Tag Archives: স্বামী-স্ত্রী

কারো স্ত্রী (কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন) যদি কোন পরপুরুষের সাথে যেনা করে ফেলে, সেক্ষেত্রে উক্ত স্বামীর করণীয় কি?


এমতাবস্থায় তাকে আটকে রাখতে হবে এবং এরূপ অন্যায় থেকে বিরত রাখতে হবে। জনৈক ব্যক্তি এসে রাসূল (ছাঃ)-কে বলল, হে আল্লাহর রাসূল! আমার একজন স্ত্রী আছে। সে এমনই যে, কাউকে ফিরিয়ে দেয় না। রাসূল (ছাঃ) বললেন, তুমি তাকে তালাক দিয়ে দাও। … Continue reading

Posted in মানসিক ভারসাম্যহীন নারী যেনা করলে তার স্বামীর করণীয় কি? | Tagged ,

চার সন্তানের জনক জনৈক ব্যক্তি বিবাহের ৮-১০ বছর পর থেকে বিগত ১৬ বছর যাবত একই বাসায় থাকলেও স্ত্রী সংসর্গ থেকে দূরে থাকেন এবং পৃথক বিছানায় রাত্রি যাপন করেন। একারণে স্ত্রী তার ব্যাপারে বিভিন্ন সন্দেহ করেন। এমতাবস্থায় তাদের বিবাহ ঠিক আছে কি? এক্ষণে স্বামী বা স্ত্রীর জন্য করণীয় কি?


তালাক না দেওয়ায় বিবাহ ঠিক আছে। তবে একত্রে থাকার পরও স্ত্রী থেকে এতদিন বিরত থাকায় স্বামী কবীরা গোনাহগার হয়েছে। এজন্য তাকে তওবা করতে হবে। আল্লাহ বলেন, ‘তোমরা স্ত্রীদের সাথে সদ্ভাবে বসবাস কর (নিসা ৪/১৯)। রাসূল (ছাঃ)-এর নিকটে আব্দুল্লাহ বিন আমর ইবনুল ‘আছ … Continue reading

Posted in স্বামী-স্ত্রী আলাদা থাকলে কি তালাক হয়ে যায়? | Tagged ,

আমি শহুরে পরিবেশে বড় হয়েছি। আমার স্বামী আমাকে শহরে রাখতে চায়। কিন্তু শ্বশুর-শ্বাশুড়ী আমাকে গ্রামে রাখার পক্ষে। স্বামী তার পিতা-মাতার নির্দেশ অমান্য করে আমাকে শহরে রেখেছে। এক্ষণে আমার স্বামী বা আমি কি গোনাহগার হব?


স্ত্রীর জন্য যরূরী হ’ল স্বামীর আনুগত্য করা। স্বামী স্ত্রীকে যেখানে রাখবে সে সেখানেই অবস্থান করবে। স্বামী মাতা-পিতার খিদমত কীভাবে করবে সেটি স্বামীর দায়িত্ব। এক্ষেত্রে স্বামীর সুযোগ থাকলে এবং স্ত্রীর যথাযথ হক আদায় করতে পারলে স্ত্রীকে গ্রামের বাড়িতে রাখতে পারে। কারণ … Continue reading

Posted in শ্বশুর-শ্বাশুড়ী কথা না শুনলে গোনাহগার হব কি? | Tagged

কোন বিধবা বা তালাকপ্রাপ্তা নারীকে বিবাহ করার ক্ষেত্রে তার পূর্বস্বামীর সন্তানের খরচ বহন করা যরূরী কি? উক্ত নারী কি নতুন বিবাহের পর উক্ত সন্তানদের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন করতে পারবে?


উক্ত সন্তানদের খরচ বহন করা অপরিহার্য নয়। বরং মায়ের অধীনে থাকলে অভিভাবক হিসাবে মা তাদের খরচ বহন করার ব্যাপারে দায়িত্বশীল হবে। তবে মা যেহেতু  ব্যক্তির স্ত্রী হিসাবে তার নিয়ন্ত্রণে রয়েছে, সেহেতু অশেষ ছওয়াবের আশায় উক্ত সন্তানদের খরচ বহন করা উচিৎ। … Continue reading

Posted in বিধবাকে বিবাহ করার ক্ষেত্রে তার পূর্বস্বামীর সন্তানের খরচ বহন করা যরূরী কি | Tagged , , ,

শারীরিক ক্ষতির সম্ভাবনা থাকায় স্ত্রীর সাথে স্বাভাবিক সংসর্গ ব্যতীত জৈবিক চাহিদা মেটানোর ভিন্ন পন্থা অবলম্বন করা শরী‘আতসম্মত হবে কি?


এরূপ পরিস্থিতিতে পশ্চাদ্বার ব্যবহার ও ক্ষতিকর পন্থা ব্যতীত যেকোন পন্থা অবলম্বন করা যেতে পারে (তিরমিযী, মিশকাত হা/৫৫১; ইবনু মাজাহ হা/২৩৪০; ফাতাওয়া আশ-শাবকাতুল ইসলামিয়া, ফৎওয়া নং ৫৬৩১২)।

Posted in স্ত্রীর সাথে ভিন্ন পন্থায় জৈবিক চাহিদা মেটানো যায় কি ক্ষতির সম্ভাবনা থাকলে | Tagged

বিবাহের পূর্বে দেনমোহর নিয়ে অভিভাবকের সাথে পাত্রের বনিবনা না হওয়ায় বিবাহ ভেঙ্গে যায়। পরে তারা পালিয়ে গিয়ে কাযী অফিসের মাধ্যমে বিবাহ করে। কিছুদিন পর যুবকটি তাকে তিন মাসে তিন তালাক দেয়। এক্ষণে তারা পুনরায় সংসার করতে ইচ্ছুক। তাদের জন্য করণীয় কি?


বর্ণনা অনুযায়ী উক্ত বিবাহ সঠিক হয়নি। সেকারণ তালাক প্রযোজ্য হবে না। কেননা কন্যার অভিভাবকের অনুমতি ব্যতীত বিবাহ বৈধ নয় (ইবনু মাজাহ হা/১৮৭৯; মিশকাত হা/৩১৩১, ৩১৩৭)। অতএব যতদিন তারা বসবাস করেছে, ততদিন তারা ব্যভিচারে লিপ্ত ছিল। এক্ষণে তারা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হ’তে … Continue reading

Posted in অ‌ভিভাব‌কের বিনা অনুম‌তি‌তে বিবাহ কর‌লে বিবাহ হবে কী এবং সম্পদ পা‌বে কী?, অ‌ভিভাবক বা ওলী না থাক‌লে করণীয়!, তালাক দেওয়ার পরে পূনরায় সংসার করতে চাইলে করণীয় কি? | Tagged , ,

সংসারবিমুখ নববধু রাজধানীতে গুরুত্বপূর্ণ সরকারী চাকুরীতে ব্যস্ত থাকে এবং স্বামী দেশের বাড়িতে রান্না-বান্না সহ যাবতীয় কাজ আঞ্জাম দেয়। এক্ষণে স্বামীর জন্য করণীয় কি?


নারীর মৌলিক দায়িত্ব স্বামীর ঘর সামলানো এবং   সন্তান প্রতিপালন। আর পুরুষের দায়িত্ব পরিবারের ভরণ-পোষণ। (ক্বিয়ামতের দিন) স্বামী পরিবার সম্পর্কে তার দায়িত্বের ব্যাপারে এবং স্ত্রী তার স্বামীর সংসার ও সন্তান-সন্তুতি সম্পর্কিত দায়িত্বের ব্যাপারে জিজ্ঞাসিত হবে (বুখারী, মুসলিম, মিশকাত হা/৩৬৮৫)। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, … Continue reading

Posted in সংসারবিমুখ নববধূর স্বামীর জন্য করণীয় কি? | Tagged

কোন মেয়ে যদি ভুল করে স্বামীকে ‘বাবা’ বলে সম্বোধন করে তাহ’লে সেটি ‘যিহার’ হবে কি? ঐ মেয়ের বা তার স্বামীর করণীয় কি?


স্ত্রীর পক্ষ থেকে যিহার হয় না (ফাতাওয়া মারআতুল মুসলিমাহ ২/৮০৩ পৃঃ; উছায়মীন, ফাতাওয়া নুরুন আলাদ দারব-১৯)। করলে তা বাজে কথার অন্তর্ভুক্ত হবে। যা মুমিনের বৈশিষ্ট্য নয়। মুমিন অনর্থক কথা বা কাজ থেকে বিরত থাকে (মুমিনূন ২৩/১-৩)। অতএব এ ধরনের কথাবার্তা থেকে বিরত … Continue reading

Posted in স্বামীকে ‘বাবা’ বলে সম্বোধন করলে ‘যিহার’ হবে কি? | Tagged

জনৈকা স্ত্রী তার স্বামীকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। শরী‘আতে এর শাস্তি কি?


কোন মুসলিমকে গালি দেওয়া কাবীরা গুনাহ (নববী, শরহ মুসলিম হা/৬৪–এর ব্যাখ্যা)। রাসূল (ছাঃ) বলেছেন, ‘মুসলিমকে গালি দেওয়া ফাসেকী এবং তার সাথে যুদ্ধ করা কুফরী (বুখারী হা/৪৮; মুসলিম হা/৬৪; মিশকাত হা/৪৮১৪)। লাক্বীত্ব বিন ছাবেরাহ (রাঃ) বলেন, ‘একদিন আমি রাসূল (ছাঃ)-কে বললাম, আমার একজন … Continue reading

Posted in স্ত্রী তার স্বামীকে গালিগালাজ করলে শরী‘আতে এর শাস্তি কি? | Tagged

বিবাহের পর স্ত্রী পড়াশুনা চালিয়ে যেতে চায়। কিন্তু স্বামী তাতে রাযী নয়। এক্ষণে উক্ত স্ত্রীর জন্য করণীয় কি?


বিবাহের পর স্বামীই তার স্ত্রীর মূল অভিভাবক। অতএব স্বামীর ইচ্ছার বিরুদ্ধাচরণ করা জায়েয হবে না। তিনি অন্যায়ভাবে এরূপ করে থাকলে স্ত্রী নিজে বা অন্য কারু মাধ্যমে তাকে বুঝানোর চেষ্টা করবে। কিন্তু কোনক্রমেই তার অবাধ্য হবে না। রাসূল (ছাঃ) জনৈকা মহিলাকে … Continue reading

Posted in বিবাহের পর স্ত্রী পড়াশুনা চাইলে স্বামী তাতে রাযী না হলে করণীয় কি? | Tagged

কোন ব্যক্তির এক স্ত্রীর সন্তান যদি তার অন্য স্ত্রীর দুধ পান করে তবে দুধপানকারীর মা কি তালাক হয়ে যাবে?


তালাক হবে না। বরং তিনি উক্ত সন্তানের দুধ মা হিসাবে গণ্য হবেন (বুখারী হা/২৬৪৫; মিশকাত হা/৩১৬১)।

Posted in সন্তান অন্য স্ত্রীর দুধ পান করলে দুধপানকারীর মা কি তালাক হয়ে যাবে? | Tagged

স্বামী কর্তৃক স্ত্রীর জীবিকা নির্বাহের খরচ বহন না করলে স্ত্রীর জন্য স্বামীর বিছানা থেকে পৃথক থাকার সিদ্ধান্ত গ্রহণে কোন বাধা আছে কি?


এরূপ ক্ষেত্রে বিছানা পৃথক না করে ধৈর্যধারণ করতে হবে। কারণ ধৈর্যের দ্বারা যে ফলাফল পাওয়া যায়, অন্য কিছু দ্বারা তা পাওয়া যায় না (বুখারী হা/১৪৬৯, মুসলিম হা/১০৫৩)। এভাবে স্বামীকে অন্যায় পথ থেকে ফিরিয়ে আনার সাধ্যমত চেষ্টা করতে হবে। এতে একসময় স্বামী … Continue reading

Posted in স্বামী কর্তৃক স্ত্রীর খরচ বহন না করলে বিছানা পৃথক করা যাবে কি? | Tagged

আমি খুব সামান্য বেতনের চাকুরী করি, যা দিয়ে স্ত্রীর ভরণ পোষণ সম্ভব নয়। অথচ আমার পিতা-মাতা আমাকে বিবাহ দিতে চান। এক্ষণে আমার করণীয় কি?


এমন অবস্থায় বিবাহ করাই উত্তম হবে। কারণ আল্লাহ বলেন, ‘তোমাদের মধ্যে যারা অবিবাহিত আছে, তাদের বিবাহ সম্পাদন করে দাও … তারা যদি নিঃস্ব হয়, তবে আল্লাহ নিজ অনুগ্রহে তাদেরকে সচ্ছলতা দান করবেন’ (নূর ২৪/৩২)। ইবনু আববাস (রাঃ) বলেন, উক্ত আয়াতে আল্লাহ … Continue reading

Posted in বিবাহ করে স্ত্রীর ভরণ পোষণ চালানো সম্ভব না হলেও করতে পারবো কি? | Tagged ,

জনৈক ব্যক্তি বলেন, স্ত্রীকে খুশী করার জন্য এবং যুদ্ধক্ষেত্রে দাড়িতে কলপ করা যায়। একথার কোন সত্যতা আছে কি?


এ মর্মে বর্ণিত হাদীছটি যঈফ (ইবনু মাজাহ হা/৩৬২৫; যঈফাহ হা/২৯৭২; যঈফুল জামে‘ হা/১৩৭৫)। স্মর্তব্য যে, সাদা দাড়ি বা চুল রঙ্গিন করা যায়। তবে কালো রং করা নিষিদ্ধ। রাসূল (ছাঃ) বলেছেন, শেষ যামানায় একশ্রেণীর লোক চুল-দাড়িতে কালো রং দ্বারা খেযাব দিবে। দেখতে … Continue reading

Posted in স্ত্রীকে খুশী করার জন্য এবং যুদ্ধক্ষেত্রে দাড়িতে কলপ করা যায় কি? | Tagged

সন্তান জন্মের সময় মহিলার স্বামী ধাত্রীর সাথে সহযোগিতা করতে পারবেন কি?


ধাত্রীর বর্তমানে স্বামী আনুসঙ্গিক কাজে সাহায্য করতে পারেন। তবে প্রসবের ব্যাপারে নয়। তাই এসময় তার জন্য সেখানে থাকা বৈধ হবে না। রাসূল (ছাঃ) বলেছেন, ‘কোন পরপুরুষ যদি কোন মহিলার সঙ্গে নির্জনে মিলিত হয়, তাহ’লে সেখানে তৃতীয়জন উপস্থিত হয় শয়তান’ (তিরমিযী হা/২১৬৫; … Continue reading

Posted in সন্তান জন্মের সময় মহিলার স্বামী ধাত্রীর সাথে সহযোগিতা করতে পারবেন কি? | Tagged

কোন মহিলা স্বামী থাকা অবস্থায় অন্য পুরুষের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হ’তে পারবে কি? বিশেষতঃ বার বার বলা সত্ত্বেও স্বামী যদি তালাক না দেয় সেক্ষেত্রে করণীয় কি?


পারবে না। কারণ স্বামীর সাথে উক্ত মহিলার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়নি। এক্ষণে স্বামী তালাক দিতে না চাইলে মোহরানা ফেরৎ দিয়ে ‘ফিসখে নিকাহ’ করবে এবং এক ঋতুকাল ইদ্দত শেষে অন্যের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হবে (নাসাঈ হা/৩৪৯৭ ‘খোলা কারিনীর ইদ্দতকাল’ অনুচ্ছেদ)।

Posted in তালাক না দিলে স্ত্রীর করণীয় কি?, বিবাহ স্বামী থাকা সত্বেও অন্য জায়গায় করতে পারবে কি? | Tagged , ,

রামাযান মাসে দিনের বেলা স্ত্রী সহবাস করলে স্বামী-স্ত্রী উভয়কে কাফফারা দিতে হবে, না কেবল স্বামী দিলেই যথেষ্ট হবে?


স্বামী স্ত্রী উভয়ে এতে সম্মত থাকলে উভয়কে কাফফারা ও কাযা আদায় করতে হবে (বুখারী হা/১৯৩৬; মুসলিম হা/১১১১; মিশকাত হা/২০০৪; আব্দুল্লাহ বিন বায, মাজমূ ফাতাওয়া ১৫/৩০৭)। উক্ত ছিয়াম কাযা আদায় করতে হবে এবং কাফফারা দিতে হবে। এর কাফফারা হ’ল- ১- একজন দাস … Continue reading

Posted in রামাযান মাসে দিনের বেলা সহবাস করলে উভয়কে কাফফারা দিতে হবে কি? | Tagged ,

স্ত্রী স্বামীর নিকটে বা স্বামী স্ত্রীর নিকটে কোন কাজের ব্যাপারে কৈফিয়ত চাইতে পারে কি? বিশেষত তাদের কেউ যদি অপরের অপসন্দের কাজ করে থাকে?


উভয়ে উভয়ের কল্যাণের জন্য সৎ পরামর্শ দিতে পারে। তবে যথাযোগ্য কোন বিষয়ে কৈফিয়ত চাওয়ার অধিকার পরিবার প্রধান হিসাবে কেবল স্বামীর জন্য নির্দিষ্ট। আল্লাহ বলেন, ‘পুরুষেরা নারীদের উপর কর্তৃত্বশীল। ….নেককার স্ত্রীলোকগণ হয় অনুগত… (নিসা ৩৪)। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, ‘স্বামী তার পরিবারের … Continue reading

Posted in স্ত্রী স্বামীর নিকটে বা স্বামী স্ত্রীর নিকটে কৈফিয়ত চাইতে পারে কি? | Tagged

স্ত্রী সহবাসের নিষিদ্ধ সময় এবং উপকারী দিনসমূহ সম্পর্কে জানিয়ে বাধিত করবেন।


এর কোন নিষিদ্ধ বা নির্ধারিত সময় নেই। বরং আল্লাহ বলেন, ‘তোমাদের স্ত্রীগণ তোমাদের জন্য ক্ষেত স্বরূপ। সুতরাং তোমরা তোমাদের ক্ষেতে যেভাবে ইচ্ছা গমন কর’ (বাক্বারাহ ২২৩)। এছাড়া শুক্রবারে মিলিত হওয়ার ব্যাপারে আলী (রাঃ) বর্ণিত হাদীছটি ‘মুনকার’ তথা যঈফ (সিলসিলা যঈফাহ … Continue reading

Posted in স্ত্রী সহবাসের নিষিদ্ধ সময় এবং উপকারী দিনসমূহ কোনটি? | Tagged

বিবাহের কিছুদিন পর স্ত্রী সংসার ত্যাগ করে চলে যায়। এমতাবস্থায় উক্ত মহিলার অবশিষ্ট মোহরানা পরিশোধ করতে হবে কি?


এরূপ অবস্থায় স্বামীকে আর কিছুই দিতে হবে না। বরং স্ত্রী স্বেচ্ছায় সংসার ত্যাগ করতে চাইলে তাকে স্বামী প্রদত্ত পুরা মোহরানা ফেরত দিয়ে ‘খোলা’-র মাধ্যমে বিচ্ছিন্ন হ’তে হবে (বুখারী হা/৫২৭৩; মিশকাত হা/৩২৭৪)।

Posted in স্ত্রী স্বেচ্ছায় সংসার ত্যাগ করলে মোহরানা ফেরত দিতে হবে কি? | Tagged ,

স্বামী স্ত্রীকে তালাক দেওয়ার পর কতদিন পর্যন্ত খোরপোষ দেওয়ার শারঈ নির্দেশনা রয়েছে?


স্বামী স্ত্রীকে রাজঈ তালাক দিলে ইদ্দতকাল পর্যন্ত খোরপোষ দিবে (নাসাঈ হা/৩৪০৩; ছহীহাহ হা/১৭১১; আল-ইসতিযকার ১৮/৬৯)। আর তালাকপ্রাপ্তা তিন তালাক বায়েন হয়ে গেলে তাকে কোন খোরপোষ দিতে হবে না (মুসলিম হা/১৪৮০; মিশকাত হা/৩৩২৪; ছহীহুল জামে‘ হা/৭৫৫১)। তবে স্ত্রী গর্ভবতী হ’লে সন্তান প্রসব করা … Continue reading

Posted in তালাক দেওয়ার পর কতদিন পর্যন্ত খোরপোষ দেওয়ার শারঈ নির্দেশনা রয়েছে? | Tagged ,

তিনটি ক্ষেত্রে মিথ্যা কথা বলা যায়’ কথাটির সত্যতা আছে কি? থাকলে কোন কোন ক্ষেত্রে?


তিনটি ক্ষেত্রে মিথ্যা কথা বলা যায়- কথাটি সত্য। সে তিনটি ক্ষেত্র হ’ল- দু’ব্যক্তির মধ্যে মীমাংসার জন্য, (২) যুদ্ধক্ষেত্রে, (৩) স্বামী-স্ত্রী পরস্পরের নিকট (আবুদাঊদ হা/৪৯২১; তিরমিযী হা/১৯৩৭; মিশকাত হা/৫০৩১, ৫০৩৩; ছহীহাহ হা/৫৪৫)। এছাড়া কল্যাণকর কাজের স্বার্থে সাময়িকভাবে মিথ্যার আশ্রয় নেয়া যায়। যেমন … Continue reading

Posted in মিথ্যা কথা বলা যায়’ কথাটির সত্যতা আছে কি? থাকলে কোন কোন ক্ষেত্রে? | Tagged