের পিছনে খরচ করবেন। অথবা তা কোন বৈধ ব্যবসায় খাটিয়ে সেখান … Continue reading

Posted in অর্থ ফিক্সড ডিপোজিট করে সংসার চালানো যাবে কি? | Tagged , ,

এক ব্যক্তি চার শতক জমি ক্রয় করেছিল। বর্তমানে নকশায় দেখা যাচ্ছে তা আট শতক। এক্ষণে ক্রেতার জন্য অতিরিক্ত চার শতক জমি ভোগ করা জায়েয হবে কি?


অতিরিক্ত জমি ভোগ করা জায়েয হবে না। কারণ সেগুলোর মালিক বিক্রেতা। এক্ষণে বিষয়টি জমির মালিককে অভিহিত করে অতিরিক্ত অংশ তাকে বা তার উত্তরাধিকারীদের ফেরত দিতে হবে। এছাড়া বিষয়টি প্রশাসন বিভাগের ভুলেও হ’তে পারে। সেক্ষেত্রে সেখান থেকে তা সমাধান করার চেষ্টা … Continue reading

Posted in জমি চার শতক কিনলে আট শতক পেয়েছি এই অতিরিক্ত জমি ভোগ করা যাবে কি? | Tagged ,

আমার দুই মেয়ে ও স্ত্রী রয়েছে। তারা চাচ্ছে এখনই তাদের নামে জমি-জমা রেজিস্ট্রি করে দেই। এরূপ কাজ করা জায়েয হবে কি?


এরূপ করা জায়েয হবে না। কারণ পুত্র সন্তান না থাকায় মৃতের নিকটতম পুরুষেরা আছাবা হিসাবে নির্দিষ্ট অংশ পাবে (নিসা ৪/১১; বুখারী হা/৬৭৩২; মিশকাত হা/৩০৪২)। আর মৃত্যুর পূর্বে স্ত্রী-কন্যাদের মাঝে সম্পদ বণ্টন করলে তাদেরকে বঞ্চিত করা হবে, যা হারাম।   উল্লেখ্য, উত্তরাধিকার সম্পদ … Continue reading

Posted in জমি-জমা মেয়ের নামে রেজিস্ট্রি করে দেওয়া জায়েয হবে কি? | Tagged

জনৈক নারীর প্রথম পক্ষের ১টি ছেলে এবং দ্বিতীয় পক্ষে ১টি ছেলে ও ১টি মেয়ে রয়েছে। এক্ষণে তার উভয় স্বামী মারা গেলে প্রথম পক্ষের ছেলেটি উভয় পিতারই সম্পদের ওয়ারিছ হবে কি?


প্রথম পক্ষের ছেলেটি কেবল তার নিজ পিতার সম্পদের ওয়ারিছ হবে। সৎ পিতার সম্পদের হবে না। তবে সে তার মায়ের সম্পদের ওয়ারিছ হবে। অবশ্য সৎপিতার সাথে অন্য দিক থেকে আত্মীয়তার সম্পর্ক (যেমন চাচা) থাকলে আছাবা সূত্রে পেতে পারে।

Posted in সন্তান সৎপিতার সম্পদের ওয়ারিছ হবে কি? | Tagged

আমরা ৫ বোন ১ ভাই। পিতা ভাইয়ের নামে বিপুল পরিমাণ অর্থ ডিপিএস, ব্যাংক ব্যালান্সের নমিনী এবং সমুদয় জমিজমা ভাইয়ের নামে লিখে দিয়ে মৃত্যুবরণ করেন। ভাই এখন সেগুলির ভাগ অন্য কাউকে দিতে অস্বীকার করছে। এক্ষণে এরূপ অন্যায় কর্মের জন্য পিতা না ভাই দায়ী হবেন?


ওয়ারিছগণ কে কতটুকু পাবে তা স্বয়ং আল্লাহ নির্ধারণ করে দিয়েছেন (নিসা ৪/৭, ১১)। সুতরাং বণ্টনের ক্ষেত্রে উক্ত নীতির ভিত্তিতেই ভাগ করতে হবে। এক্ষেত্রে কোন কমবেশী করা নিঃসন্দেহে কাবীরা গুনাহ এবং তা হক বিনষ্টের শামিল। প্রশ্ন অনুযায়ী পিতা ও ভাই উভয়ে দায়ী … Continue reading

Posted in জমিজমা ভাইয়ের নামে লিখে দিলে এই অন্যায় কর্মের জন্য কে দায়ী হবেন? | Tagged , ,

জনৈক ব্যক্তি দু’জন স্ত্রী রেখে মারা গেছেন। একজন নিঃসন্তান, অপরজনের ৩ ছেলে। এক্ষণে সম্পদ কিভাবে বণ্টিত হবে?


যদি মৃতের পিতা-মাতা বা ঊর্ধ্বতন কোন ওয়ারেছ না থাকে, তাহ’লে দুই স্ত্রী আট ভাগের এক ভাগ এবং বাকী সমুদয় সম্পত্তি ছেলেরা পাবে। আল্লাহ বলেন, আর তোমাদের পরিত্যক্ত সম্পত্তিতে স্ত্রীরা সিকি পাবে, যদি তোমাদের কোন সন্তান না থাকে। যদি থাকে, তবে তারা … Continue reading

Posted in জনৈক ব্যক্তি দু’জন স্ত্রী রেখে মারা গেছেন। তার সম্পদ কিভাবে বণ্টিত হবে? | Tagged , ,

আমার বড় ভাই পিতার সম্পদ ক্রয়ে এবং আমাদের গৃহ নির্মাণে অনেক আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। যদিও সবকিছু পিতার নামেই রেজিস্ট্রি হয়েছে। এক্ষণে পিতার মৃত্যুর পর সম্পদ বণ্টনের ক্ষেত্রে কমবেশী করা যাবে কি?


এক্ষেত্রে ভাই-বোন সর্বসম্মতিক্রমে তাকে কিছু বেশী দিলে তাতে শরী‘আতে কোন বাধা নেই। তবে সম্মতি না দিলে কোন কম-বেশী করার সুযোগ নেই। কেননা প্রত্যেকের প্রাপ্য হক পবিত্র কুরআনে নির্ধারিত করে দেয়া হয়েছে (নিসা ৪/১১)।

Posted in সম্পদ পিতার মৃত্যুর পর বণ্টনের ক্ষেত্রে কমবেশী করা যাবে কি? | Tagged ,

কোন সন্তান নিয়মিত ছালাত আদায় না করলে পিতা হিসাবে তাকে সম্পদের অংশ দেওয়া যাবে কি?


অলসতাবশতঃ ছালাত ত্যাগ করলে সম্পদের অংশ দেওয়া যাবে (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমা ৬/৪৯-৫০)। আর যদি ছালাতকে বিশ্বাসগতভাবে অস্বীকার করে, তাহ’লে সে কাফির হিসাবে গণ্য হবে এবং মুসলিম পিতা বা আত্মীয়ের সম্পদে অংশীদার হবে না। রাসূল (ছাঃ) বলেন, মুসলিম কোন কাফিরের ওয়ারিছ হবে … Continue reading

Posted in সন্তান নিয়মিত ছালাত আদায় না করলে তাকে সম্পদের অংশ দেওয়া যাবে কি? | Tagged

জনৈক ব্যক্তি তার ৪ মেয়েকে বঞ্চিত করে সমস্ত সম্পদ ছেলের নামে লিখে দিয়েছেন। মৃত্যুকালে একজন মেয়ে জামাই এ ব্যাপারে তাকে ভীতি প্রদর্শন করলে তিনি ক্রুদ্ধ হন। এক্ষণে এরূপ ভীতি প্রদর্শন জায়েয হয়েছে কি?


এভাবে হক কথা বলায় শ্বশুর অসন্তুষ্ট হ’লে তাতে দোষ নেই। তবে বাড়াবাড়ি করে থাকলে সেটা ঠিক হয়নি। কন্যা সন্তানদের বঞ্চিত করায় পিতা অবশ্যই গুনাহগার হবেন। আল্লাহ বলেন, আল্লাহ তোমাদের সন্তানদের (মধ্যে মীরাছ বণ্টনের) ব্যাপারে তোমাদেরকে নির্দেশ দিচ্ছেন যে, এক পুত্রের … Continue reading

Posted in জমি সঠিক ভাবে বন্ঠন না করাই মৃত্যুকালে ভয় দেখানো ঠিক হয়েছে কি ? | Tagged ,

ওলী ছাড়া বিবাহের পর ১টি সন্তান হয়েছে। সন্তান জন্মের পর মেয়ের পিতা-মাতা উক্ত বিবাহ মেনে নিয়েছেন। এক্ষণে ঐ সন্তানটি কি জারজ হিসাবে গণ্য হবে? সে কি পিতা-মাতার সম্পদের অংশীদার হবে?


যদি কেউ সাক্ষী ও ওলী ব্যতীত গোপনে কাউকে বিবাহ করে, উক্ত বিবাহ বাতিল হওয়ার ব্যাপারে ওলামায়ে কেরাম একমত। তবে যদি তারা একান্তই বিবাহ জায়েয হয়েছে মনে করে সহবাস করে, সেক্ষেত্রে তাদের একত্রবাস ‘সন্দেহপূর্ণ’ বিবেচিত হবে। এমতাবস্থায় সন্তান পিতার সাথে সম্পৃক্ত … Continue reading

Posted in অ‌ভিভাবক বা ওলী না থাক‌লে করণীয়!, বিবাহ উকীল বাবা’র মাধ্যমে পড়ানো যায় কি?, বিবাহ ওলী ছাড়া করলে তাদের সন্তান কি জারজ হিসেবে গন্য হবে?, বিবাহ শুদ্ধ হওয়ার জন্য কি কি শর্ত প্রযোজ্য?, বিবাহ শুদ্ধ হয়নি জানতে পারলাম. এখন বৃদ্ধ বয়সে করণীয় কি?, বিবাহে সম্মতি না থাকলে বিবাহ বলে গন্য হবে কি? | Tagged ,

বেকার স্বামীর জন্য স্ত্রীর উপার্জন থেকে পরিবার পরিচালনার যাবতীয় ব্যয় করা জায়েয হবে কি?


স্ত্রীর সম্মতি থাকলে জায়েয হবে। স্ত্রী স্বামীর সংসারে খরচ করলে দ্বিগুণ নেকী পাবেন। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) এরশাদ করেন, ‘মিসকীনকে ছাদাক্বা দিলে একটি ছাদাক্বা হয়। কিন্তু সে যদি রক্ত সম্পর্কীয় নিকটাত্মীয় হয়, তবে নেকী দ্বিগুণ হয়। এক-ছাদাক্বা এবং দুই-আত্মীয়তা (আহমাদ, তিরমিযী, মিশকাত হা/১৯৩৯)। … Continue reading

Posted in স্ত্রীর উপার্জন থেকে পরিবার পরিচালনার ব্যয় করা জায়েয হবে কি? | Tagged , ,

আমার ভাইয়েরা প্রতিনিয়ত আমার ক্ষতি করে যাচ্ছে। আমি মারা গেলে আমার স্ত্রী-সন্তানদেরও ভরণপোষণ তারা করবে না। আমি ও আমার স্ত্রী খেয়ে না খেয়ে কিছু কিছু সঞ্চয় করছি। এর অধিকাংশ অবদান আমার স্ত্রীর। এক্ষণে আমি মারা গেলে আমার ভাইয়েরা কি সম্পদের অংশ পাবে?


ছেলে সন্তান থাকলে ভাইয়েরা অংশীদার হবে না। কেবল স্ত্রী ও কন্যা সন্তান থাকলে ব্যক্তি মারা গেলে এবং তার পিতা-মাতা বেঁচে না থাকলে ভাইয়েরা অংশীদার হবে। এটি আল্লাহর দেওয়া বিধান, যা প্রশ্নাতীতভাবে মেনে নেওয়া আবশ্যক। তবে স্ত্রীর নিজস্ব সম্পদে স্বামীর কোন … Continue reading

Posted in সম্পদের অংশ স্বামী মারা গেলে স্বামীর ভাইয়েরা কি পাবে? | Tagged ,

আমার কেবল দুই মেয়ে। আমি আমার সমস্ত সম্পদ তাদের নামে লিখে দিয়েছি। এরূপ করা সঠিক হয়েছে কি?


সঠিক হয়নি। কারণ পিতার মৃত্যুর পর তার স্ত্রী, কন্যা, ভাই-বোন সহ অন্যান্যদের অংশ শরী‘আত কর্তৃক নির্ধারিত (নিসা ৪/১১)। যার ব্যত্যয় ঘটানো আল্লাহ কর্তৃক নির্ধারিত সীমা লংঘনের শামিল (নিসা ৪/১৩)। বিবরণ অনুযায়ী মোট সম্পদের দুই-তৃতীয়াংশ দুই মেয়ে পাবে এবং বাকী অংশ অন্য ওয়ারিছগণ … Continue reading

Posted in সম্পদ সবগুলো মেয়েদের নামে লিখে দেওয়া যাবে কি ছেলে না থাকায়? | Tagged

সূরা ওয়াক্বি‘আহ পাঠ করলে অভাব-অনটন দূর হয় কি?


উক্ত মর্মে বেশ কিছু বর্ণনা রয়েছে, যার কোনটি যঈফ কোনটি জাল (সিলসিলা যঈফাহ হা/২৮৯-২৯১; মিশকাত হা/২১৮১)।

Posted in সূরা ওয়াক্বি‘আহ পাঠ করলে অভাব-অনটন দূর হয় কি? | Tagged ,

আমার পিতা ও এক ভাই মারা গেছেন। আমরা দুই ভাই, বোন ও আমাদের মা জীবিত আছি। মৃত ভাইটি এক ছেলে, এক মেয়ে ও স্ত্রী রেখে গেছেন। আমাদের পিতার কোন সম্পত্তি নেই। কিন্তু আমাদের মা প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকার মালিক। তিনি তা ছেলে-মেয়েদের মধ্যে শরী‘আত মোতাবেক এখনই বণ্টন করে দিতে চান। এ অবস্থায় কে কতটুকু অংশ পাবে?


মাতার জীবদ্দশায় তার ছেলে মৃত্যুবরণ করায় ঐ ছেলের সন্তানেরা তাদের দাদীর সম্পত্তির ওয়ারিছ হবে না (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমাহ, ফৎওয়া নং ১৯১৪৯, ১৬/৪৮৯ পৃঃ)। এমতাবস্থায় দাদী সর্বাগ্রে তার ঋণ (যদি থাকে) পরিশোধের পর নাতী-নাতনীদের জন্য অনধিক এক-তৃতীয়াংশ হেবা করতে পারেন (বুখারী, মুসলিম; মিশকাত … Continue reading

Posted in পিতা মারা গেলে মায়ের সম্পত্তি কিভাবে বন্ঠন হবে?, সমানভাবে দুই মেয়েকে সমস্ত সম্পদ লিখে দিয়েছে। তার, সম্পত্তি কে কত অংশ পাবে?, সম্পত্তি চালাকি করে লিখে নিলে দায়ী কে হবে?, সম্পত্তি ভাতিজা ও ভাতিজীদের মাঝে কিভাবে বণ্টিত হবে?, সম্পত্তি রেখে যাওয়া কি আবশ্যক সন্তানের জন্য?, সম্পত্তি স্ত্রীর নামে কিছু লিখে দেয়া যাবে কি?, সম্পত্তির যেকোন একটির ওয়ারিছ মেয়েরা হ’তে পারবে কি?, সম্পদ কিভাবে বন্ঠন হবে?, সম্পদ ছেলে কে না বলে মেয়েকে লিখে দেওয়া যাবে কি?, সম্পদ দেখা শুনার জন্য তাকে কিছু সম্পদ দেওয়া যাবে কি?, সম্পদ নিয়ে বেঈমানী করলে শাস্তি থেকে বাঁচানোর উপায় কি?, সম্পদ পিতা বিক্রয় করার পর ভুল প্রমাণিত হলে করণীয় কি?, সম্পদ পিতা-মাতা স্ত্রী ও তিন মেয়ের মধ্যে অংশ কিভাবে বণ্টিত হবে?, সম্পদ পিতাকে না জানিয়ে খরচ করা যাবে কি?, সম্পদ মালিক জীবিত অবস্থায় বণ্টন করা করা যাবে কি?, সম্পদ মৃত্যুর কতদিনের মধ্যে ওয়ারিছদের মাঝে বণ্টন করতে হয়?, সম্পদ সন্তান পিতা-মাতার উভয়ের সম্পদেই কি সে অংশীদার হবে?, সম্পদ সমান করে ভাগ করে না দিলে কি হবে? | Tagged

ছেলে নেশাখোর এবং এর মাধ্যমে বহু অর্থ তছরুফকারী। এক্ষণে বিবাহিত মেয়ের আর্থিক টানাপোড়েনের কারণে পিতার সম্পত্তি থেকে ১০ কাঠা জমি ছেলের অগোচরে মেয়েকে দেওয়া যাবে কি?


বিদ্বেষবশতঃ কমবেশী না করে, সন্তানদের প্রতি সমান দৃষ্টিভঙ্গি রেখে জীবদ্দশায় প্রয়োজনমত খরচে কমবেশী করায় কোন বাধা নেই। বরং এটাই ইনছাফ। কিন্তু কারো প্রতি অবজ্ঞা, কাউকে অধিক ভালোবাসা, কাউকে শাস্তি দেওয়া ইত্যাদি দৃষ্টিভঙ্গিতে কমবেশী করলে অবশ্যই গুনাহগার হ’তে হবে (বুখারী হা/২৫৮৬; মুসলিম … Continue reading

Posted in সম্পদ ছেলে কে না বলে মেয়েকে লিখে দেওয়া যাবে কি? | Tagged

আমাদের সমাজে প্রচলিত রীতি অনুযায়ী মেয়েরা তাদের পিতার ভিটা-বাড়ী অথবা আবাদী সম্পত্তির যেকোন একটির ওয়ারিছ হ’তে পারবে। আর ছেলেরা উভয় সম্পত্তির অংশীদার হবে। এরূপ করা জায়েয হবে কি? এছাড়া মা কি ছেলের সম্পদের ওয়ারিছ হবে?


এটা সঠিক রীতি নয়। বরং পিতা-মাতার সমুদয় সম্পত্তিতে ছেলেদের সাথে মেয়েরাও অংশীদার হবে। আল্লাহ বলেন, পিতা-মাতা ও নিকটাত্মীয়দের পরিত্যক্ত সম্পত্তিতে পুরুষদের অংশ রয়েছে এবং নারীদের অংশ রয়েছে কম হৌক বা বেশী হৌক। এ অংশ সুনির্ধারিত’ (নিসা ৪/৭)। তিনি আরো বলেন, আল্লাহ … Continue reading

Posted in মা কি ছেলের সম্পদের ওয়ারিছ হবে?, সম্পত্তির যেকোন একটির ওয়ারিছ মেয়েরা হ’তে পারবে কি? | Tagged

আমরা ৬ বোন ৩ ভাই। পিতা-মাতা মারা গেছেন। এক্ষণে আমাদের মাঝে পিতার সম্পদ কিভাবে বণ্টিত হবে?


মোট সম্পত্তি ১২ ভাগ করে তিন ভাই দুই ভাগ করে নিবে এবং বোনেরা একভাগ করে নিবে (নিসা ৪/১১)।

Posted in পিতার সম্পদ কিভাবে বণ্টিত হবে?, সম্পত্তি কে কত অংশ পাবে?, সম্পদ পিতা-মাতা স্ত্রী ও তিন মেয়ের মধ্যে অংশ কিভাবে বণ্টিত হবে?, সম্পদ পিতাকে না জানিয়ে খরচ করা যাবে কি?, সম্পদ মালিক জীবিত অবস্থায় বণ্টন করা করা যাবে কি?, সম্পদ মৃত্যুর কতদিনের মধ্যে ওয়ারিছদের মাঝে বণ্টন করতে হয়?, সম্পদ সন্তান পিতা-মাতার উভয়ের সম্পদেই কি সে অংশীদার হবে?, সম্পদ সমান করে ভাগ করে না দিলে কি হবে? | Tagged

আমি প্রবাসে থাকি। দেশে থাকা পিতা-মাতা আমার পুরো উপার্জনই ভোগ করতে চান। আমার স্ত্রী-সন্তানদের জন্য খরচ করতে অনীহা পোষণ করেন। এক্ষণে আমার করণীয় কি?


আল্লাহ তা‘আলা প্রত্যেকের জন্য অধিকার নির্ধারণ করে দিয়েছেন। সন্তানের উপার্জন থেকে প্রয়োজন মত পাওয়ার অধিকার যেমন পিতা-মাতার রয়েছে, তেমনি স্ত্রী-সন্তানেরও রয়েছে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘আল্লাহ প্রত্যেক হকদারের জন্য তার হক নির্দিষ্ট করে দিয়েছেন’ (আবুদাঊদ হা/২৮৭০; মিশকাত হা/৩০৭৩)। এক ব্যক্তি নবী করীম … Continue reading

Posted in পিতা-মাতা স্ত্রী-সন্তানদের জন্য খরচ করতে অনীহা পোষণ করলে করণীয় কি? | Tagged ,

সংসার দেখাশুনার জন্য আমার পিতা দূর সম্পর্কের এক আত্মীয়কে ছোটবেলা থেকেই বাসায় রেখেছেন। এক্ষেণে পিতা বৃদ্ধ হয়ে যাওয়ায় তাকে কিছু সম্পদ দিতে চান। শরী‘আত অনুযায়ী সে সম্পত্তির অংশ পাবে কি?


তাকে অছিয়ত স্বরূপ কিছু দান করা যাবে। যার সর্বোচ্চ পরিমাণ হচ্ছে মোট সম্পদের তিন ভাগের এক ভাগ (মুত্তাফাক্ব আলাইহ, মিশকাত হা/৩০৭১, ‘অছিয়ত’ অনুচ্ছেদ)।

Posted in সম্পদ দেখা শুনার জন্য তাকে কিছু সম্পদ দেওয়া যাবে কি? | Tagged

মসজিদ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক এক বিঘা জমি নেওয়া হয়েছে পঞ্চাশ হাযার টাকার বিনিময়ে। যতদিন টাকা পরিশোধ না হবে ততদিন কর্তৃপক্ষ উক্ত জমি অন্যের কাছে লীজ দিয়ে লাভবান হচ্ছে। এরূপ লেনদেন কি বৈধ?


টাকার বিনিময়ে জমি কট বা বন্ধক নিয়ে সেই জমি থেকে উপকৃত হওয়া সূদের অন্তর্ভুক্ত। ইবনু আববাস (রাঃ) বলেন, যে ঋণের বিনিময় লাভ করা হয়, তা সূদ (বায়হাক্বী, সুনানুল কুবরা হা/১০৭১৫; ইরওয়া হা/১৩৯৭, সনদ ছহীহ)। কট-কবলা বা বন্ধকী প্রথা শরী‘আত সম্মত নয়। … Continue reading

Posted in কঠ/বন্ধক দেওয়া যাবে কি, সম্পদ কঠ / বন্ধক দেওয়া যাবে কি | Tagged

আমার পিতা এক ব্যক্তির কাছে তাঁর পৈত্রিক জমি বিক্রি করে মারা গেছেন প্রায় দশ বছর পূর্বে। কিন্তু বর্তমানে সেই জমির মালিক অন্য একজন প্রমাণিত হয়েছে। এক্ষণে পিতার জমির ক্রেতা সেই জমির বর্তমান মূল্য দাবী করে। সন্তান হিসাবে তা কি পরিশোধ করতে হবে?


উক্ত জমির মূল্য ফেরৎ দেওয়া সন্তানের জন্য আবশ্যক নয়। আল্লাহ বলেন, ‘একের পাপের বোঝা অন্যে বহন করবে না’ (আন‘আম ৬/১৬৪)। এক্ষণে সন্তান যদি জমির ক্রেতাকে মূল্য ফেরৎ দেয়, তবে বিষয়টি উভয়পক্ষ মীমাংসার মাধ্যমে ঐক্যমত্যের ভিত্তিতে সমাধা করতে হবে। এক্ষেত্রে ক্রেতার জন্য … Continue reading

Posted in সম্পদ পিতা বিক্রয় করার পর ভুল প্রমাণিত হলে করণীয় কি? | Tagged

আমি আমার ভাইয়ের নিকট থেকে এক লক্ষ টাকা ঋণ নিয়ে চাষাবাদের জন্য তাকে এক বৎসরের জন্য এক বিঘা জমি দিয়েছি। সে এক বৎসর পর জমি ফিরিয়ে দিবে এবং আমি তার টাকা ফিরিয়ে দিব। এভাবে লেনদেন কি শরী‘আত সম্মত?


এভাবে টাকা দিয়ে জমি গ্রহণ করাকে বন্ধক বলা হয়। আর বন্ধক গ্রহীতা বন্ধকী জমি ভোগ করতে পারবে না। এটা পরিষ্কার সূদ। এভাবে জমি নিলে চাষের খরচ ব্যতীত বাকী শস্য মালিকের কাছে ফেরত দিতে হবে। কারণ এটা একটা কর্য। আর কর্যের … Continue reading

Posted in কঠ/বন্ধক দেওয়া যাবে কি, সম্পদ কঠ / বন্ধক দেওয়া যাবে কি | Tagged ,

মোহরানার সম্পদের হকদার স্ত্রী না তার পিতা? পিতা সে টাকা ব্যবহার করলে পরে তা ফেরত দিতে হবে কি?


উক্ত সম্পদের হকদার স্ত্রী (নিসা ৪/৪)। স্ত্রী চাইলে স্বীয় পিতাকে হাদিয়া হিসাবে দিতে পারে এবং পিতাও চাইলে ঋণ হিসাবে কিছু নিতে পারে। তবে পিতা নিজের মনে করে উক্ত টাকা ভোগ করতে পারবে না।

Posted in মোহরানার সম্পদের হকদার স্ত্রী না তার পিতা? | Tagged ,

মৃত্যুর কতদিনের মধ্যে ওয়ারিছদের মাঝে সম্পদ বণ্টন করতে হয়? এতে কেউ গড়িমসি করলে কোন পাপ হবে কি?


শারঈ ওযর ব্যতীত পরিত্যক্ত সম্পদ দ্রুত বণ্টন করাই উত্তম। তবে এর কোন নির্দিষ্ট সময় সীমা নেই। হকদারদের ঐক্যমতের ভিত্তিতে কিছু দেরী করাতেও কোন বাধা নেই (শায়খ বিন বায, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ২০/২৪৩)। প্রথমে মাইয়েতের ঋণ পরিশোধ করবে। অতঃপর তাঁর কোন বৈধ … Continue reading

Posted in সম্পদ মৃত্যুর কতদিনের মধ্যে ওয়ারিছদের মাঝে বণ্টন করতে হয়? | Tagged ,

জনৈক পিতা ৪ মেয়েকে বাদ দিয়ে ছেলের নামে বিপুল পরিমাণ অর্থ ও জমি-জমা লিখে দিয়ে মারা গেছেন। এক্ষণে এর পরিণতি কি এবং তাকে শাস্তি ভোগ থেকে বাঁচানোর উপায় কি?


পরিত্যক্ত সম্পদ বণ্টনে কমবেশী করায় উক্ত পিতা কঠিন গুনাহগার হবেন। ক্বিয়ামতের দিন তার গলায় সাত তবক পরিমাণ যমীন বেড়ি রূপে পরিয়ে দেওয়া হবে (মুত্তাফাক্ব আলাইহ, মিশকাত হা/২৯৩৮)। জেনেশুনে উক্ত সম্পদ ভোগ করলে সন্তানরাও গুনাহগার হবে। এক্ষণে নিজদের বাঁচা ও পিতাকে বাঁচানোর … Continue reading

Posted in সম্পদ নিয়ে বেঈমানী করলে শাস্তি থেকে বাঁচানোর উপায় কি? | Tagged

কৃপণ পিতার সম্পদ থেকে তাকে না জানিয়ে দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় খরচ যেমন পড়াশুনা, পোষাক ইত্যাদি চাহিদা পূরণের জন্য কিছু নেওয়া যাবে কি?


স্ত্রী-সন্তানের প্রয়োজনীয় ব্যয় নির্বাহ করা স্বামী বা পিতার কর্তব্য। সে হিসাবে কৃপণ পিতার সম্পদ থেকে ন্যয়সঙ্গতভাবে কিছু গ্রহণ করা সন্তানের জন্য জায়েয। হিন্দা বিনতে ঊতবা বলেন, হে আল্লাহর রাসূল! আবু সুফিয়ান একজন অতি কৃপণ ব্যক্তি। আমি তাকে না জানিয়ে তার … Continue reading

Posted in সম্পদ পিতাকে না জানিয়ে খরচ করা যাবে কি? | Tagged ,

পিতা-মাতার বিচ্ছেদের পর কোন সন্তান পিতা বা মাতা যেকোন একজনের তত্ত্বাবধানে বড় হওয়ার পর উভয়ের সম্পদেই কি সে অংশীদার হবে?


বিবাহের মাধ্যমে জন্ম নেওয়া সন্তান পিতা-মাতা উভয়ের সম্পত্তির অংশীদার হবে (নিসা ৪/১১)। কার তত্ত্বাবধানে প্রতিপালিত হয়েছে সম্পদের অংশ পাওয়ার ক্ষেত্রে সেটি ধর্তব্য নয়।

Posted in সম্পদ সন্তান পিতা-মাতার উভয়ের সম্পদেই কি সে অংশীদার হবে? | Tagged ,

নওমুসলিম সন্তান অমুসলিম পিতার সম্পদের অংশীদার হ’তে পারবে না। এক্ষণে পিতার মৃত্যুর পর স্বাভাবিকভাবে প্রাপ্ত সকল সম্পদ দান করে দিতে হবে কি?


মুসলিম সন্তান কাফের পিতার সম্পদের অংশীদার হবে না (বুখারী, মুসলিম; মিশকাত হা/৩০৪৩)। তবে বিনা কামনায় প্রাপ্ত সম্পদ পুনরায় ফেরত দেওয়ার বা দান করে দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

Posted in সম্পদের অংশীদার নওমুসলিম সন্তান অমুসলিম পিতার হ’তে পারবে কি? | Tagged

সন্তানের জন্য কোন সম্পত্তি রেখে যাওয়া কি আবশ্যক?


আবশ্যিক না হ’লেও সন্তানদের জন্য কিছু সম্পদ রেখে যাওয়া উত্তম। রাসূল (ছাঃ) সা‘দ বিন খাওলা (রাঃ)-কে মাত্র একটি কন্যা থাকা সত্ত্বে্ও তিনভাগের একভাগের বেশী অছিয়ত করতে নিষেধ করে বলেন, তোমার সন্তানদের নিঃস্ব অবস্থায় মানুষে কাছে প্রার্থী হিসাবে রেখে যাওয়ার চাইতে … Continue reading

Posted in সম্পত্তি রেখে যাওয়া কি আবশ্যক সন্তানের জন্য? | Tagged