Tag Archives: হালাল/হারাম

তিনটি মসজিদ ব্যতীত আর কোন মসজিদে নেকীর উদ্দেশ্যে ভ্রমণ করা হারাম। কিন্তু মসজিদে ক্বোবায় গেলে ওমরাহ করার সমান নেকী পাওয়া যায়। এখন কেউ যদি মসজিদে ক্বোবায় নেকীর উদ্দেশ্যে গমন করে তাহ’লে কি সেটা হারাম কাজ হবে?


দূর-দূরান্ত থেকে স্রেফ মসজিদে ক্বোবার ফযীলত লাভের উদ্দেশ্যে সফর করা যাবে না। এই ফযীলত কেবল অত্র মসজিদের আশ-পাশে বসবাসকারী বা অবস্থানকারীদের জন্য (ইবনু তায়মিয়াহ, ইকতিযাউছ ছিরাতিল মুস্তাক্বীম ২/৩৪০-৩৪৪)। মসজিদে ক্বোবায় ছালাত আদায়ের বহু ফযীলত বর্ণিত হয়েছে। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি … Continue reading

Posted in মসজিদে ক্বোবায় গেলে ওমরাহ করার সমান নেকী পাওয়া যায় কি? | Tagged ,

জনৈক ইমাম ষাড়ের প্রজননের বিনিময়ে টাকা উপার্জন করেন। এরূপ কাজ জায়েয হবে কি? যদি এরূপ উপার্জন হারাম হয়, তাহ’লে ঐ ইমামের পিছনে ছালাত হবে কি?


ষাড়ের প্রজননের বিনিময়ে টাকা উপার্জন করা তথা ব্যবসা হিসাবে গ্রহণ করা হারাম। হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর (রাঃ) বলেন, রাসূল (ছাঃ) ষাড়ের প্রজননের বিনিময়ে উপার্জন করতে নিষেধ করেছেন’ (বুখারী হা/২২৮৪; মিশকাত হা/২৮৫৬ ‘ক্রয়-বিক্রয়’ অধ্যায়)। জাবের (রাঃ) বলেন, উট দ্বারা পাল দিয়ে তার … Continue reading

Posted in প্রজননের বিনিময়ে টাকা উপার্জন করা যাবে কি? | Tagged , ,

কুকুর আল্লাহর সৃষ্টি। অথচ তা বাড়িতে প্রতিপালন করা নিষেধ, এমনকি প্রতিদিনের বিপরীতে এক ক্বীরাত্ব বা দু’ক্বীরাত নেকী কমে যায়। এর কারণ কি?


শূকরের মত কুকুরও সত্ত্বাগতভাবে নাপাক। সেকারণে কুকুর পালনে নিষেধ করা হয়েছে (মুসলিম হা/১৫৭৪, ২১০৬)। তাছাড়া কুকুরের লালা ও মলমূত্র মুছল্লীর কাপড়ে লাগলে কাপড় অপবিত্র হয়ে যায় (তায়সীরুল আল্লাম ২/২০৯)। এদের লালায় ভয়ংকর জীবাণু থাকে, যার স্পর্শকৃত পাত্র সাতবার ধৌত করার বিধান রয়েছে (মুসলিম … Continue reading

Posted in কুকুরকে বাড়ীতে পাললে নেকী কমে যায় কেনো? | Tagged , ,

গ্রামে গেলে বিভিন্ন স্থানে পড়ে থাকা ব্যক্তি মালিকানাধীন ফল আমরা খেয়ে থাকি। এটা কতটুকু জায়েয হবে?


খোলা বাগানে বৃক্ষের নীচে পড়ে থাকা ফল কুড়িয়ে খাওয়া জায়েয। আর যদি বাগান প্রাচীর দিয়ে ঘেরা থাকে তাহ’লে মালিক বা তার প্রতিনিধিকে ডেকে অনুমতি নিবে। মালিক না থাকলে ফল কুড়িয়ে বা পেড়ে খাওয়া যাবে। তবে ফল বেঁধে বাড়ি নেওয়া যাবে … Continue reading

Posted in বিভিন্ন স্থানে পড়ে থাকা ব্যক্তি মালিকানাধীন ফল খাওয়া জায়েয হবে কি? | Tagged , ,

আমার কাছে অনেক গল্প-উপন্যাসের বই আছে, শরী‘আত মোতাবেক যা পাঠ করা হারাম। এক্ষণে তা বিক্রি করে টাকা নেওয়া যাবে কি?


এগুলি পুড়িয়ে বা মাটির নিচে পুঁতে ফেলতে হবে। যাতে অন্য কেউ তা দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘আল্লাহ তা‘আলা যখন কোন জিনিস হারাম করেন তখন তার মূল্য গ্রহণও হারাম করেন’ (আহমাদ হা/২৬৭৮; ইবনু হিববান হা/৪৯৩৮, সনদ ছহীহ)। তিনি আরো … Continue reading

Posted in পাঠ করা হারাম বই বিক্রি করে টাকা নেওয়া যাবে কি? | Tagged

প্রাপ্তবয়স্ক জনৈক ছেলের নিজস্ব কোন আয় নেই। পিতার উপার্জনের বড় অংশ হারাম পদ্ধতিতে অর্জিত। এক্ষণে উক্ত ছেলের জন্য পিতার সম্পদ গ্রহণ করা জায়েয হবে কি?


বাধ্যগত অবস্থায় জায়েয হবে ইনশাআল্লাহ। তবে উক্ত সম্পদ মৌলিকভাবে হারাম হ’লে তা সন্তানের জন্য গ্রহণ করা জায়েয নয়। যেমন চুরি-ডাকাতি, ছিনতাই ও ঘুষ ইত্যাদির টাকা (উছায়মীন, আল-ক্বাওলুল মুফীদ আলা কিতাবিত তাওহীদ ২/৩৫২)।

Posted in পিতার হারাম উপার্জনের বড় অংশ ছেলের জন্য গ্রহণ করা জায়েয হবে কি? | Tagged , , ,

কাঁচা পেয়াজ-রসুন খেলে যদি ফেরেশতারা তার নিকট থেকে চলে যায়, তবে তা খাওয়া সব সময়ের জন্য হারাম হবে কি?


পিয়াজ ও রসুন হালাল এবং অনেক উপকারী খাদ্যবস্ত্ত হওয়া সত্ত্বেও এর তীব্র গন্ধ অন্যের জন্য কষ্টকর হওয়ায় রাসূল (ছাঃ) কাঁচা পিয়াজ ও রসুন খেয়ে মসজিদে যেতে নিষেধ করেছেন। সুতরাং এই নিষেধাজ্ঞা কেবল মসজিদে জামা‘আতের সাথে সম্পৃক্ত। অবশ্য রান্না করা পিয়াজ … Continue reading

Posted in কাঁচা পেয়াজ-রসুন খাওয়া সব সময়ের জন্য হারাম কি? | Tagged ,

পুরুষদের জন্য স্বর্ণ ব্যবহার হারাম। এক্ষণে তারা স্বর্ণকার হিসাবে স্বর্ণের বেচা-কেনায় জড়িত থাকতে পারবে কি?


ইসলামে ব্যবসা-বাণিজ্যের মূলনীতি হ’ল, ইবাহাত বা বৈধতা, যতক্ষণ না শরী‘আত কর্তৃক তা হারাম করা হয়। স্বর্ণ মৌলিকভাবে হালাল, অতএব তার ব্যবসা করাও হালাল। আর স্বর্ণ বা স্বর্ণালংকার পুরুষদের জন্য হারাম হ’লেও মহিলাদের জন্য তা হালাল। রাসূল (ছাঃ) স্বর্ণ ব্যবসার মূলনীতি … Continue reading

Posted in পুরুষরা স্বর্ণকার হিসাবে স্বর্ণের বেচা-কেনায় জড়িত থাকতে পারবে কি? | Tagged ,

জনতা ব্যাংকের জনৈক ম্যানেজারের দানের অর্থে মসজিদের মেঝে পাকা করা হয়েছে। অথচ ব্যাংকারদের উপার্জন হালাল নয়। এক্ষণে উক্ত মসজিদে ছালাত আদায় করা যাবে কি?


এরূপ মসজিদে ছালাত আদায়ে কোন বাধা নেই। কেননা একজনের পাপের বোঝা অন্যে বহন করবে না’ (নাজম ৩৮)। এছাড়া রাসূল (ছাঃ) কাফিরদের হাদিয়া গ্রহণ করেছেন (বুখারী হা/২৬১৫-২৬১৮)।

Posted in ব্যাংকের ম্যানেজারের দানের মসজিদে ছালাত আদায় করা যাবে কি? | Tagged , ,

জমি সহ বিভিন্ন ক্রয়-বিক্রয়ে সহযোগিতার মাধ্যমে উপার্জন করা জায়েয হবে কি?


প্রতারণা না থাকলে বা অন্যের হক বিনষ্ট করার উদ্দেশ্য না থাকলে জায়েয হবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, মুসলিমগণ তাদের পরস্পরের শর্তানুযায়ী কাজ করবে যদি তা হালাল হয় (হাকেম হা/২৩১০; ছহীহুল জামে‘ হা/৬৭১৫)। ইমাম বুখারী (রহঃ) ‘দালালের মজুরী’ শিরোনামে অধ্যায় রচনা করে বলেন,  … Continue reading

Posted in জমি সহ বিভিন্ন ক্রয়-বিক্রয়ে সহযোগিতার মাধ্যমে উপার্জন করা জায়েয হবে কি? | Tagged , , ,

মিথ্যা সার্টিফিকেট ও মিথ্যা অভিজ্ঞতা সনদ দিয়ে চাকুরী নিলে উক্ত উপার্জন হালাল হবে কি?


হালাল হবে না। কারণ এটা প্রতারণা মাত্র। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, যে ব্যক্তি প্রতারণা করে, সে আমাদের দলভুক্ত নয়’ (মুসলিম, মিশকাত হা/২৮৬০, ৩৫২০)।

Posted in মিথ্যা সার্টিফিকেট দিয়ে চাকুরী নিলে উক্ত উপার্জন হালাল হবে কি? | Tagged ,

পুরাতন মদের বোতল পরিষ্কার করে তা পানি পানের জন্য ব্যবহার করা যাবে কি?


মদের বোতল ব্যবহার না করাই উত্তম। বাধ্যগত অবস্থায় ব্যবহার করতে হ’লে ভালোভাবে ধৌত করে নিয়ে ব্যবহার করবে। যাতে পাত্রে মদের কোন চিহ্ন বা ক্রিয়া না থাকে। আবু ছা’লাবা খুশানী (রাঃ) থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, একদা তিনি রাসূল (ছাঃ)-কে জিজ্ঞেস করেন … Continue reading

Posted in মদের বোতল পরিষ্কার করে তা পানি পানের জন্য ব্যবহার করা যাবে কি? | Tagged , ,

ঔষধের দোকানে তরল জাতীয় কিছু ঔষধ পাওয়া যায়, যা রোগের উপশমের কাজ করে। আবার মানুষ বিভিন্ন উপায়ে তা নেশা করার জন্য ব্যবহার করে। এরূপ ঔষধ সেবন করা জায়েয হবে কি?


এরূপ ঔষধ সেবন করা জায়েয। কারণ হালাল জিনিসকে হারাম উদ্দেশ্যে কেউ ব্যবহার করলে তা হারাম হয়ে যায় না (ফাতওয়া লাজনা দায়েমা ২২/১১০; উছায়মীন, লিক্বাউল বাবিল মাফতূহ ২৩১/৩)। যেমন তালের রস খাওয়া হালাল হ’লেও কেউ তা মদ হিসাবেও ব্যবহার করে।

Posted in হালাল জিনিসকে হারাম উদ্দেশ্যে কেউ ব্যবহার করলে তা হারাম হয়ে যায় কি? | Tagged

জনৈক ব্যক্তি বলেন, ছিয়ামরত অবস্থায় দিনের বেলা সিগারেট খাওয়া যাবে। কারণ এটি শরীরে কোন পুষ্টি যোগায় না। বরং ক্ষতি করে। সুতরাং এটি ছিয়ামভঙ্গকারী খাবার নয়। একথার সত্যতা আছে কি?


বক্তব্যটি ভিত্তিহীন। কারণ সিগারেট খাওয়া হয় ইচ্ছাকৃতভাবে। হানাফী বিদ্বান ইবনু আবেদীন বলেন, যেকোন প্রকারের ধোঁয়া ইচ্ছাকৃতভাবে গ্রহণ করলে ছওম ভঙ্গ হয়ে যাবে (রাদ্দুল মুহতার আলাদ দুররিল মুখতার ২/৩৯৫)। বিশেষজ্ঞদের মতে, সিগারেটের ধোঁয়া চলে যায় ফুসফুসে, আর কিছু উপাদান চলে যায় পাকস্থলীতে। … Continue reading

Posted in ছিয়ামরত অবস্থায় দিনের বেলা সিগারেট খাওয়া যাবে কি? | Tagged , ,

আমার ছোট বোন বুদ্ধি-জ্ঞান হওয়া থেকেই নিজেকে ছেলে হিসাবে মনে করে। বর্তমানে সে মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছে। ডাক্তাররা তার অপারেশন করাতে বলছে। এক্ষণে এভাবে লিঙ্গান্তর করা জায়েয হবে কি?


তাকে অভিজ্ঞ চিকিৎসকের নিকট চিকিৎসা করাতে হবে। বিষয়টি মানসিক হয়ে থাকলে মনোচিকিৎসার মাধ্যমে তা নিরাময় হবে ইনশাআল্লাহ। আর শারীরিক হয়ে থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ মোতাবেক শারীরিকভাবে তাকে যে লিঙ্গের নিকটবর্তী পাওয়া যাবে, সেদিকে পূর্ণতা দেওয়া সম্ভব হ’লে অপারেশন করায় বাধা নেই। … Continue reading

Posted in লিঙ্গান্তর করা জায়েয কি? | Tagged ,

আমি সিজারের মাধ্যমে তিনটি সন্তান লাভ করেছি। এর পর সন্তান নেওয়া আমার জন্য বিপদজনক। এক্ষণে আমি জন্ম নিয়ন্ত্রণের জন্য স্থায়ী কোন ব্যবস্থা নিতে পারি কি?


সাধারণভাবে স্থায়ী জন্মনিরোধ ব্যবস্থা গ্রহণ হারাম। তবে অভিজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী যদি জীবন ঝুঁকিপূর্ণ হয়, তাহ’লে স্থায়ী পদ্ধতি অবলম্বন করা যায়। কারণ আল্লাহ হারাম জিনিসকে কখনো কখনো হালাল করেছেন। যেমন নিরুপায় অবস্থায় মৃত প্রাণীর গোশত হালাল (বাক্বারাহ ২/১৭৩, নাহল ১৬/১১৫; ফাতাওয়া … Continue reading

Posted in জন্ম নিয়ন্ত্রণের জন্য স্থায়ী কোন ব্যবস্থা নেওয়া যাবে কি? | Tagged

জনৈক ব্যক্তির ছেলে কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকে চাকুরী করে। নিরুপায় পিতা-মাতার জন্য উক্ত সন্তানের উপার্জিত অর্থে সংসার পরিচালনা করা জায়েয হবে কি?


বাধ্যগত অবস্থায় জায়েয হবে ইনশাআল্লাহ। কারণ সন্তান হারাম উপার্জন করলে, বরং সে নিজে দায়ী হবে পিতা-মাতা নয় (বাক্বারাহ ৫৭ আয়াতের ব্যাখ্যা দ্রঃ)। তবে পিতামাতা হিসাবে তারা সন্তানকে হারাম থেকে বিরত রাখার সর্বাত্মক চেষ্টা করবেন। সাধ্য থাকলে সন্তানের উপার্জন পরিহার করবেন।

Posted in ব্যাংকে চাকুরী করা সন্তানের নিরুপায় পিতা-মাতার সংসার পরিচালনা করা যাবে কি? | Tagged , ,

গুল-জর্দা কি সরাসরি তামাক পাতা থেকে তৈরীকৃত? না স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হওয়ায় এগুলি হারাম সাব্যস্ত করা হয়?


গুল-জর্দা সরাসরি তামাক থেকে তৈরী। আর তামাক বা তামাকজাত যে কোন নেশাদার দ্রব্য খাওয়া সর্বাবস্থায় নিষিদ্ধ। রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, ‘মাদকতা আনয়নকারী প্রত্যেক বস্ত্তই মদ এবং প্রতিটি মাদকদ্রব্য হারাম’ (মুসলিম, মিশকাত হা/৩৬৩৮)। এছাড়া তামাক শুধু মানুষ নয়, সকল প্রাণীর জন্য ক্ষতিকর। বিশ্বস্বাস্থ্য … Continue reading

Posted in গুল-জর্দা কি স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হওয়ায় এগুলি হারাম? | Tagged ,

আমাদের ডেকোরেশনের ব্যবসা আছে। ব্যবসার প্রয়োজনে বিবাহ, কুলখানি, গান-বাজনা ইত্যাদি অনুষ্ঠানের জন্য মালামাল ভাড়া দিতে হয়। পুরোপুরি ইসলামী শরী‘আ অনুমোদিত অনুষ্ঠান খুঁজে ভাড়া দিতে চাইলে ব্যবসা করা সম্ভব নয়। এক্ষণে আমার করণীয় কি?


বৈধ কর্মে ভাড়া দিতে হবে এবং যথাসম্ভব শরী‘আত বিরোধী কাজে সহযোগিতা থেকে বিরত থাকবে মায়েদাহ ৫/২)। আল্লাহকে ভয় করলে ও তাঁর উপর ভরসা করলে তিনি ব্যবস্থা করে দেওয়ার অঙ্গীকার করেছেন (তালাক ৬৫/২; বুখারী হা/৫১৬৪; মুসলিম হা/৩৬৭)। বৈধ কর্মে ভাড়া দেওয়ার উদ্দেশ্যে উক্ত … Continue reading

Posted in ডেকোরেশনের ব্যবসায় বিবাহ কুলখানি গান-বাজনা ইত্যাদি অনুষ্ঠানের জন্য মালাম | Tagged ,

ছহীহ সুন্নাহ মোতাবেক আমল শুরু করার আগে আমি পীরের মাযারে কয়েক পশু দেওয়ার মানত করেছিলাম। এক্ষণে তা পুরণ করতে হবে কি?


আল্লাহ ব্যতীত অন্যের নামে মানত, নযর-নেয়ায করা বা যবেহ করা শিরক। আল্লাহ বলেন, ‘তোমাদের জন্য হারাম করা হ’ল … আর যেসব জন্তু আল্লাহ ছাড়া অন্যের নামে উৎসর্গ করা হয় এবং তীর্থকেন্দ্রে যে সব পশু যবেহ করা হয়’… (মায়েদা ৩)। অতএব এক্ষেত্রে … Continue reading

Posted in হারাম মানত করলে তা কি পুরণ করতে হবে কি? | Tagged ,

অমুসলিম বন্ধুদের দাওয়াত দিয়ে খাওয়ানোর ক্ষেত্রে শূকরের গোশত খাওয়ানো যাবে কি?


শূকরের গোশত নিজেও খাওয়া যাবে না, অপরকেও খাওয়ানো যাবে না। কারণ এটিকে আল্লাহ হারাম করেছেন (বাক্বারাহ ২/১৭৩) এবং  রাসূল (ছাঃ) মক্কা বিজয়ের দিন এর ক্রয়-বিক্রয় হারাম করেছেন (বুখারী হা/২২৩৬; মুসলিম হা/১৫৮১; মিশকাত হা/২৭৬৬)।

Posted in অমুসলিম বন্ধুদের শূকরের গোশত দাওয়াত দিয়ে খাওয়ানো যাবে কি? | Tagged , , ,

আমি প্রিন্টিং-এর ব্যবসা করি। ব্যবসায়িক স্বার্থে আমাকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিরক-বিদ‘আত, হারাম-হালাল ইত্যাদি কার্যাবলীর পোস্টার, দাওয়াতকার্ড ইত্যাদি ছাপাতে হয়। এগুলি করা বাদ দিলে ক্ষতির সম্মুখীন হ’তে হয়। আবার অর্ডার নিলে হারাম কাজের সাথে হালাল কাজও পাওয়া যায়। এক্ষণে হারাম কার্যাবলী করে দিয়ে সেগুলির লভ্যাংশ নেকীর আশা ব্যতীত দান করে দিলে উক্ত পাপ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে কি?


পাপমুক্তির জন্য এরূপ চেষ্টা ও পরিকল্পনা প্রশংসনীয়। তবে এতে সত্যিকার পাপমুক্তি ঘটবে না। কেননা এক্ষেত্রে শিরক-বিদ‘আত ও হারামযুক্ত কার্যাবলী বন্ধ করে কেবল বৈধ ও শিরক-বিদ‘আত মুক্ত কাজ করার সুযোগ রয়েছে। সুতরাং যদি ব্যবসায়িক ক্ষতির সম্মুখীন হ’তে হয়, তবুও তা-ই করতে … Continue reading

Posted in প্রিন্টিং-এর ব্যবসা করা যাবে কি? | Tagged , ,

আমি গ্রীসে পুলিশের হেফাযতে শরণার্থী ক্যাম্পে আছি। এখানে মুরগীর গোশত, কাবাব ও অন্যান্য খাবার দেয়, যা খৃষ্টানদের যবেহকৃত। এগুলি খাওয়া যাবে কি?


আহলে কিতাব তথা ইহূদী এবং খৃষ্টানদের যবেহ করা হালাল পশু খাওয়া জায়েয, যদি তারা যবহের সময় আল্লাহর নাম নেয়। আল্লাহ বলেন, ‘আর আহলে কিতাবদের যবেহকৃত পশু তোমাদের জন্য হালাল এবং তোমাদের যবেহকৃত পশু তাদের জন্য হালাল’ (মায়েদাহ ৫/৫)। যবেহের সময় ‘বিসমিল্লাহ’ … Continue reading

Posted in খৃষ্টানদের যবেহকৃত মুরগীর গোশত কাবাব খাওয়া যাবে কি? | Tagged , , ,

আমি নানীর দুধ পান করে বড় হয়েছি। বড় হয়ে বড় মামার মেয়েকে বিয়ে করেছি এবং একটি ছেলে সন্তান হয়েছে। এক্ষণে আমাদের বিবাহ কি শুদ্ধ ছিল? শুদ্ধ না হ’লে আমাদের সন্তানের কি হবে? জানিয়ে বাধিত করবেন।


উক্ত বিবাহ শরী‘আতসম্মত হয়নি। কারণ আপনার মামা আপনার দুধভাই। যেমন হামযা (রাঃ) চাচা হওয়া সত্ত্বেও তিনি ছিলেন রাসূল (ছাঃ)-এর দুধভাই। আর দুধ ভাইয়ের মেয়েকে বিবাহ করা হারাম। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘বংশীয় সূত্রে যে সকল মহিলাকে বিবাহ করা হারাম, দুগ্ধপান সূত্রেও … Continue reading

Posted in নানীর দুধ পান করে বড় হয়েছি। মামার মেয়েকে বিয়ে করেছি এখন করণীয় কি? | Tagged , , ,

পত্রিকার একাধিকবার ফৎওয়া প্রদান করেছে যে, ইসলামী ব্যাংকের সাথে লেনদেন সূদের পর্যায়ভুক্ত। অথচ এর বিকল্প কোন সমাধান দেওয়া হয় না। তাহ’লে কি ইসলাম অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে অপূর্ণাঙ্গ? না-কি ফৎওয়া বোর্ডের ব্যর্থতা?


ইসলাম পূর্ণাঙ্গ জীবন বিধান। রাজনীতি, অর্থনীতি সব ক্ষেত্রেই এটি পূর্ণাঙ্গ (বাক্বারাহ ২০৮; মায়েদাহ ৩)। কিন্তু মুসলিম রাষ্ট্রনেতাদের হাতেই এর রাজনীতি ও অর্থনীতি উপেক্ষিত। অথচ দু’টি পরস্পরে সম্পর্কিত। ইসলামী অর্থনীতি এবং প্রচলিত ইসলামী ব্যাংকিং ব্যবস্থা ভিন্ন বিষয়। কেবল পত্রিকার ফৎওয়া বোর্ড নয় … Continue reading

Posted in ইসলামী ব্যাংকের সাথে লেনদেন সূদের পর্যায়ভুক্ত কি? | Tagged , , ,

আমি ইরাক প্রবাসী। আশূরা উপলক্ষে শী‘আরা বিশেষ খাবার রান্না করে এবং বলে যে, এই খাবার আল্লাহর জন্য, কিন্তু এর ছওয়াব হুসাইন (রাঃ)-এর জন্য। আমি যদি তা না খাই তবে অনেক সমস্যায় পতিত হ’তে হবে। এক্ষণে সেটা খাওয়া কি জায়েয হবে?


আশূরা উপলক্ষে ফেরাঊনের কবল থেকে নাজাতে মূসার শুকরিয়ার নিয়তে দু’দিন নফল ছিয়াম রাখা ব্যতীত আর সকল কর্মই বিদ‘আত। অতএব এ উপলক্ষে শী‘আ বা সুন্নীদের যেকোন অনুষ্ঠান বা খাদ্য ভক্ষণ সবই নাজায়েয (দ্রঃ ‘আশূরায়ে মুহাররম ও আমাদের করণীয়’ পুস্তিকা)। এক্ষণে প্রশ্নমতে যদি … Continue reading

Posted in আশূরা উপলক্ষে কারো কোন খাদ্য খাওয়া যাবে কি? | Tagged , , ,

ক্যাঙ্গারুর গোশত খাওয়া হালাল হবে কি?


ক্যাঙ্গারুর গোশত খাওয়া হালাল। কারণ তা হিংস্র  বা তীক্ষ্ণ দন্ত ও নখর বিশিষ্ট নয়। ‘রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) তীক্ষ্ণ দাঁতবিশিষ্ট হিংস্র জন্তু এবং ধারালো নখ বিশিষ্ট পাখি খেতে নিষেধ করেছেন’ (মুসলিম হা/১৯৩৪; মিশকাত হা/৪১০৫)। আর শরী‘আতের বিধান হ’ল- কোন প্রাণীর গোশত ততক্ষণ হারাম … Continue reading

Posted in ক্যাঙ্গারুর গোশত খাওয়া হালাল হবে কি? | Tagged , ,

অধিক খাওয়া বা দ্রুত খাওয়ার ব্যাপারে বর্তমানে যেভাবে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়, এগুলি জায়েয হবে কি?


এরূপ প্রতিযোগিতা স্রেফ অপচয়ের শামিল। আল্লাহ বলেন, তোমরা খাও ও পান কর। কিন্তু অপচয় করো না। নিশ্চয়ই আল্লাহ অপচয়কারীদের ভালবাসেন না (আ‘রাফ ৭/৩১)। উক্ত আয়াতের ব্যাখ্যায় ইবনু আববাস (রাঃ) বলেন, উক্ত আয়াতে আল্লাহ তা‘আলা খানা-পিনা হালাল করেছেন. যতক্ষণ না তাতে অপচয় … Continue reading

Posted in খাওয়ার ব্যাপারে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা জায়েয হবে কি? | Tagged ,

বর্তমানে সুন্নাত গণ্য করে আতর বা সুগন্ধি ব্যবহারে যেরূপ বাড়াবাড়ি ও অপব্যয় করা হচ্ছে, তা শরী‘আতসম্মত কি?


আতর ব্যবহার করা রাসূল (ছাঃ)-এর অভ্যাসগত সুন্নাতের অন্তর্ভুক্ত। তিনি বলেন,  ‘দুনিয়ার মধ্যে আমার কাছে স্ত্রী ও আতরকে প্রিয় করা হয়েছে’ (আহমাদ হা/১২৩১৫; নাসাঈ হা/৩৯৩৯, ছহীহুল জামে‘ হা/৩১২৪)। এক্ষণে বাড়াবাড়ির বিষয়টি আপেক্ষিক। সম্পদশালী ব্যক্তি যদি উন্নতমানের সুগন্ধি অধিক অর্থ ব্যয়ে ক্রয় করেন, … Continue reading

Posted in সুগন্ধি ব্যবহারে যেরূপ বাড়াবাড়ি ও অপব্যয় করা হচ্ছে তা শরী‘আতসম্মত কি? | Tagged ,

মাথা ও পা বিহীন প্লাস্টিক ডল দিয়ে গার্মেন্টস ব্যবসা করা যাবে কি?


এগুলি মূর্তিপূজার প্রতি উৎসাহ সৃষ্টি করে। অতএব এগুলি থেকে দূরে থাকতে হবে। তাছাড়া বর্তমানে প্ল­াষ্টিক বা অন্য বস্ত্তর দ্বারা পূর্ণদেহী পুতুল তৈরী করা হয়। যার মুখ, চোখ, নাক, কান সহ অন্যান্য অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ হুবহু মানুষের বা প্রাণীর আকৃতির ন্যায়। এ ধরনের … Continue reading

Posted in মাথা ও পা বিহীন প্লাস্টিক ডল দিয়ে গার্মেন্টস ব্যবসা করা যাবে কি? | Tagged , ,

অল্পমূল্যে অনেক ভালো ভালো কোম্পানীর ব্যবহৃত মোবাইল ক্রয়ের স্থান রয়েছে, যার অধিকাংশই চুরিকৃত বলে অনুমান করা হয়। এসব মোবাইল ক্রয় করা যাবে কি?


নিশ্চিতভাবে জানা গেলে চুরিকৃত বস্ত্ত ক্রয় করা যাবে না। এটা অন্যায় কাজে সহযোগিতার শামিল। আল্লাহ বলেন, ‘তোমরা পাপ ও সীমালংঘনের কাজে পরস্পরকে সহযোগিতা করো না’ (সূরা মায়েদা ৫/২; শায়খ বিন বায, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ১৯/৯২)।

Posted in চুরিকৃত মোবাইল অল্পমূল্যে ক্রয় করা যাবে কি? | Tagged ,

মানবদেহের পশম কাটায় শরী‘আতে কোন বাধা আছে কি? যেমন হাত, বুক বা পিঠের পশম বেশী বড় হওয়ায় সমস্যা সৃষ্টি হয়, সেক্ষেত্রে এরূপ করা যাবে কি?


দেহের পশম কষ্টদায়ক হ’লে কাটা যাবে। রাসূল (ছাঃ) বলেন, আল্লাহ তা‘আলা তাঁর গ্রন্থে যা হালাল করেছেন তা-ই বৈধ এবং যা হারাম করেছেন তা-ই অবৈধ। আর তিনি যে সকল বিষয়ে নীরব থেকেছেন (বৈধ বা অবৈধ কিছুই বলেননি) তা তাঁর ক্ষমার অন্তর্ভুক্ত (তিরমিযী … Continue reading

Posted in মানবদেহের পশম কাটায় শরী‘আতে কোন বাধা আছে কি? | Tagged ,

আমার পূর্বে ক্রয়কৃত পিয়ানো ও গিটার আছে। দ্বীন বুঝার পর এখন সেগুলি বিক্রি করে ইসলামী বই ক্রয় করতে চাই। এরূপ করা জায়েয হবে কি? নতুবা সেগুলি নিয়ে করণীয় কি?


এগুলো বিক্রয় করে উপকৃত হওয়া যাবে না। কারণ এগুলি হারাম কাজের উদ্দেশ্যে তৈরী। অতএব এগুলি ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দিতে হবে। ইবনু আববাস (রাঃ) বলেন, এক ব্যক্তি রাসূল (ছাঃ)-এর নিকট এক মশক শরাব হাদিয়া স্বরূপ নিয়ে আসে। রাসূল (ছাঃ) তাকে বললেন, তুমি … Continue reading

Posted in পিয়ানো ও গিটার বিক্রি করে ইসলামী বই কেনা যাবে কি? | Tagged

বীমা কোম্পানীতে চাকুরী করা হারাম জেনে চাকুরী ছাড়ার প্রস্ত্ততি নিচ্ছি। এক্ষণে ১০ বছর চাকুরীর ফলে প্রাপ্ত প্রভিডেন্ট ফান্ড, গ্রাচুইটি, লভ্যাংশ ইত্যাদি থেকে প্রাপ্ত অর্থের ব্যাপারে শরী‘আতের বিধান কি?


এক্ষেত্রে চাকুরী পরিত্যাগ করে খালেছ নিয়তে তওবা করতে হবে এবং পরবর্তীতে প্রাপ্ত সমস্ত অর্থ নেকীর আশা ব্যতীত দান করে দিতে হবে। কারণ যে সূদী অর্থ থেকে বাঁচার জন্য উক্ত চাকুরী ছাড়া হচ্ছে, তা থেকে প্রাপ্য সকল অর্থই তার অন্তর্ভুক্ত। তবে … Continue reading

Posted in বীমা কোম্পানীর চাকুরি ছাড়ার পর প্রভিডেন্ট ফান্ডের অর্থের বিধান কি? | Tagged , ,

ঘরের বিভিন্ন স্থানে কুরআনের আয়াত, দো‘আ, আয়াতুল কুরসী ইত্যাদির ক্যালিগ্রাফী টানিয়ে রাখা যাবে কি?


যাবে না। কারণ (১) অধিকাংশ ক্ষেত্রে সৌন্দর্যবর্ধনের উদ্দেশ্যে কুরআনের আয়াত, দো‘আ ইত্যাদি দ্বারা বিভিন্ন রঙের ডিজাইনে নকশা করা হয়। অথচ কুরআন নাযিল হয়েছে মানুষকে হেদায়াতের জন্য, সৌন্দর্যবর্ধনের জন্য নয়। অতএব এরূপ কাজ কুরআনকে তাচ্ছিল্য করার শামিল। (২) কেউ ঝুলিয়ে রাখে … Continue reading

Posted in ঘরের বিভিন্ন স্থানে কুরআনের আয়াত আয়াতুল কুরসী দো’আর ক্যালিগ্রাফী টানিয়ে র | Tagged , , , ,