Tag Archives: সম্পদ

জনৈক ব্যক্তি বলেন, মীরাছের ক্ষেত্রে পিতার সম্পত্তিতে ছেলেরা মেয়েদের দ্বিগুণ পেলেও মায়ের সম্পত্তিতে মেয়েরা ছেলেদের দ্বিগুণ বা সমান পাবে। উক্ত বক্তব্যের সত্যতা জানতে চাই।


উক্ত বক্তব্য সঠিক নয়। পিতা হৌক বা মাতা হৌক তাদের সম্পত্তিতে ছেলেরা মেয়েদের দ্বিগুণ হারে পাবে। আল্লাহ বলেন, আল্লাহ তোমাদের সন্তানদের (মধ্যে মীরাছ বণ্টনের) ব্যাপারে তোমাদেরকে নির্দেশ দিচ্ছেন যে, এক পুত্রের অংশ দুই কন্যার অংশের সমান (নিসা ৪/১১)। অত্র আয়াতে পিতা-মাতা … Continue reading

Posted in মায়ের সম্পত্তিতে মেয়েরা ছেলেদের দ্বিগুণ বা সমান পাবে কি? | Tagged ,

আমার দাদা এক বিহারীর নিকট জমি বিক্রয় করে। কিন্তু যুদ্ধের সময় বিহারী সপরিবারে মারা যায়। ১৯৭১ সালে রেকর্ডমূলে তা আমার দাদার নামে রেকর্ড হয়। এক্ষণে উক্ত জমির মালিক বিহারী হ’লে আমাদের করণীয় কী? আর দান করতে হ’লে বিহারীর নামে আমার দরিদ্র ছেলেকে দান করা যাবে কি?


উক্ত বিহারীর উত্তরাধিকারী খুঁজে পাওয়া গেলে তাদের নিকট জমি হস্তান্তর করতে হবে। আর কোনভাবে খোঁজ পাওয়া না গেলে বিহারীর নামে নিজের অভাবগ্রস্ত সন্তানকে দান করতে পারে। এতে বিহারী ছওয়াব পাবেন এবং দানকারীও ছওয়াব পাবেন ইনশাআল্লাহ (মুসলিম হা/১০০৪; নববী, শরহ মুসলিম ১১/৮৪; … Continue reading

Posted in জমি বিক্রির পরে লোকটি মারা গেলে কর‌ণীয় কি? | Tagged ,

শুনেছি হযরত আবুবকর (রাঃ) পোতার সম্পত্তিতে দাদা মীরাছ পাবেন মর্মে মতপ্রকাশ করেছেন। অন্যদিকে আরেকজন ছাহাবী পাবেন না বলেছেন। এক্ষণে এর মধ্যে কোন মতটি বিশুদ্ধ?


এ বিষয়ে বিশুদ্ধ মত হ’ল, সহোদর ভাই জীবিত থাকা অবস্থায় দাদা পোতার সম্পত্তিতে মীরাছ পাবেন এবং এমতাবস্থায় ভাইয়েরা বঞ্চিত হবে (বুখারী ২২/২২১; আত-তাহজীল ফী তাখরীজে মা লাম ইউখাররাজ্ ফী ইরওয়াউল গালীল ১/২০৭)। এই পক্ষেই মত দিয়েছেন আবুবকর, আবু মূসা ও ইবনু … Continue reading

Posted in হযরত আবুবকর (রাঃ) পোতার সম্পত্তি ভাগ নিয়ে মতভেদে কোনটি সঠিক? | Tagged

স্বামী স্ত্রীকে মোহরানা হিসাবে ৫ বিঘা জমি দান করে। কিন্তু পরবর্তীতে স্ত্রী নিঃসন্তান অবস্থায় মারা যায়। এখন স্ত্রীর রেখে যাওয়া সেই ৫ বিঘা জমি থেকে স্বামী মীরাছ হিসাবে কিছু পাবে কি? পেলে কতটুকু পাবে?


স্বামী স্ত্রীর সম্পত্তিতে অংশ পাবে। তাদের সন্তান না থাকায় স্বামী স্ত্রীর পরিত্যক্ত সম্পত্তির অর্ধেক পাবে। আল্লাহ বলেন, আর তোমাদের স্ত্রীদের পরিত্যক্ত সম্পত্তিতে তোমরা অর্ধেক পাবে, যদি তাদের কোন সন্তান না থাকে। যদি থাকে, তবে তোমরা সিকি পাবে, তাদের অছিয়ত পূরণ … Continue reading

Posted in সম্পদ স্ত্রীর মারা গেলে স্বামী পাবে কি? | Tagged

আমি পিতার একমাত্র সন্তান। আমার নিজেরও একটি সন্তান রয়েছে। এক্ষণে আমি যদি আমার পিতা-মাতার পূর্বে মারা যাই তাহ’লে সম্পত্তি কিভাবে বণ্টিত হবে? আমার সন্তান কি এতে অংশ পাবে?


প্রশ্নকারীর কোন ভাই-বোন না থাকায় তার সন্তান আছাবা হিসাবে দাদার পুরো সম্পত্তির মালিক হবে। কারণ নাতি তখনই দাদার সম্পত্তি পাবে না যখন দাদার অন্য ছেলে বা মেয়ে থাকবে (তোহফাতুল মুহতাজ ৬/৪০২)। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘তোমরা মৃতের পরিত্যক্ত সম্পত্তির নির্ধারিত অংশসমূহ হকদারগণকে … Continue reading

Posted in পিতা-মাতার পূর্বে আমি মারা গেলে সম্পত্তি কিভাবে বণ্টিত হবে?, সম্পত্তি কিভাবে বণ্টিত হবে যদি পিতা-মাতার পূর্বে আমি মারা গেলে? | Tagged

আমার ছোট ভাই ২৪ বছর যাবত মানসিক বিকারগ্রস্ত এবং বিগত চার বছর ধরে নিখোঁজ। আমার আরো ভাই ও বোন বেঁচে আছে। এক্ষণে সম্পত্তি কিভাবে বণ্টিত হবে?


দীর্ঘ সময় ধরে নিখোঁজ ব্যক্তি নিহত হিসাবে পরিগণিত হবে। এক্ষেত্রে যদি বিচারক তার হারানোর ব্যাপারে নিশ্চিত ফায়ছালা দেন তবে এই সম্পত্তি নিয়ম অনুযায়ী মেয়ের তুলনায় ছেলে দ্বিগুণ আকারে বণ্টিত হবে। আর বাকী অংশ নিকটতম পুরুষ আত্মীয়গণ আছাবা হিসাবে পেয়ে যাবেন। … Continue reading

Posted in সম্পত্তি কিভাবে বণ্টিত হবে যদি একজন ভাই নিঁখোজ থাকে? | Tagged

আমার পিতা মৃত্যুর পূর্বে একটি সম্পদ ব্যতীত সকল সম্পদ বণ্টন করে দেন। কিন্তু পরে বুঝতে পারেন যে, আমাকে কিছু অংশ বেশী দেওয়া হয়েছে। সেজন্য তিনি আমাকে অছিয়ত করেন যে, যে অংশটুকু বণ্টন হয়নি তা থেকে তুমি কিছুই গ্রহণ করবে না। কিন্তু আমার নিকট যা বেশী আছে তা অবণ্টিত সম্পত্তিতে পাওনা সম্পদের সমান নয়। এক্ষণে আমার পিতার অছিয়ত পূরণ করা কি আমার জন্য আবশ্যক? আমার করণীয় জানতে চাই।


সম্পদের ব্যাপারে পিতার পক্ষ থেকে সন্তানের জন্য অছিয়ত কার্যকরী নয়। কারণ সন্তান পিতার সম্পদের উত্তরাধিকারী। আর রাসূল (ছাঃ) বলেন, আল্লাহ তা‘আলা প্রত্যেক হকদারের জন্য তার হক নির্দিষ্ট করে দিয়েছেন। অতএব ওয়ারিছের জন্য কোন অছিয়ত নেই’ (আবূদাঊদ, ইবনু মাজাহ প্রভৃতি, ছহীহুল জামে‘ … Continue reading

Posted in সম্পদের ক্ষেত্রে পিতার অছিয়ত মানা যাবে কি? | Tagged

খরচ কমানোর জন্য কোবালা রেজিষ্ট্রি না করে দানপত্রের মাধ্যমে জমি রেজিষ্ট্রি করা জায়েয হবে কি?


এটি জায়েয হবে না। কারণ এতে মিথ্যার আশ্রয় নেওয়া হবে। যদিও এটি রাষ্ট্রীয় যুলুম এবং এর জন্য সরকার আল্লাহর কাছে দায়ী থাকবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘সত্ত্বর আমার পরে তোমাদের উপর যালেম শাসকদের আগমন ঘটবে এবং এমন কিছু কাজসমূহ দেখবে, যা … Continue reading

Posted in খরচ কমানোর জন্য দানপত্রের মাধ্যমে জমি রেজিষ্ট্রি করা জায়েয হবে কি? | Tagged , ,

জনৈক ব্যক্তির প্রথমা স্ত্রী ‘খোলা’র মাধ্যমে পৃথক হয়ে ৪টি সন্তান সহ বর্তমানে অন্যত্র বিবাহিত জীবন যাপন করছে। ঐ সন্তানদের সাথে পিতার তেমন কোন সম্পর্ক নেই। অন্যদিকে পিতা পুনরায় বিবাহ করেছেন। কিন্তু সেই সংসারে তার কোন সন্তান নেই। এক্ষণে তিনি মারা গেলে তার সম্পদের মীরাছ বণ্টন হবে কিভাবে?


এক্ষেত্রে তার পূর্ব স্ত্রীর গর্ভজাত সন্তানেরা ‘ছেলেরা মেয়েদের দ্বিগুণ’ হারে পুরো সম্পত্তি পেয়ে যাবে এবং তার বর্তমান স্ত্রী এক-অষ্টমাংশ পাবে (নিসা ৪/১১-১২)। কেননা পূর্বতন স্ত্রী তালাকপ্রাপ্তা হ’লেও তার সন্তানেরা পিতার সন্তান হিসাবে যথারীতি তার সম্পদের উত্তরাধিকারী হবে।

Posted in দ্বিতীয় বিয়ে করার পর মৃত্যু হলে সম্পদের বণ্টন হবে কিভাবে? | Tagged

আমার তিন মেয়ে, স্ত্রী ও ভাই আছে। আমি যদি এখন মারা যাই তাহ’লে কে কতটুকু অংশ পাবে?


এরূপ অবস্থায় তিন মেয়ে পাবে দুই-তৃতীয়াংশ ও স্ত্রী পাবেন এক-অষ্টমাংশ (নিসা ৪/১২)। এরপর বাকী অংশ ‘আছাবা’ হিসাবে ভাই পাবেন। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘সুনির্দিষ্ট অংশের হকদারদের নিকট মীরাছ পৌঁছে দাও। অতঃপর যা বাকী থাকবে তা মাইয়েতের নিকটতম পুরুষের জন্য’ (বুখারী হা/৬৭৩৭; মুসলিম হা/১৬১৫)।

Posted in আমি মারা গেলে তিন মেয়ে স্ত্রী ও ভাই কে কতটুকু অংশ পাবে? | Tagged

আমার ভাই-ভাতিজা পুরোপুরি কবরপূজারী মুশরিক। তাই তারা আমার সম্পত্তিতে অংশীদার হবে ভেবে আমি আমার তিন মেয়ের নামে সকল সম্পদ লিখে দিয়েছি। এটা জায়েয হয়েছে কি? কবরপূজারীরা সম্পদের অংশীদার হবে কি?


কোন মুসলমান কবরপূজারী হ’লে সে নিঃসন্দেহে শিরককারী ও কবীরা গোনাহগার। কিন্তু প্রকাশ্যে কালেমা শাহাদতকে অস্বীকার করেনি বিধায় সে প্রকৃত কাফির গণ্য হবে না এবং তার অন্তরের পাপের হিসাব আল্লাহর উপরেই ন্যস্ত হবে (বুখারী হা/২৫; মুসলিম হা/২১-২২; মিশকাত হা/১২)। সুতরাং সে অন্যান্যদের … Continue reading

Posted in সম্পদের অংশীদার কবরপূজারীরা হবে কি? | Tagged , ,

আমার এক ছেলে অনেক ঋণের মধ্যে পড়েছে যা পরিশোধ করতে ২ বিঘা জমি বিক্রয় করতে হবে। এক্ষণে অন্য সন্তানদের অবহিত না করে আমার স্থাবর সম্পত্তি বিক্রয় করে তার ঋণ পরিশোধ করা জায়েয হবে কী?।


কোন সন্তান বিপদগ্রস্ত বা ঋণী হ’লে বিপদমুক্তি ও ঋণ পরিশোধের জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ খরচ করতে বাধা নেই এবং এতে অন্য সন্তানদের সম্মতি থাকা অপরিহার্য নয়। কেননা বিপদগ্রস্ত সন্তানকে সহযোগিতা করা পিতার দায়িত্ব এবং তা ন্যায়বিচারেরই অন্তর্ভুক্ত। ইবনু তায়মিয়াহ (রহঃ)-এর মতে, … Continue reading

Posted in সম্পদ ছেলের ঋণের কারনে অন্য ছেলেদের না জানিয়ে বিক্রয় করতে পারবো কি? | Tagged , , ,

ছোট ভাই একাই পিতা-মাতার যাবতীয় দেখা-শোনার দায়িত্ব পালন করে। এক্ষণে পিতা-মাতার মৃত্যুর পর ছোট ভাইকে বড় ভাইদের তুলনায় অধিক সম্পদ দেওয়া যাবে কি?


সকল ভাই ও বোনদের সম্মতি থাকলে ছোট ভাইকে বেশী দেওয়া যাবে। কিন্তু কারো আপত্তি থাকলে কমবেশী  করার কোন সুযোগ নেই। কারণ উত্তরাধিকার সম্পদ বণ্টননীতি আল্লাহ কর্তৃক নির্ধারিত (নিসা ৪/১১-১২; বুখারী হা/২৫৮৭; মিশকাত হা/৩০১৯; ফাতাওয়াল জামেআ লি-মারাতিল মুসলিমা ৩/১১১৫-১১১৬)।

Posted in পিতা-মাতার দেখা-শোনা করায় ছোট ভাইকে অধিক সম্পদ দেওয়া যাবে কি? | Tagged

আমাদের এলাকায় মাইয়েতের সম্পদ দ্বারা জানাযায় অংশগ্রহণকারীদের জন্য খাবারের আয়োজন করা হয়। এরূপ কাজ জায়েয হবে কি? এছাড়া কোন নির্দিষ্ট দিন ধার্য ব্যতীত মৃতের পক্ষ থেকে খানার আয়োজন করা যাবে কি?


মাইয়েতের সম্পদ দ্বারা এটা করা যাবে না। জারীর বিন আব্দুল্লাহ আল-বাজালী (রাঃ) বলেন, দাফনের পরে মাইয়েতের বাড়িতে সমবেত হওয়া এবং খানাপিনার আয়োজন করাকে আমরা বিলাপ হিসাবে গণ্য করতাম (যা নিষিদ্ধ)’ (আহমাদ হা/৬৯০৫; ইবনু মাজাহ হা/১৬১২, সনদ ছহীহ)। হানাফী বিদ্বান কামাল ইবনুল … Continue reading

Posted in মাইয়েতের সম্পদ দ্বারা খাবারের ব্যবস্থা করা যাবে কি? | Tagged , , ,

জনৈক ব্যক্তি তার মা, ভাই, বোন এবং ছেলে-মেয়ে রেখে মারা গেছেন। এক্ষণে তার মা ছেলের সম্পদ হ’তে কতটুকু অংশ পাবেন?


এরূপ অবস্থায় মা মৃত পুত্রের সম্পদ থেকে এক-ষষ্ঠাংশ পাবেন। আল্লাহ বলেন, ‘মৃতের পিতা-মাতার প্রত্যেকে পরিত্যক্ত সম্পত্তির ছয় ভাগের এক ভাগ করে পাবে, যদি মৃতের কোন পুত্র সন্তান থাকে’ (নিসা ৪/১১)।

Posted in সম্পদ মা ছেলের অংশ হ’তে কতটুকু অংশ পাবেন? | Tagged

আমি আমার আত্মীয়ের নিকট থেকে বাজার মূল্যে জমি ক্রয় করব এবং রেজিস্ট্রেশনের সময় হেবা (দানপত্র) হিসাবে দেখাব। এটা জায়েয হবে কি?


সরকার কর্তৃক বর্তমানে অত্যধিক হারে গৃহীত জমি রেজিস্ট্রি ফী নিঃসন্দেহে জনগণের উপর যুলুম। তবুও তা ফাঁকি দেয়ার জন্য প্রশ্নে উল্লেখিত কৌশল কিংবা কোন অনৈতিক পন্থা অবলম্বন করা উচিৎ হবে না। কেননা যালেম শাসকদের অধীনে বসবাসরত নাগরিকদের করণীয় সম্পর্কে রাসূল (ছাঃ) … Continue reading

Posted in জমি রেজিস্ট্রেশনের সময় হেবা (দানপত্র) হিসাবে রেজিস্ট্রি করলে জায়েয হবে কি? | Tagged ,

আমার মা ক্যানসারের রোগী। যেকোন সময় মারা যেতে পারে। আমার নানা তার সমুদয় সম্পত্তি তার দ্বিতীয়া স্ত্রী ও সন্তানদেরকে লিখে দিয়েছে। এক্ষণে আমার মায়ের সম্পত্তিগুলো আমরা লিখে নিতে পারব কি?


এরূপ কাজ করা যাবে না। কারণ উত্তরাধিকার সম্পদের বণ্টননীতি আল্লাহ কর্তৃক নির্ধারিত (নিসা ৪/১১)। অতএব যার যতটুকু প্রাপ্য তা বুঝিয়ে দিতে হবে। আর নানা তার প্রথমা স্ত্রীকে সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করে কবীরা গোনাহ করেছেন। এক্ষণে নানা জীবিত থাকলে হক্বদারদেরকে অবশ্যই তাদের … Continue reading

Posted in মায়ের সম্পত্তিগুলো আমরা লিখে নিতে পারব কি? | Tagged

জমি বা বাড়ী বিক্রয়ের ক্ষেত্রে প্রতিবেশী বা আত্মীয়-স্বজনকে অগ্রাধিকার দেওয়ার ব্যাপারে শরী‘আতের কোন নির্দেশনা আছে কি?


এ ব্যাপারে শরী‘আতের স্পষ্ট নির্দেশনা আছে। যৌথ মালিকানা বা প্রতিবেশী হওয়ার কারণে জমি বিক্রয়ের ক্ষেত্রে তা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে অংশীদারের কাছে কিংবা প্রতিবেশীর কাছে বিক্রয় করতে হবে। একে শরী‘আতের পরিভাষায় শুফ‘আ বলে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, জমি অথবা (খেজুর) বাগানে যদি কারু … Continue reading

Posted in জমি বিক্রয়ের ক্ষেত্রে প্রতিবেশীকে অগ্রাধিকার দিতে হবে কি? | Tagged , , ,

যৌথ পরিবার থেকে প্রবাসে যাওয়ার পর আমাকে পাঠানোর পুরো খরচ পিতা-মাতাকে ফেরত দিয়েছি। কিন্তু পিতা-মাতা ও ভাইয়েরা তা অস্বীকার করছে। তারা বলছে, টাকা না দিলে আমাকে বাড়িতে যেতে দেওয়া হবে না। এক্ষণে আমার করণীয় কি?


বর্ণনামতে পিতা-মাতা ও ভাইয়েরা মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে যদি ভাইয়ের অবদান অস্বীকার করে এবং যুলুম করে, তাহ’লে তারা কবীরা গুনাহগার হবে। এক্ষেত্রে উক্ত প্রবাসী ভাই সমাজ নেতাদের সহায়তা নিয়ে বিষয়টি মীমাংসার উদ্যোগ নিবেন। অথবা প্রচলিত আইনের আশ্রয় নিতে পারেন। অথবা তাদের … Continue reading

Posted in পিতা-মাতা ও ভাইয়েরা টাকা দেওয়া অস্বীকার করলে আমার করণীয় কি? | Tagged ,

জমি সহ বিভিন্ন ক্রয়-বিক্রয়ে সহযোগিতার মাধ্যমে উপার্জন করা জায়েয হবে কি?


প্রতারণা না থাকলে বা অন্যের হক বিনষ্ট করার উদ্দেশ্য না থাকলে জায়েয হবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, মুসলিমগণ তাদের পরস্পরের শর্তানুযায়ী কাজ করবে যদি তা হালাল হয় (হাকেম হা/২৩১০; ছহীহুল জামে‘ হা/৬৭১৫)। ইমাম বুখারী (রহঃ) ‘দালালের মজুরী’ শিরোনামে অধ্যায় রচনা করে বলেন,  … Continue reading

Posted in জমি সহ বিভিন্ন ক্রয়-বিক্রয়ে সহযোগিতার মাধ্যমে উপার্জন করা জায়েয হবে কি? | Tagged , , ,

আমার ফুফা মৃত্যুর পূর্বে তার সঞ্চিত অর্থ আমার ফুফুর নিকটে রেখে যান। ফুফাতো ভাই-বোনদের মধ্যে বড় ছেলের আর্থিক অবস্থা ভালো নয়। তাই আমার ফুফু উক্ত অর্থ ফিক্সড ডিপোজিট করে তিন মাস পরপর যা সূদ আসে তা বড় ছেলেকে দেন। এজন্য আমার ফুফু বা তা বড় ছেলে গুনাহগার হবেন কি?


এভাবে টাকা রেখে সূদের অর্থ সন্তানকে দান করা জায়েয নয়। কারণ সূদ সর্বাবস্থায় হারাম। এরূপ করার কারণে মূলত উক্ত মা গুনাহগার হবেন। এক্ষণে উক্ত টাকা উঠিয়ে মূল টাকা থেকে সন্তানের পিছনে খরচ করবেন। অথবা তা কোন বৈধ ব্যবসায় খাটিয়ে সেখান … Continue reading

Posted in অর্থ ফিক্সড ডিপোজিট করে সংসার চালানো যাবে কি? | Tagged , ,

এক ব্যক্তি চার শতক জমি ক্রয় করেছিল। বর্তমানে নকশায় দেখা যাচ্ছে তা আট শতক। এক্ষণে ক্রেতার জন্য অতিরিক্ত চার শতক জমি ভোগ করা জায়েয হবে কি?


অতিরিক্ত জমি ভোগ করা জায়েয হবে না। কারণ সেগুলোর মালিক বিক্রেতা। এক্ষণে বিষয়টি জমির মালিককে অভিহিত করে অতিরিক্ত অংশ তাকে বা তার উত্তরাধিকারীদের ফেরত দিতে হবে। এছাড়া বিষয়টি প্রশাসন বিভাগের ভুলেও হ’তে পারে। সেক্ষেত্রে সেখান থেকে তা সমাধান করার চেষ্টা … Continue reading

Posted in জমি চার শতক কিনলে আট শতক পেয়েছি এই অতিরিক্ত জমি ভোগ করা যাবে কি? | Tagged ,

আমার দুই মেয়ে ও স্ত্রী রয়েছে। তারা চাচ্ছে এখনই তাদের নামে জমি-জমা রেজিস্ট্রি করে দেই। এরূপ কাজ করা জায়েয হবে কি?


এরূপ করা জায়েয হবে না। কারণ পুত্র সন্তান না থাকায় মৃতের নিকটতম পুরুষেরা আছাবা হিসাবে নির্দিষ্ট অংশ পাবে (নিসা ৪/১১; বুখারী হা/৬৭৩২; মিশকাত হা/৩০৪২)। আর মৃত্যুর পূর্বে স্ত্রী-কন্যাদের মাঝে সম্পদ বণ্টন করলে তাদেরকে বঞ্চিত করা হবে, যা হারাম।   উল্লেখ্য, উত্তরাধিকার সম্পদ … Continue reading

Posted in জমি-জমা মেয়ের নামে রেজিস্ট্রি করে দেওয়া জায়েয হবে কি? | Tagged

জনৈক নারীর প্রথম পক্ষের ১টি ছেলে এবং দ্বিতীয় পক্ষে ১টি ছেলে ও ১টি মেয়ে রয়েছে। এক্ষণে তার উভয় স্বামী মারা গেলে প্রথম পক্ষের ছেলেটি উভয় পিতারই সম্পদের ওয়ারিছ হবে কি?


প্রথম পক্ষের ছেলেটি কেবল তার নিজ পিতার সম্পদের ওয়ারিছ হবে। সৎ পিতার সম্পদের হবে না। তবে সে তার মায়ের সম্পদের ওয়ারিছ হবে। অবশ্য সৎপিতার সাথে অন্য দিক থেকে আত্মীয়তার সম্পর্ক (যেমন চাচা) থাকলে আছাবা সূত্রে পেতে পারে।

Posted in সন্তান সৎপিতার সম্পদের ওয়ারিছ হবে কি? | Tagged

আমরা ৫ বোন ১ ভাই। পিতা ভাইয়ের নামে বিপুল পরিমাণ অর্থ ডিপিএস, ব্যাংক ব্যালান্সের নমিনী এবং সমুদয় জমিজমা ভাইয়ের নামে লিখে দিয়ে মৃত্যুবরণ করেন। ভাই এখন সেগুলির ভাগ অন্য কাউকে দিতে অস্বীকার করছে। এক্ষণে এরূপ অন্যায় কর্মের জন্য পিতা না ভাই দায়ী হবেন?


ওয়ারিছগণ কে কতটুকু পাবে তা স্বয়ং আল্লাহ নির্ধারণ করে দিয়েছেন (নিসা ৪/৭, ১১)। সুতরাং বণ্টনের ক্ষেত্রে উক্ত নীতির ভিত্তিতেই ভাগ করতে হবে। এক্ষেত্রে কোন কমবেশী করা নিঃসন্দেহে কাবীরা গুনাহ এবং তা হক বিনষ্টের শামিল। প্রশ্ন অনুযায়ী পিতা ও ভাই উভয়ে দায়ী … Continue reading

Posted in জমিজমা ভাইয়ের নামে লিখে দিলে এই অন্যায় কর্মের জন্য কে দায়ী হবেন? | Tagged , ,

জনৈক ব্যক্তি দু’জন স্ত্রী রেখে মারা গেছেন। একজন নিঃসন্তান, অপরজনের ৩ ছেলে। এক্ষণে সম্পদ কিভাবে বণ্টিত হবে?


যদি মৃতের পিতা-মাতা বা ঊর্ধ্বতন কোন ওয়ারেছ না থাকে, তাহ’লে দুই স্ত্রী আট ভাগের এক ভাগ এবং বাকী সমুদয় সম্পত্তি ছেলেরা পাবে। আল্লাহ বলেন, আর তোমাদের পরিত্যক্ত সম্পত্তিতে স্ত্রীরা সিকি পাবে, যদি তোমাদের কোন সন্তান না থাকে। যদি থাকে, তবে তারা … Continue reading

Posted in জনৈক ব্যক্তি দু’জন স্ত্রী রেখে মারা গেছেন। তার সম্পদ কিভাবে বণ্টিত হবে? | Tagged , ,

আমার বড় ভাই পিতার সম্পদ ক্রয়ে এবং আমাদের গৃহ নির্মাণে অনেক আর্থিক সহযোগিতা করেছেন। যদিও সবকিছু পিতার নামেই রেজিস্ট্রি হয়েছে। এক্ষণে পিতার মৃত্যুর পর সম্পদ বণ্টনের ক্ষেত্রে কমবেশী করা যাবে কি?


এক্ষেত্রে ভাই-বোন সর্বসম্মতিক্রমে তাকে কিছু বেশী দিলে তাতে শরী‘আতে কোন বাধা নেই। তবে সম্মতি না দিলে কোন কম-বেশী করার সুযোগ নেই। কেননা প্রত্যেকের প্রাপ্য হক পবিত্র কুরআনে নির্ধারিত করে দেয়া হয়েছে (নিসা ৪/১১)।

Posted in সম্পদ পিতার মৃত্যুর পর বণ্টনের ক্ষেত্রে কমবেশী করা যাবে কি? | Tagged ,

কোন সন্তান নিয়মিত ছালাত আদায় না করলে পিতা হিসাবে তাকে সম্পদের অংশ দেওয়া যাবে কি?


অলসতাবশতঃ ছালাত ত্যাগ করলে সম্পদের অংশ দেওয়া যাবে (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমা ৬/৪৯-৫০)। আর যদি ছালাতকে বিশ্বাসগতভাবে অস্বীকার করে, তাহ’লে সে কাফির হিসাবে গণ্য হবে এবং মুসলিম পিতা বা আত্মীয়ের সম্পদে অংশীদার হবে না। রাসূল (ছাঃ) বলেন, মুসলিম কোন কাফিরের ওয়ারিছ হবে … Continue reading

Posted in সন্তান নিয়মিত ছালাত আদায় না করলে তাকে সম্পদের অংশ দেওয়া যাবে কি? | Tagged

জনৈক ব্যক্তি তার ৪ মেয়েকে বঞ্চিত করে সমস্ত সম্পদ ছেলের নামে লিখে দিয়েছেন। মৃত্যুকালে একজন মেয়ে জামাই এ ব্যাপারে তাকে ভীতি প্রদর্শন করলে তিনি ক্রুদ্ধ হন। এক্ষণে এরূপ ভীতি প্রদর্শন জায়েয হয়েছে কি?


এভাবে হক কথা বলায় শ্বশুর অসন্তুষ্ট হ’লে তাতে দোষ নেই। তবে বাড়াবাড়ি করে থাকলে সেটা ঠিক হয়নি। কন্যা সন্তানদের বঞ্চিত করায় পিতা অবশ্যই গুনাহগার হবেন। আল্লাহ বলেন, আল্লাহ তোমাদের সন্তানদের (মধ্যে মীরাছ বণ্টনের) ব্যাপারে তোমাদেরকে নির্দেশ দিচ্ছেন যে, এক পুত্রের … Continue reading

Posted in জমি সঠিক ভাবে বন্ঠন না করাই মৃত্যুকালে ভয় দেখানো ঠিক হয়েছে কি ? | Tagged ,

ওলী ছাড়া বিবাহের পর ১টি সন্তান হয়েছে। সন্তান জন্মের পর মেয়ের পিতা-মাতা উক্ত বিবাহ মেনে নিয়েছেন। এক্ষণে ঐ সন্তানটি কি জারজ হিসাবে গণ্য হবে? সে কি পিতা-মাতার সম্পদের অংশীদার হবে?


যদি কেউ সাক্ষী ও ওলী ব্যতীত গোপনে কাউকে বিবাহ করে, উক্ত বিবাহ বাতিল হওয়ার ব্যাপারে ওলামায়ে কেরাম একমত। তবে যদি তারা একান্তই বিবাহ জায়েয হয়েছে মনে করে সহবাস করে, সেক্ষেত্রে তাদের একত্রবাস ‘সন্দেহপূর্ণ’ বিবেচিত হবে। এমতাবস্থায় সন্তান পিতার সাথে সম্পৃক্ত … Continue reading

Posted in অ‌ভিভাবক বা ওলী না থাক‌লে করণীয়!, বিবাহ উকীল বাবা’র মাধ্যমে পড়ানো যায় কি?, বিবাহ ওলী ছাড়া করলে তাদের সন্তান কি জারজ হিসেবে গন্য হবে?, বিবাহ শুদ্ধ হওয়ার জন্য কি কি শর্ত প্রযোজ্য?, বিবাহ শুদ্ধ হয়নি জানতে পারলাম. এখন বৃদ্ধ বয়সে করণীয় কি?, বিবাহে সম্মতি না থাকলে বিবাহ বলে গন্য হবে কি? | Tagged ,

বেকার স্বামীর জন্য স্ত্রীর উপার্জন থেকে পরিবার পরিচালনার যাবতীয় ব্যয় করা জায়েয হবে কি?


স্ত্রীর সম্মতি থাকলে জায়েয হবে। স্ত্রী স্বামীর সংসারে খরচ করলে দ্বিগুণ নেকী পাবেন। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) এরশাদ করেন, ‘মিসকীনকে ছাদাক্বা দিলে একটি ছাদাক্বা হয়। কিন্তু সে যদি রক্ত সম্পর্কীয় নিকটাত্মীয় হয়, তবে নেকী দ্বিগুণ হয়। এক-ছাদাক্বা এবং দুই-আত্মীয়তা (আহমাদ, তিরমিযী, মিশকাত হা/১৯৩৯)। … Continue reading

Posted in স্ত্রীর উপার্জন থেকে পরিবার পরিচালনার ব্যয় করা জায়েয হবে কি? | Tagged , ,

আমার ভাইয়েরা প্রতিনিয়ত আমার ক্ষতি করে যাচ্ছে। আমি মারা গেলে আমার স্ত্রী-সন্তানদেরও ভরণপোষণ তারা করবে না। আমি ও আমার স্ত্রী খেয়ে না খেয়ে কিছু কিছু সঞ্চয় করছি। এর অধিকাংশ অবদান আমার স্ত্রীর। এক্ষণে আমি মারা গেলে আমার ভাইয়েরা কি সম্পদের অংশ পাবে?


ছেলে সন্তান থাকলে ভাইয়েরা অংশীদার হবে না। কেবল স্ত্রী ও কন্যা সন্তান থাকলে ব্যক্তি মারা গেলে এবং তার পিতা-মাতা বেঁচে না থাকলে ভাইয়েরা অংশীদার হবে। এটি আল্লাহর দেওয়া বিধান, যা প্রশ্নাতীতভাবে মেনে নেওয়া আবশ্যক। তবে স্ত্রীর নিজস্ব সম্পদে স্বামীর কোন … Continue reading

Posted in সম্পদের অংশ স্বামী মারা গেলে স্বামীর ভাইয়েরা কি পাবে? | Tagged ,

আমার কেবল দুই মেয়ে। আমি আমার সমস্ত সম্পদ তাদের নামে লিখে দিয়েছি। এরূপ করা সঠিক হয়েছে কি?


সঠিক হয়নি। কারণ পিতার মৃত্যুর পর তার স্ত্রী, কন্যা, ভাই-বোন সহ অন্যান্যদের অংশ শরী‘আত কর্তৃক নির্ধারিত (নিসা ৪/১১)। যার ব্যত্যয় ঘটানো আল্লাহ কর্তৃক নির্ধারিত সীমা লংঘনের শামিল (নিসা ৪/১৩)। বিবরণ অনুযায়ী মোট সম্পদের দুই-তৃতীয়াংশ দুই মেয়ে পাবে এবং বাকী অংশ অন্য ওয়ারিছগণ … Continue reading

Posted in সম্পদ সবগুলো মেয়েদের নামে লিখে দেওয়া যাবে কি ছেলে না থাকায়? | Tagged

সূরা ওয়াক্বি‘আহ পাঠ করলে অভাব-অনটন দূর হয় কি?


উক্ত মর্মে বেশ কিছু বর্ণনা রয়েছে, যার কোনটি যঈফ কোনটি জাল (সিলসিলা যঈফাহ হা/২৮৯-২৯১; মিশকাত হা/২১৮১)।

Posted in সূরা ওয়াক্বি‘আহ পাঠ করলে অভাব-অনটন দূর হয় কি? | Tagged ,

আমার পিতা ও এক ভাই মারা গেছেন। আমরা দুই ভাই, বোন ও আমাদের মা জীবিত আছি। মৃত ভাইটি এক ছেলে, এক মেয়ে ও স্ত্রী রেখে গেছেন। আমাদের পিতার কোন সম্পত্তি নেই। কিন্তু আমাদের মা প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকার মালিক। তিনি তা ছেলে-মেয়েদের মধ্যে শরী‘আত মোতাবেক এখনই বণ্টন করে দিতে চান। এ অবস্থায় কে কতটুকু অংশ পাবে?


মাতার জীবদ্দশায় তার ছেলে মৃত্যুবরণ করায় ঐ ছেলের সন্তানেরা তাদের দাদীর সম্পত্তির ওয়ারিছ হবে না (ফাতাওয়া লাজনা দায়েমাহ, ফৎওয়া নং ১৯১৪৯, ১৬/৪৮৯ পৃঃ)। এমতাবস্থায় দাদী সর্বাগ্রে তার ঋণ (যদি থাকে) পরিশোধের পর নাতী-নাতনীদের জন্য অনধিক এক-তৃতীয়াংশ হেবা করতে পারেন (বুখারী, মুসলিম; মিশকাত … Continue reading

Posted in পিতা মারা গেলে মায়ের সম্পত্তি কিভাবে বন্ঠন হবে?, সমানভাবে দুই মেয়েকে সমস্ত সম্পদ লিখে দিয়েছে। তার, সম্পত্তি কে কত অংশ পাবে?, সম্পত্তি চালাকি করে লিখে নিলে দায়ী কে হবে?, সম্পত্তি ভাতিজা ও ভাতিজীদের মাঝে কিভাবে বণ্টিত হবে?, সম্পত্তি রেখে যাওয়া কি আবশ্যক সন্তানের জন্য?, সম্পত্তি স্ত্রীর নামে কিছু লিখে দেয়া যাবে কি?, সম্পত্তির যেকোন একটির ওয়ারিছ মেয়েরা হ’তে পারবে কি?, সম্পদ কিভাবে বন্ঠন হবে?, সম্পদ ছেলে কে না বলে মেয়েকে লিখে দেওয়া যাবে কি?, সম্পদ দেখা শুনার জন্য তাকে কিছু সম্পদ দেওয়া যাবে কি?, সম্পদ নিয়ে বেঈমানী করলে শাস্তি থেকে বাঁচানোর উপায় কি?, সম্পদ পিতা বিক্রয় করার পর ভুল প্রমাণিত হলে করণীয় কি?, সম্পদ পিতা-মাতা স্ত্রী ও তিন মেয়ের মধ্যে অংশ কিভাবে বণ্টিত হবে?, সম্পদ পিতাকে না জানিয়ে খরচ করা যাবে কি?, সম্পদ মালিক জীবিত অবস্থায় বণ্টন করা করা যাবে কি?, সম্পদ মৃত্যুর কতদিনের মধ্যে ওয়ারিছদের মাঝে বণ্টন করতে হয়?, সম্পদ সন্তান পিতা-মাতার উভয়ের সম্পদেই কি সে অংশীদার হবে?, সম্পদ সমান করে ভাগ করে না দিলে কি হবে? | Tagged